বুধবার ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

উড়ো চিঠির অভিযোগ আমলে নেয়া প্রশ্নবিদ্ধ

উড়ো চিঠির অভিযোগ আমলে নেয়া প্রশ্নবিদ্ধ
  • দুর্নীতি-স্বেচ্ছাচারিতা প্রসঙ্গে বললেন মহাসচিব ইন্তেখাবুল হামিদ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অলিম্পিক গেমস থেকে বাংলাদেশ যদি দুটি খেলায় কোন ‘অধরা’ পদক জিততে পারে তাহলে সেই দুটি খেলার একটি হচ্ছে আরচারি, অন্যটি শূটিং। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে- আরচারি যতই উন্নতি করছে ততই যেন পিছিয়ে পড়ছে শূটিং। গত বছর বার্ষিক সাধারণ সভায় ফেডারেশনের কাউন্সিলরদের কাছে পাঠানো হয় তিনটি বেনামি চিঠি। প্রতিটি চিঠিই লেখা হয় মহাসচিব ইন্তেখাবুল হামিদের কর্মকান্ড নিয়ে। মোট ১০টি অভিযোগ আনা হয় তার বিরুদ্ধে। কিন্তু তদন্ত কমিটির এই অভিযোগে অভিযুক্ত নন বলে দাবি করেন ইন্তেখাবুল। সব অভিযোগই দৃঢ়ভাবে অস্বীকার করেছেন তিনি। জনকণ্ঠকে তিনি জানান, ‘আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ উত্থাপিত হয়েছে, সেগুলো উদ্দেশপ্রণোদিত। গত আট বছরে আমার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ আসেনি। আসলে আমার বিরুদ্ধে একটি সিন্ডিকেট কাজ করছে। তদন্ত কমিটির কাছে আমি চার পৃষ্ঠার বক্তব্য দিয়েছি। অথচ তদন্ত কমিটির দেয়া ৫০ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে আমার বক্তব্য যুক্ত করা হয়নি। জার্মানি থেকে ফেরার পথে শূটিং দলের সঙ্গে ৭টি এ্যানসুজ এয়ার রাইফেল দেশে আনার অভিযোগ প্রসঙ্গে ইন্তেখাবুল বলেন, এ বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই। তবে কিছু শূটার বিদেশ থেকে অস্ত্র নিয়ে এসেছে উপহার হিসেবে পেয়ে। সেগুলোর কাগজ তাদের কাছে আছে। অতীতেও এভাবে দেশে আনা হয় অস্ত্র। এটা কোন অপরাধ না। কাস্টমস ও বিমানবন্দরে এগুলোর ট্যাক্স দেয়া হয়নি। যেহেতু বিমানবন্দরে ট্যাক্স দেয়া হয়নি সেটা অপরাধ হতে পারে। প্রতিকার হিসেবে এখন ওই শূটারদের অস্ত্রগুলোর কাগজপত্র দেখাতে হবে। ট্যাক্সও দিতে হবে। এ সংক্রান্ত চিঠি ইতোমধ্যেই তাদের দিয়েছে এনবিআরের শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ। ইন্তেখাবুল বলেন, কাজ করতে গেলে ভুলত্রুটি হতেই পারে। কিন্তু শূটিং ফেডারেশন কিংবা আমার নিজের বদনাম হয় এমন কোন কাজ আমি করিনি।

শীর্ষ সংবাদ:
ওয়েবিনার জুম ॥ করোনাকালের গণমাধ্যম         এলো রুশ ভ্যাকসিন         নামছে বন্যার পানি, বাড়িঘরে ফিরছেন মানুষজন         পুলিশী মামলার তিন সাক্ষী গ্রেফতার ॥ রিমান্ডের আবেদন         ভাড়া ডাকাতির মহোৎসব         করোনায় আরও ৩৩ জনের মৃত্যু         ছোট ঋণ সোনার হরিণ ॥ চার মাসে বিতরণ মাত্র ৫শ’ কোটি টাকা         সাম্প্রদায়িকতা-জঙ্গীবাদ ধর্মের মূল শিক্ষাকেই প্রশ্নবিদ্ধ করে         খালেদার চিকিৎসা দেশে না বিদেশে? দ্বিধাবিভক্ত বিএনপি         পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণীর সমাপনী পরীক্ষা বাতিল হতে পারে         ডিজিএফআই ও সিআইডি কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণা, তিন প্রতারক গ্রেফতার         সাড়ে তিন বছরে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সমৃদ্ধির দিকে এগোতে থাকে         লেবাননে ৪০ হাজার কর্মী বাংলাদেশে ফিরতে সহযোগিতা চান         উত্তরা থেকে তেজগাঁও, দশ ইউটার্ন নির্মাণ ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে         সাগরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত         সাবেক পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত         বঙ্গবন্ধুর হত্যা ছিল স্বাধীন বাংলাদেশকে হত্যার ষড়যন্ত্র ॥ তথ্যমন্ত্রী         মেজর সিনহা হত্যা ॥ আরও তিনজন গ্রেফতার         চলতি বছরের মধ্যে ইউটার্নগুলোর কাজ শেষ হবে ॥ আতিক         বিশ্বের প্রথম করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগ হল পুতিনের মেয়ের শরীরে        
//--BID Records