ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

শাকিল আহমেদ

ট্রেন্ডি ফ্লোরটাচ

প্রকাশিত: ০৬:১৯, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ট্রেন্ডি ফ্লোরটাচ

সময় পাল্টাচ্ছে দ্রুত গতিতে। সেই সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছে ফ্যাশন ট্রেন্ড। যেন সময়ের চেয়ে দ্রুত ছুটছে। আজকাল লং গাউনের চল বেশ কিছুদিন ধরেই চলছে। আগে শুধুই পার্টিতে গাউন পরা হতো। এখন তরুণীরা সব ক্ষেত্রেই লং গাউন বেছে নিচ্ছেন। কারণ, স্বাচ্ছন্দ্য আর স্টাইল দুটোই খুঁজে পাবেন লং গাউনে। পার্টিওয়্যার বলি বা ক্যাজুয়াল সব লুকেই এই পোশাক বেশ মানানসই। গাউনের লংটা অনেক সময় মিডিয়ামও হয়ে থাকে, যা লেগিংস দিয়ে পরলেও ভাললাগে। তবে আজকাল ফ্লোরটাচ গাউন বেশি দেখা যাচ্ছে। আপনি যদি ক্যাজুয়ালি গাউন পরতে চান, তাহলে মিডিয়াম লং গাউনই পরা ভাল। গাউনের লং যা-ই হোক না কেন, এর ডিজাইন আর প্যাটার্নে চাই ভিন্নতা। কোনটা এক পার্টের কাপড় দিয়ে তৈরি, কোনটা আবার কোমরের কাছে ইলাস্টিক লাগানো থাকে, যাতে দুটো পার্ট আলাদা মনে হয়; আবার কোনটা থাকে কটি স্টাইলে। কটি স্টাইলের গাউনগুলোতে কটি লাগানোও থাকতে পারে, আবার খুলে ফেলাও সম্ভব। কিছু রয়েছে বোতাম ছাড়া কটি, যেগুলো গাউনের ওপরে টপসের মতো পরতে হয়। এর নিচে গাউনটি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই স্লিভলেস থাকে। তাই আপনি চাইলে এটি টপস দিয়েও পরতে পারেন, আবার স্লিভলেসও পরতে পারেন। গাউনের মধ্যে কোনটার ডিজাইন একেবারে সাদামাটা, কোনটা বেশ রংচঙা, কোনটাতে ব্যবহার করা হয়েছে কন্ট্রাস্ট। আপনি চাইলে গাউনের ওপরের টপসে একটা বো লাগিয়ে গাউনটাকে আরও স্টাইলিশ করে তুলতে পারেন। এভাবে স্টাইলিশ কিছু এডিশন আপনার সিম্পল গাউনকে ট্রেন্ডি করে তুলবে। নিজের মতো করে গাউন তৈরি করে নিতে চাইলে আপনাকে তিন থেকে চার গজ কাপড় কিনতে হবে। থ্রি কোয়ার্টার বা ফুল স্লিভেরও বানাতে পারেন। দেখতে স্টাইলিশ লাগবে। গলার ক্ষেত্রে হাইনেক বা গোল গলা দুটোই বানাতে পারেন। বোতাম ব্যবহার করতে পারেন, আবার মখমলের পাড়ও লাগাতে পারেন। গাউন সিঙ্গেল পরলেই বেশি ভাললাগে। তবে এর সঙ্গে স্কার্ফ পরলেও মন্দ লাগবে না। গলায় পেঁচিয়ে নিতে পারেন স্টাইলিশ ছোট একটা স্কার্ফ। জুতার ক্ষেত্রে হাইহিল বেছে নিন। আর গাউনের সঙ্গে ভারি কোন গয়না না পরাই ভাল। হালকা গয়নায় গাউন পরে আপনিও হয়ে উঠতে পারেন অনন্যা। মডেল : তমা মনি ছবি : নাঈম ইসলাম
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২