ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

রাশিয়ার হুঁশিয়ারি

প্রয়োজনে আগেই পরমাণু হামলা

প্রকাশিত: ২০:৫০, ২৩ জুন ২০২৪

প্রয়োজনে আগেই পরমাণু হামলা

আন্দ্রেই কার্তাপোলভ

রাশিয়ার বিরুদ্ধে হুমকি বাড়লে মস্কো পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের সময় পরিবর্তন করতে পারে। রবিবার রাশিয়ার নিম্নকক্ষের প্রতিরক্ষা কমিটির প্রধান আন্দ্রেই কার্তাপোলভকে উদ্ধৃত করে এই তথ্য জানিয়েছে রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আরআইএ। সাম্প্রতিক সময়ে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট øাদিমির পুতিন সতর্ক করে বলেছেন, মস্কোর বিরুদ্ধে হুমকি চলতে থাকলে পরমাণু অস্ত্র নিয়ে চিন্তাভাবনা পরিবর্তন করতে বাধ্য হবে রাশিয়া। এমন কোনো পরিস্থিতি যদি তৈরি হয় যেখানে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার প্রয়োজন, সেখানে এই অস্ত্র ব্যবহার করবে তার দেশ। পুতিনের এই হুঁশিয়ারির পর কার্তাপোলভ এমন মন্তব্য করলেন। খবর আরটির।

কার্তাপোলভ আরও বলেন, ‘যদি আমরা দেখি রাশিয়ার বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ এবং হুমকি বাড়ছে, তার মানে হলো পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের সময় এবং এর ব্যবহার নিশ্চিত করা নিয়ে আমাদের নতুন করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।তবে এখনই বিষয়ে সুনির্দিষ্ট করে কিছু বলা ঠিক হবে না বলেও মত দেন তিনি। রাশিয়ার পরমাণু মতবাদে বলা হয়েছে, যখন কোনো দেশ রাশিয়ার ওপর ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালানোর উদ্দেশ্যে পরমাণু বা অন্য কোনো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালাবে এবং রাশিয়ার অস্তিত্ব হুমকির মুখে পড়বে তখন প্রেসিডেন্ট পুতিন পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার করার কথা বিবেচনা করতে পারবেন। পুতিন আরও বলেছেন, রাশিয়া প্রয়োজনে পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা করার কথাও ভাবতে পারে। যদিও বর্তমানে এমন কোনো কিছু করার প্রয়োজন নেই বলেও মনে করেন তিনি। এর আগে রাশিয়া মার্কিন কূটনীতিকরা দাবি করেছিলেন, ২০২২ সালে শুরু হওয়া ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ এখনো সবচেয়ে বিপজ্জনক পর্যায়ে রয়েছে। এরপরই পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার করা নিয়ে দেশ দুটোর মধ্যে উত্তেজনা শুরু হয়।

এদিকে ইউক্রেনের একটি আবাসিক ভবনে হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। এতে দুজন নিহত হয়েছে এবং আহত হয়েছে আরও অর্ধশত মানুষ। দেশটির দ্বিতীয় বৃহত্তম খারকিভ শহরে ওই হামলা চালানো হয়। রবিবার উদ্ধারকর্মীরা তথ্য নিশ্চিত করেছেন। গত মাসে নতুন করে অভিযান শুরু পর উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় খারকিভ অঞ্চলে আক্রমণ আরও জোরদার করেছে রাশিয়া। স্থানীয় সময় শনিবার খারকিভ শহরের একটি পাঁচতলা আবাসিক ভবনে রাশিয়ার হামলায় বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন।

জরুরি বিভাগের কর্মীরা ঘোষণা দিয়েছেন যে স্থানীয় সময় রবিবার সকালেই উদ্ধার কাজ শেষ হয়েছে। এক টেলিগ্রাম পোস্টে জানানো হয়েছে যে, রাশিয়ার বোমা হামলায় দুজন নিহত হয়েছে। ছাড়া আরও ৫৩ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে তিন শিশুও রয়েছে। এর আগে ইউক্রেনের পশ্চিম দক্ষিণাঞ্চলে জ্বালানি অবকাঠামোতে বড় ধরনের হামলা চালিয়েছে রাশিয়া।

×