মঙ্গলবার ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত স্কুলে কমেছে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি

রাজু মোস্তাফিজ, কুড়িগ্রাম থেকে ॥ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো মেরামত না হওয়ায় কমে গেছে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি। ভাঙ্গনের কবলে পড়া এবং মারাত্মক ক্ষতির ফলে অনেক স্কুলে ঝুঁকি নিয়ে পাঠদান অব্যাহত রাখলেও উপস্থিতির ব্যাপারে অনীহা দেখা দিয়েছে শিক্ষার্থীদের। পাঠদানের উপযোগী না হওয়ায় নামমাত্র কার্যক্রম চলছে এসব স্কুলে। তবে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, জেলার ৪২১টি ক্ষতিগ্রস্ত স্কুল মেরামতের জন্য দেড় কোটি টাকা বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে।

ব্রহ্মপুত্রের ভাঙ্গনে সদর উপজেলার ২ নং চরযাত্রাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনটি ধসে গেছে গত জুন মাসে। ধ্বংসস্তূপের ওপর একটি টিনশেড ঘরে স্কুলের কার্যক্রম চললেও সেটিও বিলীনের অপেক্ষায়। ভয়াবহ বন্যা ও ভাঙ্গনে ব্যাহত শিশুদের শিক্ষাজীবন। সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, একেবারে নদের কিনারে স্কুলটি চলছে। ধসেপড়া ভবনের রডগুলো বেরিয়ে ধ্বংসযজ্ঞের সাক্ষী হয়ে আছে। বর্তমানে যে টিনশেড ঘরে স্কুল চলছে, তার পূর্ব প্রান্তের অংশবিশেষ ধসে গেছে। তিনটি মাত্র কক্ষ রয়েছে এতে। এ অবস্থায় দ্বিতীয় সাময়িক পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা। পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী জোবাইদুল জানান, বন্যায় তার বই খাতা ভিজে গেছে। স্কুল অনেকদিন বন্ধ ছিল। তাই ঠিকমতো প্রস্তুতি নিতে পারেননি। এ অবস্থায় দিতে হচ্ছে পরীক্ষা। একই ক্লাসের শিক্ষার্থী ঋতু বলেন, ‘স্কুল ভেঙ্গে গেছে। আমরা স্কুলে আসতে ভয় করি। বারান্দায় দাঁড়ালে পড়ে যাওয়ার ভয় থাকে। আমার মা-বাবা স্কুলে আসতে দেয় না।’ একই কথা বলে চতুর্থ শ্রেণীর মৌসুমী ও তৃতীয় শ্রেণীর রেজাউলসহ অনেকেই।

২ নং চরযাত্রাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রশিদ খন্দকার জানান, স্কুলে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কমে গেছে। বর্তমানে দ্বিতীয় সাময়িক পরীক্ষা চললেও গরহাজির অনেক শিশু শিক্ষার্থী। তিনি জানান, স্কুলের ৪৯৭ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে পরীক্ষা দিচ্ছেন মাত্র ৩২০ জন। বাকিরা পার্বতীপুর চরসহ বিভিন্ন এলাকায় বাস করছে। দূরবর্তী এলাকায় রাস্তা ভাঙ্গা ও নৌকার অভাবে স্কুলে আসতে পারছে না।

শীর্ষ সংবাদ:
রিজার্ভ বাড়াতে মরিয়া ॥ নানামুখী কৌশল সরকারের         আঞ্চলিক সঙ্কট মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ প্রস্তাব         শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দুই সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের দিন         রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন দুঃস্বপ্ন         দুর্নীতির মামলায় কারাগারে ওসি প্রদীপের স্ত্রী         একগুচ্ছ প্রণোদনায় ঘুরে দাঁড়াল শেয়ারবাজার         প্রভাবশালীদের দখলে উত্তরবঙ্গের অর্ধেক খাস জমি         সিলেটে বন্যাকবলিত এলাকায় খাবার পানির তীব্র সঙ্কট         মাঙ্কিপক্স নিয়ে সব বিমানবন্দরে সতর্ক অবস্থা         গম নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে বোঝাপড়ায় আগ্রহী আমদানিকারকরা         পদ্মা সেতু নিয়ে বড়াই করা উচিত নয় ॥ ফখরুল         শিক্ষক ও বিমানবাহিনীর সদস্যসহ সড়কে প্রাণ গেল ১৫ জনের         প্রমাণ ছাড়া স্বাস্থ্যকর পুষ্টিকর বলে প্রচার করা যাবে না         ফখরুলের বক্তব্য নতুন ষড়যন্ত্রের বহির্প্রকাশ ॥ কাদের         প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতু         পাম তেল রপ্তানিতে ইন্দোনেশিয়ার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার         বাংলাদেশের কাছে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল বিক্রি করতে চায় রাশিয়া         রাজধানীতে ট্রাকে পণ্য বিক্রি করবে না টিসিবি         জাফরুল্লাহ চৌধুরীর ‘জাতীয় সরকার’ প্রস্তাবে বিব্রত বিএনপি         মঙ্গলবার আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইবেন সম্রাট