ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতি

চাকরি বাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০১:২৬, ২৬ জানুয়ারি ২০২৪

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতি

প্রাইমারি শিক্ষকতা অনেক সম্মানের পেশা

প্রাইমারি শিক্ষকতা অনেক সম্মানের পেশা। তাছাড়া আর্থিক সুযোগ-সুবিধার পাশাপাশি সামাজিক মর্যাদাও অনেক বেশি। তাই আমাদের দেশের তরুণ ছেলে-মেয়েদের অধিকাংশই প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিয়ে থাকে। নিয়োগ পরীক্ষার সার্কুলার হওয়ার পর থেকে পরীক্ষা পর্যন্ত খুবই কম সময় থাকে। এই স্বল্প সময়ে পরীক্ষার জন্য পূর্ণ প্রস্তুতি নেয়া সকলের পক্ষে সম্ভব হয় না। তাই কম সময়ে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতি আপনি যেভাবে নেবেন তা এখানে তুলে ধরা হলো। 
কিভাবে নিবেন প্রস্তুতি?
সুদীর্ঘ সময় একাডেমিক পড়াশোনা করে ক্যারিয়ার গড়ার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করার মানসিকতা অনেকেরই থাকে না। কারও কারও ফ্যামিলির চাপ এবং সমস্যার কারণে পড়াশোনা বাদ দিয়ে রোজগারে নেমে যেতে হয়। পড়াশোনা বহু করেছ আর নয়, এবার জীবন যুদ্ধে নেমে পড়। সেই চক্করে পড়ে নিজেকে প্রস্তুত করার জন্য প্রয়োজনীয় সময় থাকে না। তাই যেটুকু সময় পাওয়া যাবে সেই সময়টুকু যথাযথভাবে কাজে লাগিয়ে যান।
নিয়মিত মডেল টেস্ট
পরীক্ষার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করার প্রধান উপায় হলো- মডেল টেস্ট দেয়া। প্রতিদিন একটা করে মডেল টেস্ট দেয়ার মাধ্যমে নিজের প্রস্তুতি কতটুকু হলো তা যাচাই করা যায়। যেখানে দুর্বলতা দেখা দেবে সেটা চিহ্নিত করে তা কাটানোর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে। দুর্বলতা কাটিয়ে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার জন্য নিজেকে তৈরি করাই বুদ্ধিমানের কাজ। অনলাইনে বিভিন্ন ধরনের অঢ়ঢ়ং অথবা বাজারে প্রচলিত বই এর সাহায্যে মডেল টেস্ট দিতে পারেন।  
বিগত বছরের প্রশ্নের সমাধান
নিয়োগ পরীক্ষার বিগত বছরের প্রশ্ন থেকে অনেক সময় হুবহু প্রশ্ন তুলে দেয়া হয়। তাই প্রশ্ন ব্যাংক আয়ত্ত্ব করতে পারলে ১৫ থেকে ২০ মার্কের প্রশ্ন কমন পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। 
ডিজিটাল মিডিয়া থেকে দূরে থাকুন
ডিজিটাল মিডিয়া আমাদের একদম গিলে খেয়েছে। দিনে কমপক্ষে একবার ফেসবুক দেখতেই হয়। ডিজিটাল মিডিয়ায় অতিরিক্ত ডুবে থাকা মাদকাসক্তির মতো নেশায় পরিণত হয়ে গেছে। তাই পড়তে বসলে মন উসখুস করে মোবাইলে ফেসবুক দেখার জন্য। পড়াশোনায় মনোযোগ থাকে না। তাই পড়ার টেবিলে বসে ফেসবুক, ম্যাসেঞ্জার বা ইন্টারনেট ব্যবহার করা থেকে পুরোপুরি বিরত থাকতে হবে। 
গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো বারবার পড়ুন
এক্ষেত্রে পরীক্ষার জন্য সব বিষয়গুলো গুরুত্বপূর্ণ নয়। কিছু বিষয় বেশি গুরুত্বপূর্ণ সেগুলো আলাদা করে বারবার পড়তে হবে। যেন পরীক্ষায় সহজ প্রশ্নগুলো ভুল না হয়। তাই যতই পড়িবে ততই শিখিবে- এই মন্ত্র ধরে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো চিহ্নিত করে বারবার পড়তে হবে। আপনাকে মনে রাখতে হবে পরীক্ষায় খাতায় ভুল করার কোনো সুযোগ নেই।
বিগত বিসিএসের প্রশ্নের সমাধান
বিসিএসের প্রশ্নগুলো থেকে বিভিন্ন পরীক্ষায় প্রশ্ন আসে। এমনকি হুবহু তুলে দেয়া হয়ে থাকে। তাই বিগত ১০ম থেকে ৪৪তম বিসিএসের প্রশ্নগুলো ভালোভাবে আয়ত্ত্ব করতে পারলে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি প্রায় অর্ধেক সম্পন্ন হয়ে যাবে। প্রতিদিন ৩ থেকে ৪টা বিসিএসের প্রশ্নের সমাধান দেখে প্রস্তুতির কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেন। 
কি কি বিষয় পড়ব
প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় মোট নম্বর ১০০। যার মধ্যে লিখিত পরীক্ষায় এমসিকিউ পদ্ধতি ৮০ নম্বর এবং মৌখিক পরীক্ষায় ২০ নম্বর থাকে। এমসিকিউ পদ্ধতিতে বাংলা, গণিত, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞানের প্রতিটি বিষয় থেকে ২০টি করে মোট ৮০টি নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্ন থাকবে। প্রতিটি প্রশ্নের সঠিক উত্তরের জন্য মান ১ এবং প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে। 
এই নিয়োগ পরীক্ষার জন্য বাংলা, গণিত, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান এই চারটি বিষয়ে ভালোভাবে পড়াশোনা করতে হবে। উল্লেখিত চারটি বিষয়ে এমসিকিউ-এর জন্য প্রস্তুতি  নিচে দেয়া হলো।
বাংলা
বাংলা সাহিত্য এবং ব্যাকরণ থেকে ২০টি এমসিকিউ প্রশ্ন থাকে। এক্ষেত্রে ব্যাকরণের ওপর বেশি জোর দিতে হবে। অষ্টম ও নবম শ্রেণির বোর্ড প্রণীত ব্যাকরণ বই থেকে সবগুলো অধ্যায় উদাহরণসহ ভালোভাবে পড়তে হবে। বাংলার বিখ্যাত কবি-সাহিত্যিকদের সাহিত্যকর্ম ও জীবনী সম্পর্কে বিষদ জ্ঞান থাকতে হবে। বাংলা বিষয়ের টপিকগুলো হলো-
ব্যাকরণ থেকে ভাষা, বর্ণ, শব্দ, সন্ধি বিচ্ছেদ, কারক, বিভক্তি, উপসর্গ, অনুসর্গ, ধাতু, সমাস, বানান শুদ্ধি, পারিভাষিক/সমার্থক/বিপরীত শব্দ, বাগধারা, এক কথায় প্রকাশ, বাক্য পরিবর্তন।
সাহিত্য অংশে গল্প বা উপন্যাসের রচয়িতা, বিখ্যাত কবি-সাহিত্যিকদের জন্ম-মৃত্যু, কবিতার চরণ উল্লেখ করে কবির নাম জানা। রবীন্দ্রনাথ, নজরুল, জহির রায়হান, মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়, বঙ্কিমচন্দ্র, শরৎচন্দ্র ও জসীম উদ্দীন সম্পর্কে অবশ্যই পড়তে হবে।
ইংরেজি
