ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

লোকসভা নির্বাচন

৪শ’ আসনে জয়ের প্রত্যাশা মোদির, কটাক্ষ মমতার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:১৬, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

৪শ’ আসনে জয়ের প্রত্যাশা মোদির, কটাক্ষ মমতার

নরেন্দ্র মোদি ও মমতা ব্যানার্জী

ভারতের ১৮তম লোকসভা নির্বাচনে ৪০০ আসনে জয় পাবে বিজেপি। শেষ মুহূর্তের নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে এমনটাই দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তবে দুইশ’র বেশি আসন বিজেপির কপালে জুটবে না বলে পাল্টা জবাব দিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জী। খবর এনডিটিভির।
১৯ এপ্রিল ভারতের ২১ রাজ্যে প্রথম দফায় ১০২ আসনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সেদিনই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন দুই হাজার প্রার্থী। চলতি বছর দেশটিতে ২ হাজার ৬৬০টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল নির্বাচনী যুদ্ধে লড়াই করবে। আর ভোট দেবেন প্রায় ৯৭ কোটি ভোটার। শেষ মুহূর্তের প্রচারে একে অপরের বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণে ব্যস্ত সময় পার করছেন হেভিওয়েট প্রার্থীরা। বালুরঘাটে দলীয় নির্বাচনী সভা করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 
তিনি বলেন, আগামী ৪ জুন নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর দেখা যাবে, ৪০০ আসনেই জয় পাবে বিজেপি। এ ছাড়া নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পাশাপাশি মমতার কঠোর সমালোচনা করেন এ বিজেপি নেতা। তবে বাকযুদ্ধে পিছিয়ে নেই তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতাও। মোদির এমন বক্তব্যে ভবিষ্যবাণী করে তিনি বলেন, দুইশ’ আসনও পাবে না বিজেপি। আর সিএএ তো কোনোভাবেই বাস্তবায়ন করতে দেওয়া হবে না।

বামদের সঙ্গে যৌথ প্রচারে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী
কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ‘কাদা ছোড়াছুড়ির রাজনীতি’র পথ এড়িয়ে বামদের সঙ্গে যৌথ রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছেন। ভারতের আগরতলার মহারাজা বীর বিক্রম মাণিক্য বিমানবন্দরে পৌঁছনোর পর শহরের দুর্গা চৌমহনি এলাকা থেকে রোড-শো শুরু করেন প্রিয়াঙ্কা। খবর এনডিটিভির।
প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা ত্রিপুরা পশ্চিম লোকসভা আসনের কংগ্রেস প্রার্থী আশিস সাহা, কংগ্রেসের পরিষদীয় দলনেতা সুদীপ রায়বর্মণের পাশাপাশি তার সঙ্গে ছিলেন সিপিএম নেতা তথা প্রাক্তন সংসদ সদস্য শঙ্করপ্রসাদ দত্ত। রোড-শোতে বিপুল জনসমাগম হয়েছিল। সেখানে তিনি দিয়েছেন পাঁচ প্রতিশ্রুতি। যার ওপর ভিত্তি করেই এবার লোকসভা ভোটের ইশেতহার প্রকাশ করেছে কংগ্রেস।

পরে এক্স হ্যান্ডলে প্রিয়াঙ্কা লেখেন, ‘আজ আমি ত্রিপুরা পশ্চিমে মা ত্রিপুরেশ্বরীর ভূমিতে রোড-শো করেছি এবং এখানকার ভাইবোনদের সঙ্গে দেখা করেছি।  কংগ্রেস ৩০ লাখ চাকরি, কৃষকের ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য (এমএসপি), নারীদের জন্য বার্ষিক এক লাখ টাকা অনুদান, ভূমিহীনদের জমি এবং দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত বিনামূল্যে শিক্ষার প্রতিশ্রুতি পালন করবে।’ 

আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে মোদির বিরুদ্ধে মামলা
নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে দিল্লি হাইকোর্টে মামলা করেছেন আনন্দ এস জোন্দালে নামে এক আইনজীবী। আবেদনে ওই আইনজীবী বলেছেন, ধর্মের নামে বিজেপির হয়ে ভোট চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাই জনপ্রতিনিধিত্ব আইন লঙ্ঘন করার অপরাধে প্রধানমন্ত্রীকে ছয় বছরের জন্য নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ক্ষেত্রে অযোগ্য ঘোষণা করা হোক। এই মর্মে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) নির্দেশ দেওয়ার আরজি জানানো হয়েছে। খবর এনডিটিভির।
ওই আইনজীবী জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তিনি নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন জানিয়েছিলেন। কিন্তু ইসি ব্যবস্থা না নেওয়ায় আদালতের শরণাপন্ন হয়েছেন। ধর্ম ও উপাসনালয়ের নামে ভোট না চাইতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আদালতের নির্দেশনাও চেয়েছেন ওই আইনজীবী। আবেদনে বলা হয়েছে, গত ৯ এপ্রিল উত্তরপ্রদেশের পিলিভিটে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এক নির্বাচনী জনসভায় ধর্মীয় আধারে বিজেপিকে ভোট দেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছেন। সমাবেশে মোদি বলেন, তিনি রামমন্দির তৈরি করে দিয়েছেন।

×