সোমবার ১১ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আজ ঠাকুরগাঁও মুক্ত দিবস

আজ ঠাকুরগাঁও মুক্ত দিবস

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও ॥ আজ (৩ ডিসেম্বর) ঠাকুরগাঁও মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের ৩ ডিসেম্বর বীর মুক্তিযোদ্ধারা বিজয়ের বীর বেশে ঠাকুরগাঁওয়ে প্রবেশ করেন। এসময় ঠাকুরগাঁওয়ের সর্বস্তরের মানুষ তাদের সাথে যুক্ত হয়ে স্বদেশের পতাকা উড়িয়ে ‘জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু’ ধ্বনিতে আনন্দ উল্লাসে মুখরিত করে তোলেন। পাকিস্তানী হানাদার মুক্ত হয় ঠাকুরগাঁও ।

এই দিনে ঠাকুরগাঁও মহকুমায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মরণপণ লড়াই আর মুক্তিকামী জনগণের দুর্বার প্রতিরোধে পতন হয় পাকিস্তানী বাহিনীর।

পাকিস্তানী সেনাদের পতনের পর এ এলাকার সর্বত্রই ছড়িয়ে পড়ে মুক্তির উল্লাস। আনন্দ উদ্বেলিত কণ্ঠে “জয়বাংলা” ধ্বনি আর হাতে প্রিয় স্বদেশের পতাকা নিয়ে ছুটোছুটি করতে থাকেন তরুণ-যুবক সবাই।

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাতে পাকসেনারা ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঙালীর ওপর। তাদের প্রতিরোধ করতে সারাদেশসহ ঠাকুরগাঁওবাসীও গড়ে তুলেছিল দুর্বার আন্দোলন।

ঠাকুরগাঁও মহকুমা ছিল ৬ নম্বর সেক্টরের অন্তর্ভুক্ত। কমান্ডার ছিলেন পাকিস্তানী বাহিনীর স্কোয়াড্রেন লিডার খাদেমুল বাশার। সমগ্র সেক্টরে ১ হাজার ১২০টির মত গেরিলা বেইস গড়ে তোলা হয়। ৮ মে’র আগ পর্যন্ত সুবেদার কাজিম উদ্দিন এর দায়িত্বে ছিলেন। ৯ মে ক্যাপ্টেন নজরুল, কাজিম উদ্দিনের কাছ থেকে দায়িত্ব বুঝে নেন। জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে স্কোয়াড্রেন সদরু উদ্দিন ও ১৭ জুলাই ক্যাপ্টেন শাহারিয়া সাব সেক্টরের দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

২১ নবেম্বর থেকে ৩০ নবেম্বর পর্যন্ত উল্লেখযোগ্য যুদ্ধ হয় বালিয়াডাঙ্গী, পীরগঞ্জ, রানীশংকৈল ও হরিপুর থানা অঞ্চলে।

২৯ নবেম্বর তৎকালীন ঠাকুরগাঁও মহকুমার পঞ্চগড় থানা প্রথম শত্র“মুক্ত হয়। এরপর পাকিস্তানী বাহিনীর মনোবল ভেঙে যায়। তারা প্রবেশ করে ঠাকুরগাঁওয়ে।

৩০ নবেম্বর পাকিস্তানী সেনারা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ভুল্লী ব্রিজ উড়িয়ে দেয়। তারা সালন্দর এলাকায় সর্বত্র বিশেষ করে ইক্ষু খামারে মাইন পুতে রাখে। মিত্রবাহিনী ভুল্লী ব্রিজ সংস্কার করে ট্যাংক পারাপারের ব্যবস্থা করে।