ইংরেজি সাহিত্য এবং গ্রামার থেকে ২০টি প্রশ্ন থাকবে। বিখ্যাত গ্রন্থের রচয়িতা, কবির নাম থেকে প্রশ্ন থাকে। তবে গ্রামার থেকে বেশি প্রশ্ন আসে। তাই গ্রামারের উপর জোর দিতে হবে। গ্রামার অংশে নিচের টপিকগুলো ভালো করে পড়তে হবে।
Tense, Preposition, Parts of Speech, Voice, Narration, Spelling, Sentence Correction, Right form of verb, Article, Phrase and Idoims, Synoûm Ges Antoûm, বাংলা অনুবাদ।
গ্রামার বইয়ের উদাহরণ থেকে নিয়মিত চর্চা করতে হবে। 
গণিত
গণিতে ভালো করতে পারলে চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। শর্টকাট টেকনিক শেখার জন্য হলেও আলাদা প্রস্তুতি নেবেন। গণিতের ক্ষেত্রে নিচের টপিকগুলো ভালোভাবে আয়ত্ত করতে পারলে পরীক্ষা ভালো হবে আশা করা যায়।
পাটিগণিতের পরিমাপ ও একক, ঐকিক নিয়ম, অনুপাত, শতকরা, সুদকষা, লসাগু, গসাগু, লাভক্ষতি, ভগ্নাংশ, গড়। বীজগণিতের সাধারণ সূত্রাবলি, মাননির্ণয়, উৎপাদক, বাস্তব সংখ্যা। জ্যামিতি অংশে ত্রিভুজ, চতুর্ভুজ, বর্গক্ষেত্র, রম্বস, বৃত্ত ইত্যাদি ভালোভাবে জানতে হবে।
অষ্টম ও নবম শ্রেণির গণিত বই অনুসরণ করলে ভালো হবে। তা ছাড়া বাজার থেকে ভালো একটা গাইড বই কিনে ফলো করতে পারেন।
সাধারণ জ্ঞান
সাধারণ জ্ঞানের জন্য একটু বেশি পড়াশোনা করতে হয়। বাংলাদেশ বিষয়াবলি, আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি, কম্পিউটার এবং সাধারণ বিজ্ঞান মিলিয়ে ২০টি প্রশ্ন আসে। তবে এ অংশে বাংলাদেশ থেকে প্রায় ১২-১৪টি প্রশ্ন করা হয়। নিচে সাধারণ জ্ঞান এর টপিকগুলো দেয়া হলো।
বাংলাদেশের শিক্ষা, ইতিহাস, বাংলার প্রাচীনযুগ ও মধ্যযুগ, ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধ, ভূ-প্রকৃতি ও জলবায়ু, বিখ্যাত স্থান ও ঐতিহ্য, জাতিগোষ্ঠী, বাংলাদেশের রাষ্ট্রব্যবস্থা, অর্থনীতি, বিভিন্ন সম্পদ, জাতীয় দিবস, মুজিবনগর সরকার, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, মুঘল ও ইংরেজ আমল ভালো করে পড়তে হবে।
আন্তর্জাতিক অংশে বিভিন্ন সংস্থা, দেশ, মুদ্রা, রাজধানী, দিবস, নোবেল পুরস্কার, খেলা ও সম্মাননা, আন্তর্জাতিক সংগঠন, ভৌগোলিক অবস্থা থেকেও প্রশ্ন করা হয়। সাধারণ বিজ্ঞান থেকে বিভিন্ন রোগব্যাধি, খাদ্যগুণ, পুষ্টি, ভিটামিন থেকে প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। প্রতিদিন পত্রিকা পড়ার অভ্যাস করলে সাধারণ জ্ঞানের প্রশ্নের উত্তর আপনি খুব সহজে আয়ত্ত্ব করতে পারবেন। বর্তমান যুগ হলো তথ্যপ্রযুক্তির যুগ। তাই সাধারণ জ্ঞান অংশে তথ্যপ্রযুক্তি থেকেও প্রশ্ন করা হয়ে থাকে।  প্রাইমারির পরীক্ষা অনেক বেশি প্রতিযোগিতামূলক। একটু ভালোভাবে পড়লেই আপনার চান্স পাওয়া নিশ্চিত।  আজকে থেকেই লেগে পড়ুন প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য, যেন কেউ আপনাকে প্রতিযোগিতায় হারাতে না পারে।
চাকরি বাজার ডেস্ক

×