ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

পদ্মা সেতু এলাকায় বালু তোলার প্রতিবাদে নৌর‌্যালি

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ

প্রকাশিত: ২১:৩৫, ২৯ মে ২০২৩; আপডেট: ১০:৪৮, ৩০ মে ২০২৩

পদ্মা সেতু এলাকায় বালু তোলার প্রতিবাদে নৌর‌্যালি

পদ্মা সেতুর নিচে বালু তোলার প্রতিবাদে নৌ-রালি

পদ্মা সেতু সংলগ্ন এলাকায় অবৈধভাবে বালু  তোলার প্রতিবাদে নদী তীরের মানুষ হুমকির মুখে পড়েছে। এর প্রতিবাদে শতাধিক নৌযান নিয়ে নৌর‌্যালি করে লৌহজংবাসী। র‌্যালির নেতৃত্ব দেন সংসদ সদস্য অধ্যাপক সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি। এ সময় ইংলিশ চ্যানেল বিজয়ী কিংবদন্তি সাঁতারু মোশাররফ হোসেন খানসহ বীর মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষাবিদ, সাংবাদিকসহ সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেন। সোমবার সকালে পদ্মায় সারি সারি নৌকায় ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে যেন নদীতে মিছিল নামে। জেলে নৌকা, ডিঙ্গি নৌকা, ইলিশ ধরার নৌকাসহ হরেক রকম  নৌকা থেকে প্রতিবাদী স্লোগান দিতে থাকে। এতেই বালু কাটার সঙ্গে জড়িত নৌযানগুলো পালিয়ে যায়।  

এমপি এমিলি বলেন, পদ্মা সেতুকে ঘিরে প্রায় ১১৭ বর্গকিলোমিটার এলাকাকে বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য ঘোষণা করেছে সরকার। তাই সেতুর আশপাশে বালু উত্তোলনের সুযোগ নেই।  লৌহজং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ডা. আব্দুল আউয়াল বলেন, বালু উত্তোলন বন্ধে গত দেড় বছরে ১শ’ ড্রেজার বিনষ্টসহ প্রায় আড়াই কোটি টাকা জরিমানা করা হয়েছে। কিন্তু বিশাল এই নদীতে আরও দুটি জেলার অংশও রয়েছে। ১৯৯২ সাল থেকে পদ্মার ভাঙনে এই লৌহজংয়ের উপজেলা সদরসহ ৪০ গ্রাম নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। নতুন করে ভাঙন দেখা দেওয়ায় নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে পদ্মা পাড়ের মানুষ।

×