ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

নব্য জেএমবির আমির ‘ডনে’র খোঁজে গোয়েন্দারা মাঠে

প্রকাশিত: ১০:২৭, ২৯ জুন ২০১৯

 নব্য জেএমবির আমির ‘ডনে’র খোঁজে গোয়েন্দারা মাঠে

শংকর কুমার দে ॥ নব্য জেএমবির নতুন আমির ‘ডন ভাই’। কিন্তু কে এই ডন ভাই? এটা তার সাংগঠনিক নাম। প্রকৃত নাম কি, পরিচয় কি তার? চট্টগ্রামে তার তৎপরতার প্রথম খবর পাওয়া যায় গত বছর। এরপর কলকাতায় গ্রেফতার হওয়া চার জঙ্গী জবানবন্দীতে জানায়, তাদের নতুন আমির চট্টগ্রামের ডন। ডনের নেতৃত্বেই নতুন করে সংগঠিত হচ্ছে জঙ্গী সংগঠন নব্য জেএমবি। এবার ফের আলোচনায় আসলে নব্য জেএমবির আমির কে? নতুন আমির এই ডনের খোঁজে মাঠে নেমেছেন গোয়েন্দারা। গোয়েন্দা সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার কলকাতায় আটক তিন বাংলাদেশী নব্য জেএমবি জঙ্গী হচ্ছে জিয়াউর রহমান ওরফে মহসিন, মামুনুর রশিদ, মহম্মদ শাহিন আলম ওরফে আলামিন ও রবিউল ইসলাম। তাদের আটকের পর আদালত থেকে কলকাতার পুলিশের স্পেশাল ফোর্স (এসটিএফ) জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারে, তাদের নতুন আমির চট্টগ্রামের ‘ডন’ ভাই। সোহেল মাহফুজ বাংলাদেশে গ্রেফতার হওয়ার পর, চট্টগ্রামের ডন নিযুক্ত হয়েছে নতুন আমির হিসেবে। গত বছর চট্টগ্রামের গ্রেফতার হয় দুই জঙ্গী। তাদের দেয়া জবানবন্দীতে প্রথম প্রকাশ পায় ডন নামের একজনের পরিকল্পনায় চলছে নব্য জেএমবি। তবে এখন পর্যন্ত তার বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে, ডন তার সাংগঠনিক নাম। তাকে চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। গোয়েন্দা সংস্থার এক উর্ধতন কর্মকর্তা বলেন, একের পর এক শীর্ষ জঙ্গী নেতা আটকের পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে একেক সময় একেকজনকে নব্য জেএমবির আমির বলে দাবি করা হয়। এ পর্যন্ত ১২ ব্যক্তির নাম এই নিষিদ্ধ সংগঠনের আমির হিসেবে আলোচনায় এসেছে বিভিন্নভাবে। জঙ্গীদের কয়েকটি শাখার নামও বিভিন্নভাবে আলোচনায় আসছে। কেউ কেউ আইএস ভাবাদর্শে শাখার নাম প্রচার করে আসছে। আসলে জঙ্গী সংগঠনের নাম যাই হোক না কেন মূল লক্ষ্য একই। সম্প্রতি আবু আল-বাঙালী নামে এক ব্যক্তিকে নব্য জেএমবির আমির বলে দাবি করা হয়। তবে এটাও যে সঠিক তা নিশ্চিত করে কেউই বলতে পারেন না। নব্য জেএমবির আমির আসলে কে? দাবিদার অনেকে থাকলেও আসলেই তারা নব্য জেএমবির প্রধান কিংবা আমির কি না সে বিষয়ে সত্যতা পায়নি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। অবশ্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীই বিভিন্ন সময় একেকজনকে নব্য জেএমবির আমির হিসেবে বলে আসছে। ’৯৮ সালে শায়খ আবদুর রহমান জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) প্রতিষ্ঠা করেন। অনেক ঘটনার জন্ম দিয়ে ২০০৬ সালের ২ মার্চ সিলেটের সূর্যদীঘল বাড়ি থেকে আটক এবং ২০০৭ সালের ২৯ মার্চ কুমিল্লা কারাগারে তার ফাঁসির রায় কার্যকর করা হয়। এরপর নানা সময়ে জেএমবির নেতৃত্ব তছনছ করে দেয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পরে পর্যায়ক্রমে মাওলানা সাইদুর রহমান ও সেনাবাহিনী থেকে চাকরিচ্যুত মেজর জিয়াউল হকের নাম আসে জেএমবির আমির হিসেবে। সাইদুর রহমান আটক ও মেজর জিয়ার রহস্যজনক অন্তর্ধানের পর নব্য জেএমবি গঠিত হয়েছে বলে প্রচার রয়েছে। নব্য জেএমবির আমির হিসেবে আবদুর রহমান, আবুল কাশেম, সোহেল মাহফুজ, তামিম চৌধুরী, সারোয়ার জাহান, মাঈনুল হক মুসা ও সর্বশেষ আইয়ুব বাচ্চু ওরফে সাজিদের নাম প্রচার পেয়েছে। তবে কেবল আইয়ুব বাচ্চুর সঙ্গে নব্য জেএমবির আমীরের যোগাযোগ থাকতে পারে বলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ধারণা করছে। একের পর এক শীর্ষ নেতা আটক ও নিহতের পর নেতৃত্বে নতুন নতুন নাম আসায় নব্য জেএমবির আমীরের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে। যদিও জেএমবি আমির হিসেবে যাদের নামে আলোচনা হচ্ছে তাদের অনেকের কর্মকা-ই তেমন আলোচিত নয়। হঠাৎ করে একেক নাম শুনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অনেক সংস্থার সদস্যদের কাছেও এ নিয়ে খটকা লাগছে। গোয়েন্দা সংস্থার এক উর্ধতন কর্মকর্তা বলেন, নব্য জেএমবির আমির কে এটা নিয়ে বিভ্রান্তি রয়েছে। গুলশানের হলি আর্টিজানে হামলার পরে বিভিন্ন অভিযানে নব্য জেএমবির নেতৃত্ব তছনছ হয়ে গেছে। নতুন আমির হিসেবে একেক সময়ে একেক নাম পাওয়া যাচ্ছে। সর্বশেষ কলকাতায় আটক চার জঙ্গীর জবানবন্দীতে আমির হিসেবে নাম এসেছে ডনের। এটাও সঠিক কিনা কিংবা ডনই বা কে- তার অনুসন্ধানে মাঠে নেমেছেন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।
monarchmart
monarchmart