রবিবার ১০ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ধারাবাহিকতা ধরে রাখার লক্ষ্য লিটনের

স্পোর্টস রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে ॥ ওয়ানডে ও টি২০ ক্রিকেটে টানা ব্যর্থতায় তীব্র সমালোচনা আর ট্রলের শিকার লিটন কুমার দাস কোণঠাসা হয়ে পড়েন। এমনকি পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের টি২০ সিরিজে বাদ পড়েন। আবার দলে ফিরেছেন টেস্টে, চট্টগ্রামে প্রথম ইনিংসেই করেছেন বাজিমাত। আগে দুইবার ৯৪ ও ৯৫ রানে আউট হয়ে সেঞ্চুরি বঞ্চিত ছিলেন, এবার ক্যারিয়ারের প্রথম শতক তুলে নিয়েছেন দলের বিপর্যয়ের মুহূর্তে। সবমিলিয়ে স্বস্তি ফিরেছে লিটনের। অবশ্য স্বল্প পরিসরে ব্যর্থ হলেও টেস্টে রানের মধ্যেই ছিলেন। সেই ধারাবাহিকতা রাখাই লক্ষ্য লিটনের। কিন্তু দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেটে তা চ্যালেঞ্জিং এবং পরিশ্রমেই সফল হতে চান বলে জানিয়েছেন তিনি।

দলীয় রান যখন ৪ উইকেটে ৪৯ তখন ক্রিজে এসে মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে ২০৬ রানের জুটি গড়েন লিটন। ২৩৩ বলে ১১ চার, ১ ছক্কায় ১১৪ রান করা লিটন বলেন, সব মিলিয়ে আমরা দুজনেই কঠিন পরিস্থিতিতে ছিলাম, দুজনেই প্রত্যাবর্তন করেছি। দুজনেই দুজনকে সমর্থন দিয়েছি। অনেক প্রতীক্ষার পর ক্যারিয়ারের ২৬তম টেস্টে ৪৩তম ইনিংসে নেমে প্রথম সেঞ্চুরি পেয়েছেন। দুইবার নার্ভাস নাইনটিজে আউটও হয়েছিলেন। লিটন বলেন, অনুভূতি তো সব সময় ভাল। কোন ব্যাটসম্যান যদি সেঞ্চুরি করে তার থেকে বড় কিছু থাকে না পাওয়ার। এই শতকের নেপথ্য কারণ হিসেবে তিনি বলেন, টি২০তে যে জন্য আমাকে বিরতি দিয়েছিল হয়তো সেটাই হয়েছে মূল ফল। আমি প্রক্রিয়া অনুসরণ করব। একশ’ করেছি দেখে পরদিন নামলে যে আবার একশ’ হবে তেমনটা না। টেস্ট ক্রিকেট অনেক কঠিন। শূন্য থেকে শুরু করতে হয়, সবসময়ই চ্যালেঞ্জ। আমি চেষ্টা করব যেভাবে গত ৬-৭ টেস্টে খেলেছি সেভাবে খেলার। টেস্ট ক্রিকেটের জন্য যেটুক প্রস্তুতি দরকার সেটুকু প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। যখন বিকেএসপিতে ছিলাম জাতীয় লীগের ম্যাচে তখন ফাহিম স্যার ও মন্টু স্যারের সঙ্গে আলাপ করেছিলাম। সেখান থেকে আসার পর চট্টগ্রামে আমাদের যে দুটো অনুশীলন সেশন করেছি স্ট্যান্সে কিছু একটা পরিবর্তন করেছে। আমার কষ্ট ছিল, পরিশ্রম ছিল।

শীর্ষ সংবাদ:
২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ১৪, শনাক্তের হার বেড়ে ৩১.২৯         পিএসসির যে কোনো পরীক্ষায় লাগবে টিকা সনদ         শহীদ মিনারে ফুল দিতে গেলে টিকা সনদ বাধ্যতামূলক         সংসদে শাবি ভিসির অপসারণ দাবি ২ এমপির         ৭৪২ পুলিশ সদস্য পেলেন ‘গুড সার্ভিসেস ব্যাজ’         ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নিহত ১         স্বাস্থ্যের সাবেক ডিজি অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ স্থায়ী জামিন         গত বছর সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭৮০৯         যবিপ্রবির জিনোম সেন্টারে এবার ৩৫ জনের শরীরে ওমিক্রন শনাক্ত         খালেদার বিরুদ্ধে গ্যাটকো মামলার শুনানি পেছাল         স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে কমনওয়েলথ গেমসের আরও কাছে বাংলাদেশ         চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রাক-মাহিন্দ্রা সংঘর্ষে নিহত ২         মাদারীপুরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা ॥ প্রধান অভিযুক্ত গ্রেফতার         কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এসেছে একটি মৃত ডলফিন         হাতিয়ায় ১৪০ মণ জাটকা জব্দ, এতিমখানায় বিতরণ         মেয়াদ শেষে জেলা পরিষদে বসবেন প্রশাসক, বিল উত্থাপন         নির্বিচারে অ্যান্টিবায়োটিকের প্রয়োগের ফলে মারাত্মক অসুখের ক্ষেত্রে এর কার্যকারিতা কমে যায়         ইউক্রেনে রুশপন্থি নেতাকে ক্ষমতায় বসাতে চায় মস্কো ॥ যুক্তরাজ্য         ১০১ টাকা কাবিন ধরা হল রাজ-পরীর বিয়েতে         প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করলেন সালমান