ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

আলগাকে হারিয়ে পোচেয়নের শুভসূচনা

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ ফুটবল শুরু

প্রকাশিত: ০৫:৪৬, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ ফুটবল শুরু

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নামটা রুশ হলেও বাংলায় একটা অর্থ আছে। এফসি আলগা বিশকেকের ‘আলগা’ অংশটি। কিরগিজস্তানের এই ফুটবল ক্লাবকে ২-০ গোলে হারিয়ে ‘টাইট’-ই দিল দক্ষিণ কোরিয়ার পোচেয়ন সিটিজেন ফুটবল ক্লাব। শনিবার চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে আলগাকে হারিয়ে শুভসূচনা করল পোচেয়ন সিটিজেন এফসি। যদিও এই ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল সন্ধ্যা ৭টায়। আয়োজক কর্তৃপক্ষ হঠাৎ করেই সিডিউল পাল্টে ম্যাচটি শুরুতে নিয়ে আসেন। ফলে বিকেল ৪টায় ঢাকা আবাহনী লিমিটেড বনাম মালদ্বীপ টিসি স্পোর্টস ক্লাবের খেলাটির সময় নির্ধারণ করা হয় সন্ধ্যা ৭টায়। কারণ হিসেবে জানা গেছে, আবাহনীর খেলা দেখতে স্থানীয় দর্শক আসবে অফিস বা স্কুল-কলেজ ছুটির পর, এমনটা ভেবেই সময় পেছানো। ম্যাচের ১৪ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যায় পোচেয়ন। একক প্রচেষ্টায় প্রায় মাঝমাঠ থেকে বল নিয়ে আলগার বক্সের প্রায় তিন-চার গজ দূর থেকে তীব্র শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন জেং ইয়ং (১-০)। ১৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ক্লাবটি। সতীর্থর কাছ থেকে পাস পেয়ে আলগার বক্সে ঢুকে পড়েন মধ্যমাঠের ফুটবলার জি কিয়ং। পোস্টের বেশ কাছ থেকেই বা পায়ের চমৎকার বুদ্বিদীপ্ত শটে বল জালে পাঠান কিয়ং (২-০)। প্রথমার্ধে বেশ কয়েকটি কর্নার পেয়ে সেগুলো কাজে লাগাতে পারেনি। নইলে ব্যবধানটা আরও বাড়তে পারত। দ্বিতীয়ার্ধেও প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে দক্ষিণ কোরিয়ার ক্লাবটি। কিন্তু সফলকাম হয়নি। ৮১ মিনিটে তৃতীয় গোল করা থেকে বঞ্চিত হয় পোচেয়ন। তাদের নিশ্চিত গোলকে প্রতিহত করেন আলগা গোলরক্ষক। মজার ব্যাপারÑ শুরু থেকেই প্রচুর ফাউল হলেও খেলায় চীনা রেফারি প্রথম হলুদ কার্ড দেখান ৮৯ মিনিটে। পোচেয়নের প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়কে দৃষ্টিকটুভাবে ফাউল করায় আলগার নুরতালকে হলুদ কার্ড দেখান রেফারি। তবে শেষ পর্যন্ত দুইদলই আর কোন গোল করতে পারেনি। রেফারি খেলা শেষের বাঁশি বাজালে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে এবং শুভসূচনা করার চিত্তসুখ নিয়ে মাঠ ছাড়ে গ্রুপ ‘এ’র ক্লাব পোচেয়ন সিটিজেন এফসি। পোচেয়ন ক্লাবের জন্ম ২০০৭ সালে। ক্লাবটি কে-৩ এ্যামেচার লীগে খেলে থাকে। ২০১৬ সালের কে-৩ লীগের সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন তারা। এই লীগে তারা রেকর্ড ৫ বারের শিরোপাধারী। বাকি চারবার চ্যাম্পিয়ন হয় ২০০৯, ১২, ১৩ ও ১৫ সালে। শেখ কামাল ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন হবার ব্যাপারে অনেকের দৃষ্টিতেই তারা নাম্বার ওয়ান ফেবারিট। কিরগিজস্তানের বিশকেকে অবস্থিত এই ক্লাবের জন্ম ১৯৪৭ সালে। দেশটির শীর্ষ পর্যায়ের কিরগিজস্তান লীগে খেলে থাকে ঐতিহ্যবাহী দলটি। লীগে সর্বশেষ তারা ২০১৬ সালে তৃতীয় হয়। মজার ব্যাপারÑ ৭০ বছরের ইতিহাসে ক্লাবটি নয়বার নাম পাল্টেছে। এ পর্যন্ত ক্লাবটি মোট ৫বার লীগ জিতেছে (হ্যাটট্রিক শিরোপা ২০০০-০২ পর্যন্ত) এবং কিরগিজস্তান কাপ জিতেছে রেকর্ড ৯ বার (টানা সাত বার, ১৯৯৭-২০০৩ পর্যন্ত)।
monarchmart
monarchmart