ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

সুযোগ পেলে টেস্টেও স্বাভাবিক ছন্দে খেলতে চান

মুশফিক হাসানের শক্তি সঠিক লাইন-লেংন্থ 

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:৪৩, ৯ জুন ২০২৩

মুশফিক হাসানের শক্তি সঠিক লাইন-লেংন্থ 

অনুশীলনে তরুণ পেসার মুশফিক হাসান

বাংলাদেশের পেস বোলিং বিভাগ সাম্প্রতিক সময়ে আস্থার প্রতীক হয়ে উঠছে। তাসকিন আহমেদ, এবাদত হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, সৈয়দ খালেদ মাহমুদ ও শরীফুল ইসলামরা এখন নিয়মিত খেলছেন ৩ ফরম্যাটে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে। এবার সেই গ্রুপে নতুন অস্ত্র মুশফিক হাসান ২০ বছর বয়সী এ ডানহাতি পেসার বল হাতে স্বভাবে বেশ আক্রমণাত্মক হলেও মৃদুভাষী। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে একেবারে মর্যাদার টেস্ট দলে ডাক পেয়েছেন তিনি এবং বৃহস্পতিবার প্রথম অনুশীলন করেছেন। এরপর সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মুশফিক জানান, তিনি এতদিন যেভাবে খেলেছেন সুযোগ পেলে সেভাবেই জাতীয় দলের হয়ে বোলিং করতে চান।

দেশের বর্তমান পেসারদের দেখে অনুপ্রাণিত হলেও মুশফিকের প্রিয় বোলার দক্ষিণ আফ্রিকার কাগিসো রাবাদা। 
আফগানিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন একমাত্র টেস্টের জন্য ১৫ জনের দল বেশ আগেই ঘোষণা করেছেন জাতীয় নির্বাচকরা। আর দলগত অনুশীলনও শুরু হয়ে গেছে ৩ দিন আগে। এই দলে একেবারেই আনকোরা নতুন মুখ ডানহাতি পেসার মুশফিক হাসান। খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই তিনি জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন। সেটিও আবার মর্যাদার টেস্ট দলে। অথচ এই দলটির পেস আক্রমণে আছেন তাসকিন, এবাদত, খালেদ, শরীফুল। টেস্ট দলে দীর্ঘ সময় ধরে নিয়মিত ছিলেন রেজাউর রহমান রাজা। তবে খেলার সুযোগ পাননি। এবার তাকে বাদ দিয়ে তরুণ মুশফিককে নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে মুশফিক বলেছেন, ‘সর্বপ্রথম শুকরিয়া।

আলহামদুলিল্লাহ আমি ডাক পেয়েছি। আমি মনে করি, আমি প্রথম শ্রেণিতে অনেক ভালো খেলেছি। এজন্য হয়তো ভালো খেলার সুবাদে আমাকে আহ্বান করেছে।’ মুশফিক যুক্ত হয়েছেন বাংলাদেশ দলের এমন বোলিং আক্রমণে, যেখানে এখন দুর্দান্ত এক পেস বিভাগ রয়েছে। তাই খেলার সুযোগ পাওয়া কঠিন। তরুণ এই পেসার অবশ্য জানিয়েছেন বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং বিভাগই তাঁর সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা। তিনি বলেছেন, ‘এখন আমি অনুপ্রেরণা পাই বাংলাদেশের পেস বোলারদের দেখে। তবে আমি অনুসরণ করি (কাগিসো) রাবাদাকে।’
বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো জাতীয় দলের হয়ে অনুশীলন করেছেন মুশফিক। আর এদিনই দেখা পেয়েছেন টেস্ট অধিনায়ক ও বাঁহাতি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের সঙ্গে।

ইনজুরির কারণে আসন্ন টেস্টে খেলবেন না সাকিব। তিনিও এদিন হালকা অনুশীলন শুরু করেছেন। তার সঙ্গে কিছুক্ষণ কথাও বলেছেন মুশফিক। তিনি এ বিষয়ে বলেছেন, ‘সাকিব ভাইয়ের সঙ্গে ওভাবে কথা হয়নি। উনার কাছ থেকে অনেক কিছু শিখতে পেরেছি। অনেক সাহায্য করেছেন। যখন মাঠে খেলছিলাম, তখন বুঝিয়ে দিয়েছেন এটা করো, ওটা করো। জিজ্ঞাসা করেছি, সুন্দরভাবে উত্তর দিয়েছেন।’ সর্বশেষ ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে দুজনই খেলেছেন মোহামেডানের হয়ে। এই টুর্নামেন্টে ওভার প্রতি ৫.২৬ গড়ে রান দিয়ে ৯ ম্যাচে ১০ উইকেট নেন মুশফিক। তখনই সাকিবের সঙ্গে কথা হয়েছে তার।

এবার তাই সাক্ষাতের শুরুতেই মুশফিককে অভিনন্দন জানিয়েছেন সাকিব। বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ, দক্ষিণ আফ্রিকার সাদা বিদ্যুৎ খ্যাত অ্যালান ডোনাল্ড। তার সঙ্গেও আগে কাজ করার সুযোগ হয়েছে মুশফিকের। তিনি বলেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ অনেক ভালো লাগছে। এখানে আজকে (বৃহস্পতিবার) ক্যাম্পে যোগ দিলাম। মানে কোনো কিছু মনে হচ্ছে না। অ্যালান ডোনাল্ডের সঙ্গে আগে কাজ করেছিলাম। আমাকে স্বাগত জানিয়েছেন। বলেছেন ভালো।’ 
বল হাতে বেশ ভালো সময়ই কাটিয়ে এসেছেন। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট, ঘরোয়া লিগ হয়ে জাতীয় দলে আসা এই পেসার অনুসরণ করেন দক্ষিণ আফ্রিকার রাবাদাকে। মুশফিকের বোলিংয়ে আছে আক্রমণাত্মক মনোভাব। তবে নিজের শক্তিমত্তার বিষয়ে তিনি বলেছেন, ‘আমি প্রথমে লাইন-লেংন্থ, অ্যাকুরেসি এগুলো প্রথমে ঠিকঠাক করি। তারপর জোর (গতি)। এখান থেকে মনে হয় ভালো অনুভব করছি।’ সর্বশেষ জাতীয় ক্রিকেট লিগে ৬ ম্যাচের ১০ ইনিংস বল করে ২৫ উইকেট নেন আক্রমণাত্মক মুশফিক। এরপর বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে ৭ ম্যাচে নেন ১৬ উইকেট। মুশফিক মনে করেন, প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে পারফর্ম্যান্সই তাকে নিয়ে এসেছে জাতীয় দলে।

অবশ্য তার আগেই বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে খেলে নিজের পরীক্ষা দিয়েছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ‘এ’ দলের বিপক্ষে এক ইনিংসে ৫ উইকেটও পেয়েছেন। তবে ঘরোয়া আসর থেকে ‘এ’ দলের মতো আন্তর্জাতিক পর্যায়ের পার্থক্য আছে। আরও পার্থক্য থাকবে টেস্ট খেলতে নামলে। এ বিষয়ে মুশফিক বলেছেন, ‘পার্থক্য বলতে আমার প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট, এনসিএল, বিসিএল যেভাবে খেলেছিলাম, সেখানেও ওভাবে খেলেছি। যদি আমি জাতীয় দলে সুযোগ পাই, সেভাবেই খেলব।’ সুযোগ পেলে নিজের স্বাভাবিক ছন্দে খেলার প্রত্যয় জানিয়েছেন। তবে টেস্ট ক্রিকেট অনেক চ্যালেঞ্জিং। মাত্র ২০ বছর বয়সে সেই চ্যালেঞ্জ নেওয়ার বিষয়ে মুশফিক বলেছেন, ‘টেস্ট ক্রিকেট বলতে... টেস্ট ক্রিকেট অনেক উপভোগ করি খেলতে। ইনশাআল্লাহ চেষ্টা করব ভালো কিছু করার।

×