৩ এপ্রিল ২০২০, ২০ চৈত্র ১৪২৬, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

রাজধানীর ডেমরায় এক চিকিৎসক খুন

প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৯:৪৫ পি. এম.
রাজধানীর ডেমরায় এক চিকিৎসক খুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর মাতুয়াইলে ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালের পরিচালকের কক্ষ থেকে মোবারক হোসেন (৩৩) নামে এক চিকিৎসকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার হয়েছে। ঘটনার পর ওই হাসপাতালের পরিচালক জামাল হোসেনসহ কর্মচারীরা গা ঢাকা দিয়েছে। পুলিশ জানায়, ৪ লাখ টাকা পাওনা টাকার জের ধরে তাকে পিটিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।

ডেমরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিদ্দিকুর রহমান জানান, শুক্রবার সকালে খবর পেয়ে পুলিশ মাতুয়াইল ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালের পরিচালক জামাল হোসেনের কক্ষের জানালার গ্রিলের সঙ্গে ডাঃ মোবারকের গলায় দড়ি পেচাঁনো লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে, পূর্ব শশ্রুতার জের ধরে ওই হাসপাতালে লোকজনই তাকে পিটিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে থাকতে পারে। ঘটনার পর হাসপাতালের পরিচালক জামাল হোসেনসহ অনেকে পালিয়েছে। তাদের গ্রেফতার করতে পারলে আসল ঘটনা বেরিয়ে আসবে। রাতে মিটফোড কলেজ মর্গে ডাঃ মোবারকের লাশের ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। নিহতের বাবার নাম মোঃ সোলায়মান। ৪ ভাই ২ বোনের মধ্যে ডাঃ কামাল মেঝ ছিলেন। গ্রামের বাড়ি ভোলা জেলার লালমোহন থানায়। সেখানে তার লাশ দাফন করা হবে বলে নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়। নিহতের শ্যালক মঈনুল ইসলাম জনকণ্ঠকে জানান, ৭ মাস আগে আমার চাচাতো বোন সাবিকুন নাহার রিতুর সঙ্গে ডাক্তার মোবারক হোসেন বিয়ে হয়। তিনি সেগুনবাগিচা বাডেম টু হাসপাতালে এনেসথেসিয়া স্পেশালিস্ট ছিলেন। সেখানে চাকরী পাশাপাশি তিনি মাতুয়াইলে ফ্রেন্ডশিপ মেডিক্যালের এনেসথেসিয়া চিকিৎসক। দক্ষিণ দনিয়ার এ কে উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশে থাকতেন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে ডাঃ মোবারক হোসেনকে মাতুয়াইল ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালের পরিচালক জামাল হোসেন ডেকে নিয়ে যান। নিহতের শ্যালক মাইনুল জানান, রাত ৯টার দিকে তার চাচাতো বোন রিতু মোবাইলে তার স্বামী ডাঃ মোবারকের মোবাইল বার বার কল করে বন্ধ পান। রাত ১২ টার দিকে অন্য একটি নম্বরে ডাঃ মোবারক তার স্ত্রী রিতুকে মোবাইলে জানায়, আমি ভেজালে আছি। দোয়া কর। এরপর থেকে তার আর খোঁজ মেলেনি। সারারাত জেগে ছিলেন বোন রিতু। পরে শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে পুলিশ খবর দিলে মর্গে এসে ডাঃ মোবারকের লাশ খুঁেজ পান। এবার রিতু তেজগাঁও মহিলা কলেজ থেকে অনার্স পাশ করেছেন। নিহতের স্বজনরা জানান, কয়েক বছর আগে রাজধানীর মাতুয়াইলে ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালের পরিচালক জামাল হোসেনকে ৪ লাখ টাকা দেন ডাঃ মোবারক হোসেন। এরপর থেকে তার পাওনা টাকা দিচ্ছিলেন মোবারক হোসেন ও তার পার্টনার মামুন। ডেমরা থানা ডিউটি অফিসার জানান, রাতে নিহতের ভাই বাদী হয়ে জামাল হোসেন, মামুনসহ কয়েকজনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৯:৪৫ পি. এম.

১৪/০২/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

জাতীয়



শীর্ষ সংবাদ: