২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শিশুর ঈদ উৎসব


ঈদ উৎসবে শিশুর জন্য ভাবে সবাই সর্বাত্রে। নিজের শিশুকে কিভাবে সাজাবে, পরাবে, কি খাওয়াবে এবং পরিচিত-পরিজন শিশুকে কী উপহার দেবে, এসব ভাবনা চলে আসে। তাছাড়া শিশুদের বায়না-আবদারও থাকে। তাই শিশুদের কেনাকাটা, সাজসজ্জা ও ফ্যাশন নিয়ে ভাবতে হয়। কারণ নিজের পছন্দ এবং শিশুর পছন্দÑ দুটো মিলিয়ে কখনও কখনও সমস্যায় পড়তে হয়। হয়ত মা-বাবা, অভিভাবক জুতা-জামা পছন্দ করল কিন্তু শিশুর সেটা পছন্দ নয়, সে এটা ধরবে না, এটা পারবে নাÑ এ ধরনের টালবাহানা থাকে প্রায় শিশুর ক্ষেত্রে। তাই এদের ঈদ উপহারে কেনাকাটা খুব চিন্তা-ভাবনা করে করতে হয়। তাও আবার বয়সের কথা ভাবতে হয়। বিভিন্ন ধরনের বাচ্চার জন্য কিছু পোশাক পরিহার্য। যেমন, ১৮ মাসের নিচের বয়সী শিশুদের সিনথেটিক পোশাক স্বাস্থ্যের জন্যে ক্ষতিকর। অতিরিক্ত স্বাস্থ্যবান বাচ্চাদের সুতি ও আরামদায়ক পোশাক অপরিহার্য। শিশুদের পোশাকের রং হওয়া উচিত হালকা ও মিষ্টি রং। তাদের আবদার-চাওয়া গুরুত্ব দিয়ে কেনাকাটা করতে হবে। ঈদের পোশাক নিয়ে শিশুদের জল্পনা-কল্পনা রমজান মাসজুড়ে থাকে। বর্ষার মৌসুমকে গুরুত্ব দিয়ে পোশাক কেনাকাটা করা চাই। যাতে বর্ষার উপযোগী হয়। শিশুরা ঈদের পোশাক কেনার পর তা লুকিয়ে রাখে চানরাত (ঈদের পূর্বের রাত) পর্যন্ত। যুগে যুগে সব শিশুর ভাবনা, পোশাক ঈদের পূর্বে দেখলে তা পুরনো হয়ে যায়, তাই অভিভাবকদের উচিত তাদের কোমল অনুভূতিকে গুরুত্ব দেয়া। তাই তাদের উপস্থিতিতে সেই পোশাক কাউকে দেখানো উচিত নয়। শিশুরা নিজেরটা লুকিয়ে অন্য শিশুর ঘরে নিয়ে ওই শিশুর পোশাক দেখে তাকে ক্ষেপিয়ে তোলে, তাই সে ব্যাপারে অভিভাবকদের খেয়াল রাখতে হবে যাতে অন্য শিশু আপনার শিশুর পোশাক ঈদের পূর্বে দেখতে না পায়। তাহলে বাড়ি হাঙ্গামা-বাধাবেই।

এবার আসা যাক পোশাক নির্বাচনে। মেয়েদের টপ-স্কাট, লেহেঙ্গা, সালোয়ার-কামিজ, ফ্রক, টিশার্ট ইত্যাদি কেনার সময় খেয়াল রাখতে জামার গলা যেন খুব ছোট না হয়। একটু খোলামেলা পোশাক শিশুর জন্য ভাল। শিশুরা কার্টুন আঁকা টপস, টিশার্ট পছন্দ করে থাকে, সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে। শিশুরা আজকাল সিনেমার নায়ক-নায়িকার নামের অনুকরণে ও ব্র্যান্ডের নাম দেখে ড্রেস কিনতে আগ্রহী হয়। মেয়েশিশুরা এবার ঝুঁকছে নতুন ড্রেস কিরণমালা, ফ্রট টাচ, পাতংপো, লং ফ্রট, শট ফ্রট, পাকাস্তানী লং কোর্তা ইত্যাদি মনে রাখতে হবে। শিশু আবদার করলেই হবে না, তাকে বুঝাতে হবে কোনটা তাকে মানাচ্ছে। রং হালকা হলে ২ বছরের উর্ধের শিশুর পোশাক সিনথেটিক ও জমকালো কাপড় হলেই ভাল। কারণ মনে রাখতে হবে এটা উৎসব, তাও আবার সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব। হালকা রং হলে ধুলোবালি চোখে পড়ে। যা পরিষ্কারে সুবিধা।

ছেলে শিশুদের পাজামা-পাঞ্জাবির পাশাপাশি এবার মোদি কোট বলে প্রচলিত কোট, আবার মুজিব কোট, ওয়েস্ট কোটের পাজামা-পাঞ্জাবির দিকে শিশুর আগ্রহ। শেরওয়ানি, ধুতি-পাঞ্জাবি সাদা এবং কালো রঙের চাহিদা বেশি। এছাড়া রয়েছে মাইকেল জ্যাকসন, শহীদ মিনার, স্মৃতিসৌধ, সালমান খান।

টু-ইন টাওয়ারের দোতলায় প্রিন্স ও ললনা, ফ্যাশন বাজার, গাজী ভবনের দোতলায়, সিটি হার্ট, আয়েশা শপিংমলে মেয়েদের পাতংপোÑ ১০০০-৩৫০০টাকা, কিরণমালা ৮০০-৩২০০ টাকার মধ্যে, শরওয়ানি ১০০০-২৫০০ টাকা, ইস্টার্ন প্লাজার আনন্দমেলা ওয়েস্টার্ন ড্রেডা ছেলেমেয়েদের পাবেন পছন্দমতো লং গাউন ১৫০০-৪০০০ টাকার মধ্যে।

দাম-দর সব মার্কেটে প্রায় একই রকম। মার্কেটভেদে দাম-দর পার্থক্য হয়ে থাকে।

ছবি : আজিম এলাহি

মডেল : অহনা ও অপূর্বা