ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

ক্যাসিয়াসের পাশে বুফন

প্রকাশিত: ০৬:৩৭, ১৭ নভেম্বর ২০১৬

ক্যাসিয়াসের পাশে বুফন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দীর্ঘ দুই দশক আগে আন্তর্জাতিক ফুটবলে যাত্রা শুরু করেছিলেন জিয়ানলুইজি বুফন। এরপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। একের পর এক অসামান্য কীর্তি গড়া বুফন এখন এক জীবন্ত কিংবদন্তির নাম। মঙ্গলবার আরও একবার ইতিহাসের পাতায় বসালেন নিজের নামকে। মিলানে জার্মানির বিপক্ষে খেলার মধ্য দিয়ে ভাগ বসালেন ইকার ক্যাসিয়াসের ১৬৭ ম্যাচ খেলার রেকর্ডে। জাতীয় দলের জার্সিতে দু’জনই এখন যৌথভাবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলা ফুটবলার। এই তালিকায় অবশ্য সবার ওপরে রয়েছেন আহমেদ হাসান। মিশরের সাবেক এই মিডফিল্ডার ১৮৪ ম্যাচ খেলে বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন। এরপর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলে দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন স্পেনের অভিজ্ঞ গোলরক্ষক ইকার ক্যাসিয়াস। মঙ্গলবার স্প্যানিশ গোলরক্ষককে স্পর্শ করলেন বুফন। ইতালিয়ান কিংবদন্তির বর্তমান বয়স ৩৯ ছুঁই ছুঁই। কিন্তু এখনও গোলপোস্টের নিচে অতন্দ্রপ্রহরী ছয় ফুট তিন ইঞ্চি উচ্চতার বুফন। জুভেন্টাসের হয়ে তিনি খেলেছেন ৪৬৯ ম্যাচ। ২০০১ সাল থেকে যতো শিরোপা জিতেছে জুভেন্টাস সেখানেই আলাদা করে ভূমিকা রেখেছেন জিয়ানলুইজি বুফন। তবে আজ্জুরিরা এখন বুফনের বিকল্প খুঁজছেন। ইতালি-জার্মানির বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচেও দেখা গেল তা। ম্যাচের প্রথমার্ধে বুফনের ওপর আস্থা রাখলেও দ্বিতীয়ার্ধেই তার বদলি হিসেবে মাঠে নামান আরেক বিস্ময় জিয়ানলুইজি ডোনারুমাকে। গত আগস্টেই প্রথমবারের মতো ইতালির জাতীয় দলে ডাক পান তিনি। তাও ইতিহাস সৃষ্টি করে। বয়স মাত্র ১৭। এই ডোনারুমার জন্মের আগেই জিয়ানলুইজি বুফনের অভিষেক। গত আগস্টে ১০৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কমবয়সী খেলোয়াড় হিসেবে ইতালির জাতীয় দলে জায়গা করে নেন ডোনারুমা। তবে ডোনারুমা যাই করুক না কেন, বুফন কোথায় গিয়ে থামেন তা বলা মুশকিল।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২