ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

অতীত-বর্তমানের মেলবন্ধন ‘সার্চিং ফর স্পেস’

সংস্কৃতি প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০০:০১, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

অতীত-বর্তমানের মেলবন্ধন ‘সার্চিং ফর স্পেস’

আলিয়ঁস ফ্রঁসেজের লা গ্যালারিতে ‘সার্চিং ফর স্পেস’ শীর্ষক প্রদর্শনীতে ছবি দেখছেন দর্শনার্থীরা

চিত্রকর্ম সৃজনে বাস্তবতার সঙ্গে কল্পনার ভুবনে ধাবিত এক চিত্রকর ইফতিখার উদ্দীন আহমেদ। সেই সুবাদে ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গির দেখা মিলেছে তার ক্যানভাসে। মূর্ত ও বিমূর্ত রীতির আশ্রয়ে  নিরীক্ষাধর্মী পথরেখা খুঁজে  নিয়েছে সেসব চিত্রপট। বিচ্ছিন্ন সরলরেখা, কলমের আঁকিবুকি এবং কম্পোজিশনের বুদ্ধিদীপ্ত ব্যবহারে বৈচিত্র্য ছড়িয়েছে তার কাজ। সেসব ছবি যেন হয়ে উঠেছে  অতীত আর বর্তমানের সম্মিলন। চক্রাকার বৃত্ত, ধসে পড়া স্তম্ভ, ঘড়ি এবং চাবির আপাত-বিমূর্ত কম্পোজিশনে তিনি সময়ের উপাদানগুলোকে উদ্ভাসিত করে তুলেছেন। শুক্রবার থেকে এই চিত্রশিল্পীর প্রদর্শনীর সূচনা হলো ফরাসি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ দো ঢাকার লা গ্যালারিতে। শিরোনাম সার্চিং ফর স্পেস। শরতের সন্ধ্যায় আলিয়ঁসের পরিচালক ফ্রাঁসোয়া ঘ্রোজঁ এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন।  
নিজের চিত্রকর্ম প্রসঙ্গে ইফতিখার উদ্দীন  বলেন, আমি সবসময়ই প্রকৃতির মাঝে অসীমকে খুঁজে বেরিয়েছি। স্বপ্নাতুর এবং আবেগমথিত এক জগতে বাস করে বাস্তব পৃথিবীর সঙ্গে তার যোগসূত্র আমার ধ্যানের অন্যতম বিষয়। আমার বিশ্বাস মহাজাগতিক পরিবর্তন সতত ঘটমান এবং তা আমার ক্যানভাসে বিচিত্র ও বিভিন্ন ডাইমেনশন সৃষ্টি করে চলেছে। আমি নতুন নতুন থিম নিয়ে পরীক্ষা করতে পছন্দ করি যা আমার কাজের ওপর প্রভাব ফেলে। বিভিন্ন সময়ে আমার পেইন্টিংয়ে দৃশ্যমান হয় প্রায় পরস্পরবিরোধী রঙের দ্বান্দ্বিক নৃত্য।

সেগুলোর মাঝে রয়েছে এক শোভাময় সংমিশ্রণ আর টেক্সচারের সংবেদনশীল অনুভব।  আমার প্রিয় বিষয় হলো স্পেস ও সময়। সে কারণেই আমার চিত্রপটে অনুষঙ্গ হিসেবে উঠে এসেছে সিঁড়ি, চাকা, বৃত্ত, প্রাচীন মিসরীয় প্রতীক কিংবা পিরামিডের নকশা। যা কিনা মেলে ধরেছে স্পেস, ইতিহাস এবং সময়ের প্রতীকী উপস্থাপন। আমার পারিপার্শ্ব ও প্রতিবেশের সব ধরনের পরিবর্তন আমি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করে থাকি। আমি আমার ব্যক্তিগত কষ্ট, যন্ত্রণা এবং হতাশাকে তুলে ধরার চেষ্টা করি। মাঝে মাঝে আমার  রেখাগুলো বিচ্ছিন্ন কিংবা আঁকিবুকি বলে মনে হয়, বিভিন্ন পরিচিত অপরিচিত ফর্ম পৃষ্ঠের সর্বত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে। প্রায়শই বিভিন্ন কম্পোজিশনের মাঝে হঠাৎই প্রতীয়মান হয় বৃত্তীয় বা ত্রিভুজাকৃতি ফর্ম, ভাঙ্গা স্তম্ভ, কলাম বা অজানা কোন বস্তু। সংলগ্ন কলাম, ত্রিভুজাকার ফর্ম, ভাঙ্গা স্তম্ভ, নিগূঢ় ইমেজ, কোমল ও উজ্জ্বল রঙে সজ্জিত ক্যানভাস এক ধরনের প্যানোরামা-প্রভাব তৈরি করে। আশা, আকাক্সক্ষা, স্বপ্ন এবং দুঃস্বপ্ন হলো আবেগসঞ্জাত অনুভূতি আর অভিজ্ঞতা। এই সমস্ত উপাচার দিয়ে আমি বিচিত্র প্রতীকী ধারায় আামার ক্যানভাস চিত্রিত করি।
এ্যাক্রিলিক ও মিশ্র মাধ্যমের আশ্রয়ে চিত্রিত ২৫টি চিত্রপটে সজ্জিত হয়েছে এই প্রদর্শনী। আগামী ৩০ সেপ্টেমবর পর্যন্ত চলবে এ শিল্পায়োজন। সোম  থেকে শনিবার বেলা ৩টা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। রবিবার সাপ্তাহিক বন্ধ।
ইফতিখার উদ্দীন আহমেদ কানাডায় বসবাসরত একজন ফ্রিল্যান্স আর্টিস্ট। তার জন্ম হয় ঢাকায় ১৯৬০ সালে। চারুকলা ইনস্টিটিউট হতে ড্রয়িং এবং  পেইন্টিংয়ের ওপর স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করার পর ফরাসি সরকারের বৃত্তি নিয়ে আধুনিক চিত্রকলার ওপর উচ্চতর পড়াশোনা করতে চলে যান প্যারিসে। তার পুরস্কারের ঝুলিতে জমা পড়েছে প্যারিসের গ্যালারি বিনানোস আয়োজিত আর্টিস্ট অব দ্য ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় পেইন্টিংয়ে প্রথম পুরস্কার, নবম এশিয়ান আর্ট বিয়েনাল, বাংলাদেশ চারুশিল্পী সংসদ বিয়েনাল এবং ন্যাশনাল আর্ট এক্সিবিশনে (২০০১) এ অনারেবল  মেনশন ছাড়াও বেশ কিছু পুরস্কার।