পহেলা নবেম্বর কমান্ডার মাহাবুব আলমের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধাগন ঠাকুরগাঁওয়ের দিকে ঢোকে। ২ ডিসেম্বর রাতে ঠাকুরগাঁওয়ে প্রচণ্ড গোলাগুলি শুরু হয়। ওই রাতেই শত্র“ বাহিনী ঠাকুরগাঁও থেকে পিছু হটে ২৫ মাইল নামক স্থানে অবস্থান নেয়। ৩ ডিসেম্বর বিজয়ের বীর বেশে ঠাকুরগাঁওয়ে প্রবেশ করে মুক্তিযোদ্ধাগণ। স্বদেশের পতাকা উড়িয়ে ‘জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু’ ধ্বনিতে আনন্দ উল্লাস করে এলাকার মুক্তিকামী মানুষ।

যে মানুষগুলোর আত্মত্যাগে দেশ শত্র“মুক্ত হয়েছিল তাদের স্মরণে হানাদার মুক্ত দিবস পালনে এবার জেলা প্রশাসন ও উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী জেলা সংসদ, ইএসডিও দিনব্যাপী নানান কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। উদীচী’র কর্মসূচীতে রয়েছে মুক্তি শোভাযাত্রা, মুক্তিযুদ্ধে স্মৃতিচারণ মূলক অনুষ্ঠান, সম্মাননা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করবে উত্তর বঙ্গের সেরা লোক সঙ্গীত দল “আরশীনগর” এর শিল্পীবৃন্দ ও কুষ্টিয়ার লালন কন্যা বাউল শিল্পী শিরিন সুলতানা। এ দিবসটি পালনে সরকারি উদ্যোগ ও পৃষ্ঠপোষকতা দাবি বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ সবার।

জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আব্দুল মান্নান বলেন, হানাদার মুক্ত দিবস পালনে সরকারের উদ্যোগ নেওয়া প্রয়োজন। তা না হলে হারিয়ে যাবে এ দিনের তাৎপর্য।

জেলা প্রশাসক মো: মাহাবুবুর রহমান বলেন, দিনটি আরো অর্থবহ করে ধরে রাখতে সকল প্রতিষ্ঠানের এগিয়ে আসা উচিত।

শীর্ষ সংবাদ:
ব্যাংক-আর্থিক প্রতিষ্ঠান ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অর্ধেক জনবলে চলবে         টাকা ফেরত পেলেন ই-কমার্স কোম্পানি কিউকমের ২০ গ্রাহক         পদত্যাগ করলেন আর্মেনিয়ার প্রেসিডেন্ট         বিধিনিষেধের বিষয়ে পরবর্তী নির্দেশনা এক সপ্তাহ পর : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী         সরকারকে বিব্রত করতেই ইসি আইনের বিরোধিতা ॥ হানিফ         ঢাবিতে শিক্ষকদের প্রতীকি অনশন         ৮৫ বার পেছাল সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন         সুগন্ধা ট্রাজেডি ॥ একমাসেও অভিযান লঞ্চের ৩২ যাত্রীর খোঁজ মেলেনি         চরবিজয়ে চলছে ইলিশসহ সামুদ্রিক বিভিন্ন প্রজাতির মাছের রেণু পোনা নিধনের তান্ডব         বায়ুদূষণে বাড়ছে ক্যান্সারের ঝুঁকি         সিরিয়ার কারাগারে আইএসের হামলা ॥ নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২০         নিজ দেশের দূতাবাস কর্মীদের পরিবারকে ইউক্রেন ছাড়ার নির্দেশ যুক্তরাষ্ট্রের         বুরকিনা ফাসোর প্রেসিডেন্টকে আটক করেছে বিদ্রোহী সেনারা ॥ রয়টার্স         সৌদিতে হুতিদের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় বাংলাদেশিসহ আহত ২         কাছে গিয়েও পারলো না বাংলাদেশের মেয়েরা         রাজশাহীতে ৬০ শতাংশ ছাড়িয়েছে করোনা সংক্রমণ, তিনজনের মৃত্যু         করোনা ভাইরাস ॥ ভারতে টানা পাঁচ দিন ধরে দৈনিক শনাক্ত ৩ লাখের বেশি