আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২৬.১ °C
 
২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ৯ ফাল্গুন ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

শেরপুরের সীমান্তবর্তী ঝিনাইগাতী বিধ্বস্ত জনপথে পরিণত

প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট ২০১৫, ০৪:৩৩ পি. এম.
শেরপুরের সীমান্তবর্তী ঝিনাইগাতী বিধ্বস্ত জনপথে পরিণত

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর॥ আকস্মিক বন্যা ও পাহাড়ী ঢলে শেরপুরে সর্বাধিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সীমান্তবর্তী ঝিনাইগাতী উপজেলা। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এতো বেশি যে খোদ ঝিনাইগাতীই এখন বিধ্বস্ত জনপদে পরিণত হয়েছে। এখনও পানিবন্দী রয়েছে নিম্নাঞ্চলের বেশ কিছু এলাকা। ওইসব এলাকার লোকজন কলার ভেলা ও নৌকাযোগে পারাপার হলেও তাদের বিশুদ্ধ খাবার পানির তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে।

সোমবার দুপুরে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, সাম্প্রতিক আকস্মিক পাহাড়ী ঢল ও টানা ভারী বর্ষণে সৃষ্ট বন্যা কবলিত ঝিনাইগাতী উপজেলায় নদীগুলোর পানি কমতে শুরু করলেও নিম্নাঞ্চলগুলোতে পানিবন্দী এলাকার মানুষের দূর্ভোগ বাড়ছে। বন্যা কবলিত এলাকাগুলোতে বিশুদ্ধ খাবার পানি ও গো-খাদ্যের চরম সংকট দেখা দিয়েছে। বন্যার পানি প্রবেশ করায় ক্ষতিগ্রস্ত অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখনও পুরোপুরি পাঠদানের উপযোগী হয়ে উঠেনি। বিচ্ছিন্ন যোগাযোগ ব্যবস্থা পুনঃস্থাপনে এখনও তড়িৎ কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। ঢলের পানির তোড়ে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে প্রায় ৫শ’ ঘর-বাড়ী বিধ্বস্ত হয়েছে। ৩৪টি কাঠের ব্রিজ, ১টি পাকাব্রিজ, ২শতাধিক কালভার্ট বিধ্বস্ত হয়েছে। ১৭টি গবাদিপশুর মৃত্যু হয়েছে। মহারশি, কালঘোষা সোমেশ্বরী নদীর ঢলের পানির তোড়ে প্রায় ২ হাজার পুকুর তলিয়ে ও পাড় ভেঙে কোটি টাকা মূল্যের মাছ ভেসে গেছে। প্রায় ২ হাজার হেক্টর জমির আমনক্ষেত ক্ষতি সাধিত হয়েছে। বন্যার পানিতে নিমজ্জিত হয়ে আছে শতশত একর জমি। ঢলের পানির তোড়ে দেয়াল চাপা পড়ে নলকুড়া ইউনিয়নে একই পরিবারের ৪ জনসহ মোট ৫ জন আহত হয়েছে। এছাড়া সোমেশ্বরী নদীর আয়নাপুর অংশে বেড়িবাধের ভাঙনে হুমকীর সম্মুখীন হয়ে পড়েছে আশেপাশের ৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ দুটি গ্রাম।

এ ব্যাপারে শেরপুর এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী গোবিন্দ রায় সাম্প্রতিক বন্যা ও পাহাড়ী ঢলে এলজিইডির কাঁচাপাকা রাস্তা ও ব্রিজ-কালভার্ট ভেঙ্গে উপজেলার অভ্যন্তরিন সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা-ঘাটের বিষয়ে ইতোমধ্যে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। বরাদ্দ পেলেই দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট ২০১৫, ০৪:৩৩ পি. এম.

৩১/০৮/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: