ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

ব্যাটশুয়াই দ্য ব্যাটম্যান অব বেলজিয়াম

রুমেল খান

প্রকাশিত: ০১:৩৫, ২৫ নভেম্বর ২০২২

ব্যাটশুয়াই দ্য ব্যাটম্যান অব বেলজিয়াম

কানাডার বিরুদ্ধে বেলজিয়ামের ঘাম ঝরানো জয়ের নায়ক মিচি ব্যাটশুয়াই-অ্যাটুনগার উল্লাস

তার নামের ‘ব্যাটশুয়াই’ অংশটি নেয়া হয়েছে বিশ্বখ্যাত সুপারহিরো কমিক চরিত্র ‘ব্যাটম্যান’ থেকে। বুধবার কাতার বিশ্বকাপে এফ-গ্রুপে দলের জয় এনে দেয়ার তিনিই হিরো। তার নাম মিচি ব্যাটশুয়াই।
নিয়মিত গোলস্কোরার রমেলু লুকাকু ইনজুরির জন্য মাঠেই নামতে পারেননি। অফ ফর্মের জন্য অধিনায়ক ও কারকা ফরোয়ার্ড ইডেন হ্যাজার্ডকে ম্যাচের ৬২ মিনিটে উঠিয়ে নেয়া হয়। পক্ষান্তরে এর আগে একবার বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলা এবং ৩৬ বছর পর দ্বিতীয়বারের মতো খেলতে এসে দুর্দান্ত খেলছিল ৪১ ফিফা র‌্যাঙ্কিংধারী এবং ‘ম্যাপল লিফ’ খ্যাত কানাডা। খুব একটা সুবিধা করতে পারছিল না এর আগে ১২ বার মূলপর্বে খেলে একবার তৃতীয় (২০১৮) এবং একবার চতুর্থ (১৯৮৬) হওয়া বেলজিয়াম। তবে প্রথমার্ধের বিরতির ঠিক আগের মিনিটে একটি সুযোগ পেয়ে প্রতিপক্ষের জালে বল জড়িয়ে দেন ২৯ বছর বয়সী তরুণ ফরোয়ার্ড মিচি ব্যাটশুয়াই-অ্যাটুনগা। শেষ পর্যন্ত তিনিই হয়ে দলের ত্রাণকর্তা হয়ে যান।

তার গোলেই জিতে কাতার বিশ্বকাপে এফ-গ্রুপে নিজদের প্রথম ম্যাচে স্বস্তির সূচনা করে ‘দ্য রেড ডেভিলস্’ খ্যাত এবং ২ নম্বর ফিফা র‌্যাঙ্কিংধারী বেলজিয়াম। তবে ম্যাচটা কানাডা ড্র-ও করতে পারত। কিন্তু বেলজিয়ান গোলরক্ষক থিবাউট কোর্টোয়িস কানাডার আলফনসো ডেভিসের পেনাল্টি শট আটকে দেন। ফলে গোলবঞ্চিত হয় কানাডা। এছাড়া আরেকটি পেনাল্টির জন্য আবেদন করেছিল কানাডা। কিন্তু জাম্বিয়ান রেফারি জান্নি সিকাযউই সেই আবেদন খারিজ করে দেন।
কষ্টার্জিত জয়েও খুব একটা প্রসন্ন হননি বেলজিয়ামের স্প্যানিশ কোচ রবার্তো মার্তিনেজ, ‘কৌশলগতভাবে জিতলেও আমরা বাজে খেলেছি। ভাগ্যিস আমরা ভালোভাবে রক্ষণভাগ সামলেছি এবং গোলরক্ষকও দুর্দান্ত কিছু সেভ করেছে। নইলে ম্যাচের ফল অন্যরকমও হতে পারত’। বুধবারের ম্যাচসহ এ পর্যন্ত টানা সাত ম্যাচে অপরাজিত আছে বেলজিয়াম।  
পক্ষান্তরে কানাডার ইংলিশ কোচ জন হার্ডম্যান বলেন, ‘আলফনসো ডেভিসের শট নেওয়াটাই যথার্থ ছিল। তার ওপর আমাদের সবার আস্থা ছিল। যদিও সে পেনাল্টি থেকে গোল করতে পারেনি। তবে খেলায় এমনটা হতেই পারে। ৩৬ বছর পর বিশ্বকাপে খেলতে আসাটাই অনেক বড় ব্যাপার। এটাকেই বড় করে দেখতে চাই।’
৪৭ বছর বয়সী ও ২০১৮ থেকে কানাডার হেড কোচ হিসেবে কাজ করা হার্ডম্যান আরও যোগ করেন, ‘আমি নিশ্চিত, কানাডা হারলেও কানাডার অধিবাসীরা তাদের দলের খেলা দেখে খুশি হয়েছে এবং গর্ব অনুভব করেছে। কোচ হিসেবে আমি দলের খেলোয়াড়দের নিয়ে খুব একটা অভিযোগ করতে চাই না। তারা বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে তাদের সামর্থ্য অনুযায়ীই খেলেছে।

