ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯

জঙ্গী দমনে একসঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুর

প্রকাশিত: ০৫:৫৭, ২৬ অক্টোবর ২০১৬

জঙ্গী দমনে একসঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুর

কূটনৈতিক রিপোর্টার ॥ সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে একযোগে কাজ করবে বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুর। সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী। দুই দেশ ব্যবসা ও বাণিজ্য বাড়াতে একমত হয়েছে। এছাড়া সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশীদের ভিসা সহজীকরণের জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ঢাকায় সফররত সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষাবিষয়ক সিনিয়র প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ মালিকী বিন ওসমানের সঙ্গে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ও পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হকের পৃথক বৈঠকে এসব আলোচনা হয়। সূত্র জানায়, সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষাবিষয়ক সিনিয়র প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ মালিকী বিন ওসমানের সঙ্গে প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এবং পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হকের সঙ্গে বৈঠকে জঙ্গী ও সন্ত্রাসবাদের বিষয়ে আলোচনা হয়। এ সময় সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে অবহিত করা হয়, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের জিরো টলারেন্স নীতি রয়েছে। বাংলাদেশের এ নীতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী। বৈঠকে সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে অবহিত করা হয়, জঙ্গী তৎপরতার অভিযোগে সিঙ্গাপুর থেকে ফেরত বাংলাদেশীদের বিরুদ্ধে তদন্তের মাধ্যমে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। জঙ্গী তৎপরতার অভিযোগে সিঙ্গাপুর থেকে যেসব বাংলাদেশী নাগরিককে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নিয়েছে সরকার। বাংলাদেশের মানুষ শান্তিপ্রিয়। তবে মুষ্টিমেয় কয়েকজন মানুষের কারণে সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশী কমিউনিটির ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হতে দেয়া হবে না বলে জানানো হয়েছে সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে। তোফায়েল জ্বর নিয়ে স্কয়ারে ভর্তি স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি আছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। অসুস্থ হলে তাকে সোমবার রাতে ভর্তি করানো হয় । মৌসুমী জ্বরে ভুগছেন তিনি। তবে অবস্থা গুরুতর নয় বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) সাইফুল হাসান। মঙ্গলবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা (পিআরও) লতিফ বকসী জানান, বেশ কিছুদিন ধরেই বাণিজ্যমন্ত্রী শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন। গত শুক্রবার আওয়লীগের কাউন্সিলে গিয়ে আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। কিন্তু দলের কাউন্সিল থাকায় সে সময় হাসপাতালে চিকিৎসা নেননি। এরপর সোমবার রাতে তাকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। ঋতু পরিবর্তনজনিত কারণে অসুস্থতায় ভুগছেন মন্ত্রী।