ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১

‘খেজুরের রস’ খেয়ে দুই যুবকের মৃত্যু 

প্রকাশিত: ১৭:৪৪, ২৮ জানুয়ারি ২০২৪

‘খেজুরের রস’ খেয়ে দুই যুবকের মৃত্যু 

মানিকগঞ্জের মান্তা ও ঘোস্তা গ্রামে গত ১৫ দিনে ‘খেজুরের রস’ খেয়ে দুই যুবকের মৃত্যু 

খেজুরের রস খেয়ে নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মো. বাবুল হসেন (৩৫) ও লুৎফর রহমান (২৭) নামে দুই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। মানিকগঞ্জের মান্তা ও ঘোস্তা গ্রামে গত ১৫ দিনে এ ঘটনা ঘটেছে। 

শনিবার (২৭ জানুয়ারি) দিনগত রাত ১২ টার দিকে রাজধানী ঢাকার ধানমন্ডি পপুলার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বাবুল হসেন। 

মৃত মো. বাবুল হসেন সদর উপজেলার পুটাইল ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড মান্তা গ্রামের সাবেক ইউপি মেম্বার মাইনুদ্দিনের ছেলে। 

অপরদিকে, গত ১৬ জানুয়ারি একই ইউনিয়নে ঘোস্তা জাহাঙ্গীনগর গ্রামের নাজিমুদ্দিনের ছেলে লুৎফর রহমান (২৭) খেজুরের রস খেয়ে নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

পুটাইল ইউপি চেয়ারম্যন মহিদুর রহমান মহিদ জানান, ১৫ দিন আগে বাবুল হোসেন খেজুরের রস খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। চিকিৎসার জন্য প্রথমে তাকে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য জরুরি ভিত্তিতে তাকে ঢাকার ধানমন্ডি পপুলার হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত শনিবার দিনগত রাত ১২টার দিকে মারা যান তিনি। রবিবার (২৮ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে মান্তা নিজ গ্রামে জানাজা শেষে মরদেহ স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়।

সংরক্ষিত নারী আসনের স্থানীয় ইউপি সদস্য রুবিয়া পারভিন জানান, এর আগে গত  ১৬ জানুয়ারি তার ওয়ার্ডের  ঘোস্তা জাহাঙ্গীরনগর গ্রামে খেজুরের রস খেয়ে নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যান নাজিমুদ্দিনের ছেলে লুৎফর রহমান (২৭)।

তিনি আরও জানান, খেজুরের কাঁচা রস খাওয়ার পর লুৎফরের মাথা ব্যথা ও জ্বর শুরু হয়। প্রথমে ঘোস্তা বাজারের স্থানীয় ডাক্তারের কাছ থেকে ওষুধ এনে খাওয়ানো হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৬ জানুয়ারি মারা যান লুৎফর। এ নিয়ে গত দুই সপ্তাহে তার নির্বাচিত এলাকায় খেজুরের রস খেয়ে নিপাহ ভাইরাসে দুইজন মারা গেছেন। 

 

এবি

সম্পর্কিত বিষয়:

×