আমি তাদের খেলায় সন্তুষ্ট। দলের সবাই ঐক্যবদ্ধ আছে। প্রথম ম্যাচে হারলেও তাদের আত্মবিশ্বাসে কোন চিড় ধরেনি। সবাই জানে পরের দুই ম্যাচে তাদের দায়িত্ব কি, কার কি করতে হবে।’
কানাডার পরের গ্রুপ ম্যাচ ২৭ নভেম্বর ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে। এর আগে মরক্কো গোলশূন্য ড্র করে ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে। ‘আমি মনে করি এই গ্রুপের খেলা এখন সবার জন্য উন্মুক্ত হয়ে গেছে মরক্কো-ক্রোয়েশিয়া ম্যাচের পর।’ হার্ডম্যানের ভাষ্য (উল্লেখ্য, তিনিই ইতিহাসের প্রথম কোচ যিনি একই দেশের; অর্থাৎ কানাডার পুরুষ এবং মহিলা জাতীয় ফুটবল দলের কোচ হিসেবে কাজ করেছেন)।
কানাডা অধিনায়ক অ্যাটিবা হাটচিনসন বলেন, ‘প্রথম ম্যাচে ভালো খেলেও এবং পেনাল্টি পেয়েও আমরা গোল করতে পারিনি এবং ম্যাচে হেরে গেছি। কিন্তু তারপরও আমাদের মনোবল অটুট আছে। পরের ম্যাচে আমরা ঘুরে দাঁড়াতে সর্বাত্মক চেষ্টা করব এবং আশাকরি আমরাই জিতব।’
এবার আসা যাক বেলজিয়ামের জয়সূচক গোলদাতা মিচি ব্যাটশুয়াইয়ের প্রসঙ্গে। ২৭ আন্তর্জাতিক গোল করে তিনি এখন বেলজিয়ামের সর্বাধিক গোলদাতাদের মধ্যে পঞ্চম স্থানে আছেন। আর চারটি গোল করলেই টপকে যাবেন তার পূর্বসূরি মার্ক উইলমোটস (২৮ গোল, ১৯৯০-২০০২), পল ভ্যান হিমস্ট (৩০ গোল, ১৯৬০-১৯৭৪) এবং বানার্ড ভুরহুফকে (৩০ গোল, ১৯২৮-১৯৪০)। সেক্ষেত্রে উঠে আসবেন তৃতীয় স্থানে। তখন তার সামনে থাকবেন বর্তমান দুই সতীর্থ ইডেন হ্যাজার্ড (৩৩ গোল) এবং রুমেলু লুকাকুকে (৬৮ গোল)। ৬ ফুট ১ ইঞ্চি উচ্চতার অধিকারী ব্যাটসশুয়াইয়ের বর্তমান ক্লাব হচ্ছে তুরস্কোর ফেবেরনাচ। ২০১১ সাল থেকে তার সিনিয়র ক্লাব ক্যারিয়ার শুরু। খেলেছেন বেলজিয়ামের রয়্যাল স্ট্যান্ডার্ড দ্য লিয়েগে, ফ্রান্সের মার্সেইলি, ইংল্যান্ডের চেলসি, ক্রিস্টাল প্যালেস, জার্মানির বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, স্পেনের ভ্যালন্সিয়া এবং তুরস্কের বেসিকতাসে। সব মিলিয়ে ৪০১ ম্যাচে করেছেন ১৪৬ গোল। ব্যাটম্যানের নামে নামকরণ যার, সেই ব্যাটশুয়াই পরের ম্যাচগুলোতেও ঝলসে উঠবেন, গোল করবেন এবং দলের জন্য জয় এনে দেবেনÑ এটাই বেলজিয়ান ভক্ত-সমর্থক-অনুরাগীদের নিগূঢ় প্রত্যাশা।


 

সম্পর্কিত বিষয়:

monarchmart
monarchmart