বৃহস্পতিবার ৮ বৈশাখ ১৪২৮, ২২ এপ্রিল ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

অবশেষে পরমাণু চুক্তি নিয়ে সুর নরম করলো ইরান

অবশেষে পরমাণু চুক্তি নিয়ে সুর নরম করলো ইরান

অনলাইন ডেস্ক ॥ পরমাণু চুক্তি নিয়ে ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের চলমান বিতর্কে আশার আলো দেখা গেছে। জাতিসংঘের পারমাণবিক পর্যবেক্ষক সংগঠন জানিয়েছে, এতোদিন আগ্রহ না দেখালেও চুক্তির বেশ কিছু বিষয় নিয়ে অবশেষে আলোচনায় বসতে রাজি হয়েছে তেহরান। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে এই ইস্যুতে দেশটি কোনো রকম আলোচনায় অংশ নিতে চাচ্ছিল না। বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) ভিয়েনায় আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থার (আইএইএ) ডিরেক্টর জেনারেল রাফায়েল গ্রোসি সাংবাদিকদের জানান, ইরান তাদেরকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে। ইরানের একাধিক অঞ্চলে ইউরেনিয়ামের মজুত আছে বলে দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ করে আসছে আইএইএ।

গত কয়েকমাসে তা আরও বাড়ানো হয়েছে বলেও অভিযোগ সংস্থাটির। কিন্তু এরপরও আইএইএ’র কোনো কর্মকর্তাকে ইরানে ঢুকতে এবং বিতর্কিত ওই অঞ্চলগুলোতে পরিদর্শনে যেতে দেওয়া হবে না বলে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেয় তেহরান। তবে বৃহস্পতিবার গ্রোসি জানিয়েছেন, ইরান এ বিষয়ে আলোচনার আশ্বাস দিয়েছে।

অবশ্য গত কিছুদিন ধরে আলোচনার রাস্তা সম্পূর্ণ বন্ধ করে পরমাণু চুক্তি ইস্যুতে কঠোর অবস্থানে ছিল ইরান। তেহরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা না তুললে পরমাণু চুক্তি নিয়ে কোনোরকম আলোচনায় বসবে না বলেও দাবি করে আসছিল দেশটি। এর পাশাপাশি ইউরেনিয়ামের মজুত অনেকগুণ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় ইরানি পার্লামেন্ট। পাশাপাশি দেশের পরমাণু কেন্দ্রগুলোতে আইএইএ’র বিশেষজ্ঞদের নজরদারিও বন্ধ করে দেয় দেশটি।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে নিন্দাপ্রস্তাব গ্রহণ করার কথা ছিল জার্মানি, ফ্রান্স এবং যুক্তরাজ্যের। জার্মানির বক্তব্য, ইরান যেভাবে এগোচ্ছে, তা মেনে নেওয়া যায় না। দ্রুত আলোচনায় বসা দরকার। এর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।

এর আগে গত ২২ ফেব্রুয়ারি ‘প্রয়োজন মনে করলে’ ইরান ৬০ শতাংশ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের কাজ করবে বলে ঘোষণা দেন দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আলী হোসেইনি খামেনি।

তার দাবি, ‘দেশের প্রয়োজনে পরমাণু সক্ষমতা অর্জনের বিষয়ে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। এ কারণে আমাদের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের মাত্রা ২০ শতাংশে সীমাবদ্ধ থাকবে না বরং যত মাত্রা প্রয়োজন হবে তত মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করা হবে। উদাহরণস্বরূপ পামাণবিক প্রযুক্তি বা অন্য কোনো কাজে আমাদের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের মাত্রা শতকরা ৬০ শতাংশ পর্যন্ত উন্নীত হতে পারে।’

আলোচনায় বসতে না চাওয়া, সর্বোচ্চ নেতার হুংকার বা পার্লামেন্টে ইউরেনিয়ামের মজুত বাড়ানোর আইন পাসের মাধ্যমে পরমাণু চুক্তি ইস্যুতে মূলত পশ্চিমা দেশগুলোর ওপর চাপ সষ্টি করতে চেয়েছিল ইরান। কিন্তু জার্মানি, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্যের নিন্দাপ্রস্তাব গ্রহণের উদ্যেগের পরই সুর নরম করল দেশটি।

২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে পাঁচ বিশ্ব পরাশক্তির মধ্যে পরমাণু চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। কিন্তু ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ‘ত্রুটিপূর্ণ’, ‘একপেশে’, ‘এর কোনো ভবিষ্যৎ নেই’ অভিযোগ তুলে চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে বের করে নিয়ে যান। যুক্তরাষ্ট্রের বেরিয়ে যাওয়ার পর চুক্তির শর্তগুলো মেনে চলার ব্যাপারে ইরানও উদাসীন হয়ে পড়ে।

তবে ট্রাম্প প্রশাসনের বিদায় এবং প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেনের দায়িত্ব নেওয়ার পর পরমাণু চুক্তিতে আবারও ফেরার ব্যাপারে আগ্রহী হয় ওয়াশিংটন ও তেহরান। অবশ্য চুক্তিতে কে আগে ফিরবে, তা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে কূটনৈতিক মতবিরোধ চলছিল। এর মধ্যে আলোচনায় ইরানের সম্মতি পরমাণু চুক্তিকে আবারও সক্রিয় করতে হয়তো সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখবে। বাকি প্রশ্নের উত্তর সময়ের হাতে।

সূত্র: আলজাজিরা, ডয়চে ভেলে

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
১৩৯৮০৯২৪৪
আক্রান্ত
৭৩২০৬০
সুস্থ
১১৮৮৩৬২৩৩
সুস্থ
৬৩৫১৮৩
শীর্ষ সংবাদ:
বিলাসী ব্যয় নয় ॥ ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে কৌশলী পদক্ষেপ         শান্তর শতকে বড় সংগ্রহের পথে বাংলাদেশ         বিকল্প উৎস থেকে টিকা সংগ্রহের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা         দুস্থ মানুষের সহায়তায় প্রধানমন্ত্রীর বরাদ্দ সাড়ে ১০ কোটি টাকা         আতিকউল্লাহ খান মাসুদের মৃত্যুতে শোক অব্যাহত         ব্যাঙ্ককে হেফাজত বিএনপি গোপন বৈঠকে ষড়যন্ত্র         ১৫ দিনে এলো এক মাসের বেশি রেমিটেন্স         কাম ক্রোধে মত্ত আপাদমস্তক ভণ্ড যুবক         হাওড়ে ধান কাটা ও মাড়াইয়ের ধুম         করোনায় আরও ৯৫ জনের মৃত্যু         দরিদ্র মানুষের জীবন জীবিকায় সবচেয়ে গুরুত্ব দেয়া হবে         রূপপুর বিদ্যুত কেন্দ্রের দ্বিতীয় রি-এ্যাক্টরও আসছে         উদ্বোধনের অপেক্ষায় কক্সবাজারের রানওয়ে প্রকল্প         মেট্রোরেলের বগির প্রথম চালান ঢাকায়         মহামারীতে পোশাক খাতের পুনরুদ্ধার ব্যাহত         আগামী রবিবার দোকান-শপিংমল খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত         হেফাজতের আরেক সহকারী মহাসচিব গ্রেফতার         দরিদ্র মানুষের জীবন-জীবিকায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হবে : অর্থমন্ত্রী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৯৫, নতুন শনাক্ত ৪২৮০         ঢাকায় পৌঁছেছে মেট্রোরেলের প্রথম কোচ