ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

বিশ্ববাজারে আরও কমলো স্বর্ণের দাম

প্রকাশিত: ১৯:০২, ৯ ডিসেম্বর ২০২৩; আপডেট: ১৯:০৫, ৯ ডিসেম্বর ২০২৩

বিশ্ববাজারে আরও কমলো স্বর্ণের দাম

স্বর্ণ

আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দাম আরও কমেছে। শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) কার্যদিবস শেষে প্রতি আউন্সের দর ২০০০ ডলারের নিচে নেমে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের মুদ্রা ডলার শক্তিশালী হয়েছে। সেই সঙ্গে মার্কিন ট্রেজারি ইল্ড ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে। ফলে নিরাপদ আশ্রয় ধাতুটির মূল্য আরও হ্রাস পেয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। এতে বলা হয়, গত নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। ফলে আগামী মার্চে ইউএস ফেডারেল রিজার্ভের (ফেড) সুদের হার কমানোর সম্ভাবনা প্রায় ফিকে হয়ে গেছে। এই প্রেক্ষাপটে ডলারের তেজ বেড়েছে। সঙ্গত কারণে বুলিয়ন বাজার চাপে পড়েছে। 

আলোচ্য কার্যদিবসে স্পট মার্কেটে বৈশ্বিক বেঞ্চমার্ক স্বর্ণের দর কমেছে ১ দশমিক ৪ শতাংশ। প্রতি আউন্সের দাম স্থির হয়েছে ২০০০ ডলার ৪৯ সেন্টে। একপর্যায়ে যা ১৯৯৪ ডলার ৪৯ সেন্টে নেমে গিয়েছিল। দিনের শুরুতে তা ছিল ২০৩১ ডলার ৩১ সেন্ট। সবমিলিয়ে চলতি সপ্তাহে স্বর্ণের মূল্য হ্রাস পেয়েছে ৩ দশমিক ৪ শতাংশ। বিগত ১০ সপ্তাহের মধ্যে যা সবচেয়ে কম। 

একই কর্মদিবসে ফিউচার মার্কেটে যুক্তরাষ্ট্রের বেঞ্চমার্ক স্বর্ণের সরবরাহ মূল্য নিম্নমুখী হয়েছে ১ দশমিক ৬ শতাংশ। আউন্সপ্রতি দাম নিষ্পত্তি হয়েছে ২০১৪ ডলার ৫০ সেন্টে। দিনের সূচনাতে যা ছিল ২০৪৮ ডলারে।

গত রবিবার আউন্সে স্বর্ণের দাম উঠেছিল ২১৩৫ ডলার ৪০ সেন্টে। বিশ্ব ইতিহাসে যা ছিল সর্বকালের সর্বোচ্চ। ফেডের সুদহার কমানোর আভাসে এই ঊর্ধ্বমুখিতা তৈরি হয়েছিল। তবে কোন সময়ের মধ্যে কমাবে তা নিশ্চিত নয়। ফলে সেদিন থেকে এখন পর্যন্ত মূল্যবান ধাতুটির দাম কমেছে প্রায় ১৫০ ডলার।  

বিদায়ী নভেম্বর মার্কিন মুলুকে বেকারত্বের হার নিম্নগামী হয়েছে ৩ দশমিক ৭ শতাংশ। এতে স্পষ্ট, শ্রমবাজার শক্তিশালী রয়েছে। ফলে নতুন বছর ২০২৪ সালের মে মাসের আগে সুদের হার কমাবে না ফেড। এ নিয়ে প্রায় নিশ্চিত ব্যবসায়ীরা। নিউ ইয়র্ক-ভিত্তিক স্বাধীন ধাতু ব্যবসায়ী তাই ওয়াং বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে শ্রমবাজার শক্তিশালী রয়েছে। ফলে স্বর্ণের দরপতন ঘটেছে।

 

এস

সম্পর্কিত বিষয়:

×