মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

নির্দলীয় নির্বাচন না হলে দেশ আরও সঙ্কটে পড়বে ॥ খালেদা

প্রকাশিত : ৬ জুলাই ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন না হলে দেশ আরও বেশি সঙ্কটের দিকে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। তাই সঙ্কট নিরসন করতে হলে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। রবিবার রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সিটিতে ইঞ্জিনিয়ার্স এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (এ্যাব) আয়োজিত ইফতার পার্টিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, দেশে আজ ভয়াবহ অবস্থা বিরাজ করছে। তাই দেশের মানুষ আজ পরিবর্তন চায়, বর্তমান অবস্থা থেকে পরিত্রাণ চায়। তারা শান্তিতে থাকতে চায় ও দেশের উন্নয়ন চায়। কিন্তু সরকার জনগণকে এগুলো দিতে পারছে না। তাই এর জন্য প্রয়োজন নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অর্থবহ নির্বাচন। সরকারের উচিত দেশ ও জনগণের স্বার্থে অবিলম্বে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দেয়া। দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হলে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতেই হবে। আর এই জন্য আমাদের নির্বাচনের সুযোগ তৈরি করতে হবে। অন্যথায় দেশ আরও ভয়াবহ অবস্থার দিকে চলে যাবে।

খালেদা জিয়া বলেন, ভোট ছাড়া সরকার ক্ষমতায় থাকায় দেশ আর চলছে না, দেশ আজ অচল হয়ে পড়ছে। বিদেশীরাও বলছে ৫ জানুয়ারির নির্বাচন হয়নি। কারণ, সে নির্বাচনে ৫ ভাগ মানুষও ভোট দেয়নি। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে। এতেই প্রমাণ হয় বর্তমান সরকার ওই নির্বাচন কমিশনের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না।

খালেদা জিয়া বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণের নির্বাচিত সরকার নয়। এ জন্য জনগণের প্রতি তাদের কোন দায়বদ্ধতা নেই। তারা আছে লুটপাট আর দুর্নীতি নিয়ে। এভাবে বেশি দিন চলতে দেয়া যায় না। এর থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠতা করতে হবে। নইলে দেশ আরও সঙ্কটের দিকে চলে যাবে।

খালেদা জিয়া বলেন, লুটপাটের রাজনীতি থেকে দেশের মানুষ এখন মুক্তি চায়।

সারাদেশ ভয়ঙ্কর অবস্থা বিরাজ করছে। গ্রামে এখন মানুষের কাজ নেই। সবাই ঢাকামুখী হচ্ছে। যারা ক্ষমতায় আছে তারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়। এ কারণে তাদের এ ব্যাপারে কোন দায়-দায়িত্ব নেই। তারা লুটপাটে ব্যস্ত। দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যাকবলিত মানুষ সাহায্য পাচ্ছে না এমন অভিযোগ করে তিনি বলেন, সরকার বন্যার্তদের পাশে দাঁড়াচ্ছে না।

২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা হচ্ছে অভিযোগ করে খালেদা জিয়া বলেন, তাদের বাড়িঘর ভাঙ্গচুর করে লুটপাট করা হচ্ছে। এর নাম কি রাজনীতি। এটাই কি গণতন্ত্র? ব্রাজিল থেকে পচা গম আমদানি করা হয়েছে এমন অভিযোগ করে তিনি বলেন, যারা পচা গম নিয়ে এসেছে, এদের বিচার হয় না। এই গম কাবিখা, টিআরএ ব্যবহার করা হবে। শহরেও এই গম আসবে। কিন্তু দুর্নীতিবাজ মন্ত্রী আরামে মন্ত্রিত্ব করে যাচ্ছেন। সারাদেশের সড়ক, মহাসড়কগুলো চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে সরকার কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। এ জন্য যাত্রীরা হয়রানির শিকার হচ্ছে। তিনি দৈনিক আমার দেশের সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের মুক্তি দাবি করেন।

ইফতার পার্টিতে আরও উপস্থিত ছিলেন এ্যাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রকৌশলী আনহ আক্তার হোসেন জাতীয় পার্টির (একাংশ) চেয়ারম্যান কাজী জাফর, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব) আসম হান্নান শাহ ও ড. মাহবুব উল্লাহ।

প্রকাশিত : ৬ জুলাই ২০১৫

০৬/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: