বৃহস্পতিবার ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মান্দায় আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানে দোয়া করলেন জামায়াত নেতা

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ, ২২ ফেব্রুয়ারি ॥ অমর একুশে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে আওয়ামী লীগের পুষ্পস্তবক অর্পণ অনুষ্ঠানে জামায়াত নেতাকে আমন্ত্রণ এবং ওই জামায়াত নেতাকে দিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুসহ ভাষা শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়ার করানোর বিষয়টি এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। ঘটনায় আওয়ামী লীগ দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে চরম অসন্তোষ ও চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে। তারা এমন অনাকাক্সিক্ষত ঘটনার জন্য উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোল্লা মোঃ এমদাদুল হক ও তার পৃষ্ঠপোষক স্থানীয় এমপি সরকারের বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী মুহা. ইমাজ উদ্দিন প্রামানিককে দায়ী করেছেন।

মোল্লা এমদাদুল হক মান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হলেও তিনি যে একজন স্বাধীনতার বিপক্ষের ঘরনার মানুষ, তা শহীদ মিনারে ফুল দিতে গিয়ে জামায়াত নেতাকে প্রকাশ্যে বুকে টেনে নিয়ে তাকে দিয়ে দোয়া-খায়ের করিয়ে নেয়ায় তিনি তা আবারও প্রমাণ করে দিলেন। ঠিক এমনই কথা-বার্তা এলাকার সর্বস্তরের মানুষের এখন মুখে মুখে ফিরছে। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে মান্দার আওয়ামী লীগের নেতৃত্বের প্রতি তৃণমূল নেতাকর্মীরা চরম ঘৃণা প্রকাশ করে। জানা গেছে, ঘটনার রাতে শহীদ মিনারে উপজেলা পরিষদের ফুল দেয়ার পর স্থানীয় আওয়ামী লীগ পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। ঠিক এমন সময় মান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোল্লা মোঃ এমদাদুল হক পাশেই উপজেলা চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা আব্দুর রশীদকে বুকে টেনে নিয়ে তাকে বেদিতে তোলেন এবং এবং শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় তাকে দিয়ে মোনাজাত করিয়ে নেন। শুধু তাই নয়। ওই অনুষ্ঠানে তিনি জাতির জনকের আত্মার শান্তি কামনার পাশাপাশি সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আত্মারও শান্তি কামনা করার নির্দেশ দেন তাকে। যদিও জামায়াত নেতা আব্দুর রশীদ জিয়াউর রহমানের নাম উল্লেখ করে দোয়া করেননি। এ বিষয়ে মান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক স ম জসিম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা, দীর্ঘ ৫৪ বছর ধরে আওয়ামী লীগ করছি। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আওয়ামী লীগ করে যাব। দিবসের প্রথম প্রহরে আওয়ামী লীগ ও তার সব সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে শহীদ মিনারে গিয়ে ফুলের তোড়া অর্পণ করি। মোনাজাতের সময় আওয়ামী লীগের সভাপতি মোল্লা মোঃ এমদাদুল হক হঠাৎ করে উপজেলা কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম থাকা সত্ত্বেও, জামায়াতের নেতা উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদের হাত ধরে তাকে মোনাজাত করতে বলেন। এ সময় আমিসহ দলের নেতাকর্মীরা বিস্মিত ও কিং কর্তব্য বিমূঢ় হয়ে পড়ি। অনেক মুক্তিযোদ্ধা মোনাজাত ছেড়ে চলে যান।

শীর্ষ সংবাদ:
সাভারে ৬ শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যা মামলার রায়ে ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড         রাঙ্গামাটির সাজেকে পুড়েছে রিসোর্ট, রেস্তোরাঁ ও বসতবাড়ি         সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় বৃদ্ধা আহত, চালক আটক         ডি কাপলড সিরিজে মাধবনের সঙ্গে দেখা যাবে মীরকে         ওমিক্রন পরিস্থিতি খারাপ হলে বন্ধ হতে পারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান         শুরু হলো এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা         ওসি প্রদীপসহ আসামিদের আত্মপক্ষ সমর্থনে সাফাই সাক্ষী দেয়ার সুযোগ         বেনজেমার একমাত্র গোলে রিয়াল মাদ্রিদের জয়         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৮ হাজার ১৭৬ জন         বন্দুকযুদ্ধে কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যার প্রধান আসামি শাহ আলম নিহত         গণমুখী প্রশাসন ॥ স্বাধীনতার ৫০ বছরে বড় অর্জন         ছাত্রদের কাজ লেখাপড়া, রাস্তায় নেমে যান ভাংচুর নয়         উন্নয়নে পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ         ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নেতৃত্বের ভূমিকায় থাকবে         ১১ খাতে বিপুল বিনিয়োগ আসার সম্ভাবনা         ঐতিহাসিক পার্বত্য শান্তি চুক্তিতে বদলে গেছে পাহাড়         রামপুরায় ছাত্র বিক্ষোভ, মতিঝিলে গাড়ি ভাংচুর         দেশের প্রথম বর্জ্য বিদ্যুত কেন্দ্র অবশেষে বাস্তবায়ন হচ্ছে         বাল্যবিয়ে রোধে কাজীদের সচেতন করতে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে         হত্যা মিশনে ব্যবহৃত গুলি-অস্ত্র উদ্ধার