ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

দেশবাসীর উদ্দেশে মালদ্বীপের নয়া প্রেসিডেন্ট

এখন ভেদাভেদ ভুলে সামনে এগোনোর সময়

প্রকাশিত: ২২:৫০, ১ অক্টোবর ২০২৩

এখন ভেদাভেদ ভুলে সামনে  এগোনোর সময়

নির্বাচনে জয়ের পর শনিবার রাতে মালেতে সমর্থকরা মোহাম্মদ মুইজ্জুকে জড়িয়ে ধরে

মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দ্বিতীয় দফার ভোটে জয়ী হয়েছেন চীনপন্থি নেতা মোহাম্মদ মুইজ্জু। এই বিজয়ে তাকে অভিনন্দন জানান বর্তমান প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মোহাম্মদ সোলিহসহ বিশ্বনেতারা। নির্বাচনের জয়ের পর সমর্থকদের উদ্দেশে দেওয়া এক পোস্টে তিনি বলেন, মালদ্বীপের ভবিষ্যৎ গঠনের জন্য এই নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এখন আমাদের ভেদাভেদ ভুলে সামনে এগোনোর সময়। আমরা শান্তিপূর্ণ সমাজ চাই। আজকের নির্বাচনে জনগণের প্রকৃত দেশপ্রেম প্রতিফলিত হয়েছে। খবর বিবিসি আলজাজিরা অনলাইনের।   

শনিবার ভোট গণনা শেষে মুইজ্জু পেয়েছেন ৫৪ শতাংশ ভোট। অন্যদিকে ভারতপন্থি বর্তমান প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ সলিহ পেয়েছেন ৪৬ শতাংশ ভোট।

নির্বাচন কর্মকর্তারা জানান, নির্বাচনে ৮৫ শতাংশের বেশি ভোট পড়েছে। সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। ভোট শুরুর আগেই ভোটকেন্দ্রের সামনে ভোটারের লম্বা লাইন দেখা যায়। নির্বাচন কমিশনের এক মুখপাত্র বলেন, দ্বিতীয় দফার এই ভোটে লাখ ৮২ হাজার ভোটারের অংশ নেওয়ার কথা। দেশটিতে জনসংখ্যা লাখ। এদিকে একটি ভোটকেন্দ্রে ব্যালট ছিনতাইয়ের চেষ্টা করা হয়। এতে কেন্দ্রের ব্যালট বাক্স ভেঙে গেছে বলে ছবি প্রকাশ করেছে দেশটির গণমাধ্যম। ছবিতে দেখা যায়, কক্ষের মেঝেতে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে ব্যালট।

ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়। গত সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত প্রথম দফার নির্বাচনে কোনো প্রার্থী একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্থাৎ ৫০ শতাংশের বেশি ভোট না পাওয়ায় নির্বাচন দ্বিতীয় দফায় গড়ায়। মালদ্বীপের নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুইজ্জু রাজধানী মালের বর্তমান মেয়র। তার জন্ম ১৯৭৮ সালের ১৫ জুন। তিনি যুক্তরাজ্যের লিডস বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেন। তিন সন্তানের বাবা মুইজ্জু ২০১২ সালে রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। পুলিশ সামরিক বিদ্রোহের পর মালদ্বীপের প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকার পতনের পর গঠিত ঐক্য সরকারের আবাসনমন্ত্রী নিযুক্ত হয়েছিলেন তিনি।

×