ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

টেস্টের জন্য বিশেষজ্ঞ ব্যাটিং কোচ খুঁজছে বিসিবি

প্রকাশিত: ০৭:৩৬, ২৮ আগস্ট ২০১৮

টেস্টের জন্য বিশেষজ্ঞ ব্যাটিং কোচ খুঁজছে বিসিবি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চান্দিকা হাতুরাসিংহে গত বছর নবেম্বরে বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন। তারপর থেকেই নতুন কোচ নিয়োগ ইস্যুতে বেশ ঝামেলায় ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। কারণ কোচিং ও সাপোর্টিং স্টাফও অনেকে চলে গেছেন। সেই সমস্যার সুরাহা হয়েছে ম্যানেজমেন্ট কানসালটেন্ট হিসেবে গ্যারি কার্স্টেন যোগ দেয়াতে। তার পরামর্শে প্রধান কোচ হিসেবে ইংল্যান্ডের স্টিভ রোডস এবং ফিল্ডিং কোচ হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার রায়ান কুক ও ব্যাটিং কোচ হিসেবে সাবেক প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান নেইল ম্যাকেঞ্জিকে নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি। এখন পর্যন্ত রোডস কাজে যোগ দিলেও বাকি দুইজন তাদের দায়িত্ব শুরু করেননি। এর আগেই বিসিবি জানাল, ম্যাকেঞ্জিকে শুধু ওয়ানডে ও টি২০ ফরমেটের কোচ হিসেবে কাজে লাগিয়ে টেস্টের জন্য আলাদাভাবে বিশেষজ্ঞ ব্যাটিং কোচ নিয়োগ করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। সোমবার এমনটাই জানালেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন। ২০০৯ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায় ম্যাকেঞ্জির। দক্ষিণ আফ্রিকার জার্সিতে তিনি ৬৪ ওয়ানডে ও ৫৮ টেস্ট খেললেও মাত্র ২ টি২০ ম্যাচ খেলেছেন। এরপরও তাকে মূলত ওয়ানডে ও টি২০ ফরমেটের ব্যাটিং কোচ হিসেবেই রাখতে চাইছে বিসিবি। কারণ ঘরোয়া আসরে তিনি ১৫৫ টি২০ ম্যাচ খেলেছেন ১৮টি অর্ধশতকসহ এবং ২৯৮টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা আছে তার। আর টেস্টে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক সময়ে বেশ নাজুক পরিস্থিতি। বিশেষ করে ব্যাটিংয়ের বেহাল চিত্র গত বছর অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর এবং সম্প্রতিই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে প্রকটভাবে দেখা গেছে। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে প্রথম টেস্টেই ৪৩ রানের একটি লজ্জাজনক ইনিংসে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ দল। সর্বশেষ ১২ মাসে গড়ে বাংলাদেশের প্রতি ইনিংসে রান ২০২! সর্বশেষ ৩ টেস্টে তো ২০০ রানই পার হতে পারেনি। আর এসব পর্যালোচনা করে এটাই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে আলাদাভাবে বিশেষ পরিচর্যা দরকার টেস্ট ক্রিকেটের জন্য। অনেকেই মনে করছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মূলত সমস্যা হ্যান্ডগ্রিপে। অথচ প্রায় একই ব্যাটসম্যানরা খেলেন ওয়ানডে ও টি২০ এবং সে দুটি ফরমেটে এখন পর্যন্ত দুরন্ত তারা। সেটার প্রমাণ এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে দেখিয়ে উভয় সিরিজ জিতেছে বাংলাদেশ দল। এই মুহূর্তে শুধুমাত্র ইংল্যান্ড জাতীয় ক্রিকেট দলের জন্য ভিন্ন ভিন্ন ফরমেটে আলাদা ব্যাটিং কোচ রাখা হয়েছে। গ্রাহাম থর্পে ওয়ানডে ও টি২০ ক্রিকেটের জন্য এবং টেস্টের জন্য মার্ক রামপ্রকাশ ব্যাটিং কোচের দায়িত্ব পালন করছেন। এখন সেদিকেই অগ্রসর হওয়ার পরিকল্পনা বিসিবিরও। এ বিষয়ে সিইও নিজামউদ্দিন বলেন, ‘ব্যাটিং কোচ যেটা আমাদের ওয়ানডে ও টি২০ দলের জন্য নেয়া হয়েছে। তিনি ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত কাজ করবেন চুক্তি অনুসারে। এখন টেস্ট দলের জন্য ব্যাটিং কোচ নেয়ার পরিকল্পনা বোর্ডের রয়েছে। আমরা অবশ্য টেস্ট ক্রিকেটের জন্যও নেইলকে পছন্দ করেছিলাম। কিন্তু তার নিজেরই অত সময় নেই। আমরা বর্তমান যে কোচিং ম্যানেজমেন্ট দিয়েছি তার অধিকাংশই আগামী ওয়ানডে বিশ্বকাপকে লক্ষ্য করে গড়ে তোলা। কিন্তু আমরা এখন বিবেচনা করছি ভিন্ন কাউকে যিনি টেস্ট ক্রিকেটে আমাদের ব্যাটসম্যানদের দেখভাল করতে পারবেন। পাশাপাশি অন্যদিকেও মনোযোগ দিতে পারবেন। আমাদের যে যোগাযোগ মাধ্যম রয়েছে তাদের বলেছি কোচদের সঙ্গে আলোচনা করতে। তাছাড়া গ্যারি কার্স্টেন তো আছেনই এ বিষয়ে আমাদের সহযোগিতার জন্য।’