ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

করোনার জেরে বাতিল হচ্ছে টোকিও অলিম্পিক!

প্রকাশিত: ১২:০৭, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

করোনার জেরে বাতিল হচ্ছে টোকিও অলিম্পিক!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ করোনাভাইরাস আতঙ্কের জেরে টোকিও অলিম্পিক ঘিরে অনিশ্চয়তা আরও বাড়ল। পরিস্থিতি এতটাই জটিল যে, শীঘ্রই করোনা আতঙ্ক না কমলে পুরোপুরি বাতিল করে দেয়া হতে পারে ক্রীড়াজগতের সবচেয়ে বড় এই ইভেন্ট। গতকাল এই আশঙ্কার কথাই শুনিয়েছেন আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সদস্য ডিক পাউন্ড। তার কথায় করোনা নিয়ন্ত্রণ না করা গেলে অলিম্পিক একেবারে বাতিল করে দিতে হবে। পিছিয়ে যাওয়া বা স্থানান্তর করার কোন সম্ভাবনা নেই। বছরের শুরু থেকে চীনে বড় সঙ্কট হয়ে দেখা দিয়েছে নতুন ধরনের জীবাণু নোভেল করোনাভাইরাস। খুব কম সময়ের মধ্যেই তা মহামারী আকার ধারণ করেছে। শেষ খবর অনুযায়ী করোনার ছোবলে প্রায় ৩ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন। বিশ্বজুড়ে গবেষকরা নেমে পড়েছেন করোনাভাইরাস রুখে দেয়ার ওষুধ তৈরিতে। কিন্তু সমাধানসূত্র অধরা এখনও। চীনের গ-ি পেরিয়ে এই ভাইরাসের সংক্রমণ বিশ্বের অন্তত ২৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। প্রতিবেশী জাপানেও এর প্রকোপ প্রবল। ইতিমধ্যেই জাপানে করোনার প্রভাবে কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত অনেকেই। টোকিওতেও করোনার প্রভাব যথেষ্ট লক্ষণীয়। ইতিমধ্যেই করোনা আতঙ্কে জাপানের প্রথম ডিভিশনের ফুটবল টুর্নামেন্ট জে লীগের খেলা বন্ধ রাখা হয়েছে। এসবের মধ্যে জুলাইয়ের শেষেই টোকিওতে অলিম্পিকের আসর বসার কথা। স্বাভাবিকভাবেই যে দ্রুত হারে করোনার সংক্রমণ ছড়াচ্ছে তাতে অলিম্পিকের আয়োজন নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন উঠে গেছে। এই পরিস্থিতিতে অলিম্পিক নিয়ে আশার কথা শোনাতে পারলেন না আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সদস্য ডিক পাউন্ড। তিনি বলছেন, এই ভাইরাসের প্রকোপ যদি না কমে তাহলে অলিম্পিক সরাসরি বাতিলই করতে হবে। এ্যাথলেটদের নিরাপত্তা, স্পোর্টস ভিলেজ, খাবার-দাবার, হোটেল, সাংবাদিক বন্ধুদের নিরাপত্তা সবার আগে দেখতে হবে। কিছুদিন পরই আমরা গোটা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করব। যদি সবকিছু স্বাভাবিক থাকে তবেই সঠিক সময়ে অলিম্পিক হবে। নইলে বাতিল হয়ে যাবে। পিছিয়ে দেয়া বা স্থানান্তরের কোন প্রশ্নই নেই।