ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১

হার ও কিংয়ের চোট বিপাকে উইন্ডিজরা

রুমেল খান

প্রকাশিত: ০০:৩৯, ২১ জুন ২০২৪

হার ও কিংয়ের চোট বিপাকে উইন্ডিজরা

ব্যথায় কাতরাচ্ছেন উইন্ডিজ ওপেনার ব্র্যান্ডন কিং

একটা প্রবাদ আছে, ‘গোদের উপর বিষফোঁড়া’। বৃহস্পতিবার সকালে (বাংলাদেশ সময়) ওয়েস্ট ইন্ডিজেরও যেন সেই দশাই হলো। আইসিসি টি২০ বিশ্বকাপের ‘সুপার এইট’ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে (গ্রুপ-২, টুর্নামেন্ট ম্যাচ নম্বর ৪২) স্বাগতিক দল ৮ উইকেটের হারের তেতো স্বাদ পেয়েছে ইংল্যান্ডের কাছে। একে তো হার, তার ওপর ক্যারিবীয় দলের জন্য বাড়তি দুঃখ বয়ে এনেছে তাদের অন্যতম সেরা উইলোবাজ ব্র্যান্ডন কিংয়ের চোটে পড়ে চলতি টুর্নামেন্ট থেকেই ছিটকে যাওয়া। এই জোড়া ধাক্কা সামলে আগামীকাল শনিবারই আবার বার্বাডোজে দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামবে উইন্ডিজ দল, প্রতিপক্ষ আরেক যৌথ স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্র। 
টি২০ বিশ্বকাপে যে দুটি দেশ সর্বোচ্চ দুবার করে শিরোপা জিতেছে, সেই উইন্ডিজ (২০১২, ২০১৬) এবং ইংল্যান্ডই (২০১০, ২০২২) বৃহস্পতিবার মুখোমুখি হয় সেন্ট লুসিয়ার গ্রস আইসলেটের ড্যারেন সামি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। ইংল্যান্ড টসে জিতে প্রতিপক্ষকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায়। নির্ধারিত ২০ ওভারে উইন্ডিজ ৪ উইকেটে ১৮০ রান করে। জনসন চার্লস হন টপ স্কোরার (৩৮)। আর্চার, রশিদ, মঈন ও রিয়াম ১টি করে উইকেট পান।
জবাবে ১৮১ রানের টার্গেট ছুঁতে ইংল্যান্ড দাপুটে ব্যাটিং করে সেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ১৭.৩ ওভারে। আর উইকেট হারায় মাত্র ২টি। ১৫ বল বাকি থাকতেই অনায়াস জয় কুড়িয়ে নেয় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ইংলিশ ওপেনার ফিল সল্ট হন ম্যাচসেরা (৮৭*)। রাসেল ও রোস্টনের ১ উইকেট করে প্রাপ্তি দলের কোনো কাজে আসেনি। চলতি আসরে গ্রুপ পর্বে যে তিনটি দল গ্রুপের চারটি ম্যাচেই জিতেছিল, তাদের একটি হলো উইন্ডিজ (বাকি দুটি দল হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা)। তা ছাড়া আসর শুরুর আগে আরও ৪টি টি২০ ম্যাচে জিতেছিল তারা। নবম ম্যাচে গিয়ে প্রথম হারল দলটি। 
ম্যাচের উল্লেখযোগ্য ঘটনা হলো ক্যারিবীয় ওপেনার ব্র্যান্ডন কিংয়ের আহত হয়ে অবসর নেওয়া। পাঁজরের এক পাশে ব্যথা পান ২৯ বছর বয়সী ডান হাঁতি এই ব্যাটার। মাঠ ছাড়ার আগে ১৩ বলে ৩ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ২৩ রানে নট আউট ছিলেন তিনি। ছক্কাটিও মারেন বিশাল দূরত্বে (১০১ মিটার)। পরে আর মাঠেই নামতে পারেনি কিং। বাকি ম্যাচগুলোতে তার খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে। সাধারণত এই ইনজুরি সারতে কয়েক সপ্তাহ লাগে অথচ বিশ্বকাপ শেষ হয়ে যাবে আগামী ১০ দিনের মধ্যে। ফলে ধরে নেওয়া হচ্ছে কিংয়ের বিশ্বকাপ শেষ! 
তবে ম্যাচ শেষে উইন্ডিজ অধিনায়ক রভম্যান পাওয়েল জানান, ‘হ্যাঁ কিছুটা উদ্বেগের, তবে আশাকরি পরবর্তী ম্যাচের আগে কিং সেরে উঠবে। আমরা সবাই জানি সে আমাদের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়।’ যদিও চলতি আসরে তেমন ভালো ব্যাটিং করেননি কিং। বৃহস্পতিবারের ম্যাচ বাদ দিলে বাকি ম্যাচগুলোতে তার স্কোর : ৩৪, ১৩, ৯ ও ৭। কিংয়ের রিপ্লেসমেন্ট হিসেবে দলে স্ট্যান্ডবাই তালিকায় থাকা একজন মূল স্কোয়াডে সুযোগ পাবেন। এরা হলেন : আন্দ্রে ফ্লেচার, কাইল মায়ার্স, ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, হেইডেন ওয়ালশ জুনিয়র ও ম্যাথু ফর্ড।

×