ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১

মুরশিদার ১৭৯ রানে রেকর্ডের ছড়াছড়ি

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:৫৭, ২৪ মে ২০২৪

মুরশিদার ১৭৯ রানে রেকর্ডের ছড়াছড়ি

বৃহস্পতিবার বিকেএসপিতে নারী ক্রিকেট লিগে চোখ ধাঁধানো ইনিংস উপহার দেওয়া মুদার (বাঁয়ে) সঙ্গে সোবহানা

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন নারী ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল) বৃহস্পতিবার বিস্ময়কর ঘটনার উদ্ভব ঘটেছে। এদিন বিকেএসপির ৩ নম্বর মাঠে অবিশ^াস্য ব্যাটিং করেছেন নারী জাতীয় দলের টপঅর্ডার মুরশিদা খাতুন হ্যাপি। তিনি এদিন ১৭৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেছেন এবং তাতে সঙ্গ দিয়েছেন খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে যাওয়া সোবহানা মোস্তারি ১২৮ রান করে।

মুরশিদার এই ইনিংসটি দেশের নারী ঘরোয়া ক্রিকেটে ব্যক্তিগত সেরার রেকর্ড। দুজনের এমন ব্যাটিংয়ে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব নারী দল ৫০ ওভারে ৩ উইকেটে ৩৯২ রানের রেকর্ড সংগ্রহ গড়েছে গুলশান ইয়ুথ ক্লাব নারী দলের বিপক্ষে। এটি ঘরোয়া নারী ক্রিকেটে ৫০ ওভারের ফরম্যাটে সবচেয়ে বড় সংগ্রহ। জবাবে গুলশান ইয়ুথ ৪৯.৪ ওভারে ১৪১ রানে গুটিয়ে যায়।

তাই মোহামেডান জয় তুলে নেয় ২৫১ রানের বিশাল ব্যবধানে। বিকেএসপির ৪ নম্বর মাঠে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রূপালী ব্যাংক ক্রীড়া পরিষদ নারী দল ১০ উইকেটে হারিয়েছে সিটি ক্লাব নারী ক্রিকেট দলকে।

বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট আসরে এর আগে সর্বোচ্চ সংগ্রহ ছিল ৩২১ রানের। সেটি কেরানীগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমি নারী দলের বিপক্ষে ২০২২-২৩ মৌসুমে (গত আসর) বিকেএসপি নারী ক্রিকেট দল করেছিল। এবার মোহামেডান রেকর্ডটাকে নিয়ে গেছে অনেক উঁচুতে। মূলত অভিজ্ঞ কাশ্মিরী ওপেনার জেসিয়া আক্তার ধ্বংসযজ্ঞের শুরুটা করেন।

তিনি মুরশিদার সঙ্গে ১৭.৪ ওভারে ১৩৫ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েন। বিধ্বংসী জেসিয়া মাত্র ৪১ বলে ১১ চার, ৪ ছক্কায় ৭৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন। ধীরস্থির মুরশিদা ততোক্ষণে অর্ধশতক পেয়েছেন। এরপর সোবহানার সঙ্গে তিনি দেখেশুনে খেলতে থাকেন। সেঞ্চুরিও পেয়ে যান ১১৫ বলে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে রানখরায় ভোগা সোবহানাও ততোক্ষণে অর্ধশতক হাঁকিয়ে শতকের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন। শতকের পর মুরশিদা চড়াও হয়ে খেলতে থাকেন। ফলে রানের গতি বাড়ে।

সোবহানাও হাফ সেঞ্চুরির পর গতি বাড়িয়েছেন এবং ৯৩ বলেই সেঞ্চুরি পেয়ে যান। দ্বিতীয় উইকেটে দু’জন ১৯৩ বল থেকে ২৫৭ রানের জুটি গড়েন। সোবহানা শেষ ওভারের পঞ্চম বলে সাজঘরে ফেরেন। তিনি ১০১ বলে ৬ চার, ৭ ছক্কায় ১২৮ রান করেন। আর মুরশিদা শেষ পর্যন্ত ১৫৭ বলে ২৩ চার, ২ ছক্কায় ১৭৯ রানে অপরাজিত থাকেন। 
এটি দেশের নারী ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংসের রেকর্ড। তারই কাশ্মিরী সতীর্থ জেসিয়া গত বছর ১৪২ রানের ইনিংস খেলে রেকর্ডের মালিক ছিলেন। মোহামেডান ৩ উইকেটে ৩৯২ রানের বিশাল সংগ্রহ গড়ে থামে। ফারিয়া আক্তার একাই ৩ উইকেট নেন। জবাবে ধুঁকতে থাকা গুলশান ইয়ুথ ৪৯.৪ ওভারে ১৪১ রানেই গুটিয়ে যায়।

সানদিহা ইসলাম আশা সাতে নেমে ৬৫ বলে ৪ চারে সর্বোচ্চ ৩২ ও সুরাইয়া আজমিম ২৯ রান করেন। রুমানা আহমেদ ৩টি এবং ফারিহা তৃষ্ণা, সালমা খাতুন ও সাবেকুন নাহার ২টি করে উইকেট নেন। ২৫১ রানে জিতে যায় মোহামেডান। 
অপর ম্যাচে সিটি ক্লাব আগে ব্যাট করে ৪৪.৪ ওভারে মাত্র ১১৬ রানে গুটিয়ে যায়। গার্গী সুনিল সর্বোচ্চ ২৩ রান করেন ৫৭ বলে। ভারতীয় পেসার মুক্তা রবীন্দ্র মাগরে ৯.৪ ওভারে ৩ মেডেনে ১৬ রানে ৪টি এবং রাবেয়া খান ১০ ওভারে ৫ মেডেনে ১২ রান দিয়ে ২টি উইকেট নেন। মাত্র ১৬.৩ ওভারে বিনা উইকেটে ১২০ রান তুলে ১০ উইকেটের জয় পায় রূপালী ব্যাংক। ইশমা তানজিম ৫৪ বলে ৭ চার, ৩ ছক্কায় ৬৭ ও ফারজানা হক পিঙ্কি ৪৫ বলে ৬ চার, ১ ছয়ে ৫১ রানে অপরাজিত থাকেন।

×