রবিবার ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

গলাচিপায় সরকারী খাল প্রভাবশালীদের দখলে

  • জেলেরা বঞ্চিত ॥ মন্ত্রী-এমপির নির্দেশ উপেক্ষা

স্টাফ রিপোর্টার, গলাচিপা ॥ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার চরআগস্তি বিটের চরনজির বনাঞ্চলের অভ্যন্তরের খালগুলো লিজ দেয়ার ক্ষেত্রে এলাকার প্রকৃত গরিব জেলেদের বঞ্চিত করা হয়েছে। বন বিভাগের একশ্রেণীর কর্মকর্তা মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে প্রভাবশালীদের খালগুলো লিজ দিয়েছে এবং এক্ষেত্রে মন্ত্রী ও কয়েক এমপির নির্দেশ উপেক্ষা করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করা হয়েছে। প্রভাবশালীরা খালগুলো লিজ নিয়ে বিষ দিয়ে মাছ নিধনসহ গরিব জেলেদের ধরা মাছ লুটপাট করে নিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে অভিযোগ করেও গরিব জেলেরা কোন প্রতিকার পাচ্ছে না। ফলে প্রত্যন্ত চরে বাস করা গরিব জেলেরা দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে।

অভিযোগে বলা হয়েছে, রাঙ্গাবালী উপজেলার চরনজির বনাঞ্চলের অভ্যন্তরে অন্তত ২৫-৩০টি বড় খাল এবং ছোট ছোট অসংখ্য উপখাল ও সরুনালা রয়েছে। গলাচিপা উপজেলার চরনজির এলাকায় বসবাস করা বহু গরিব জেলে পরিবার রয়েছে, যারা বছরের পর বছর বন বিভাগের কাছ থেকে খালগুলো একসনা লিজ নিয়ে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে।

কিন্তু এ বছর অর্থাৎ গত চৈত্র মাস থেকে এলাকার প্রভাবশালী চক্র খালগুলো দখল নিতে মাঠে নামে। চরনজিরের গরিব জেলেরা অভিযোগ করেছে, তাদের অর্থাৎ গরিব জেলেদের নামে খালগুলো লিজ দেয়ার জন্য পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি, এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, মাহবুবুর রহমান এমপি ও পটুয়াখালী জেলা পরিষদের প্রশাসক খান মোশারেফ হোসেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়া গরিব জেলেদের পক্ষে রাঙ্গাবালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, গলাচিপা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ শীর্ষস্থানীয় অনেকেই সুপারিশ করেছেন। কিন্তু এসব নির্দেশ-সুপারিশ উপেক্ষা করে স্থানীয় বন কর্মকর্তারা খালগুলো প্রভাবশালীদের লিজ ও দখল দিয়েছেন। গরিব জেলেদের পক্ষে বারেক মৃধা অভিযোগ করেছেন, প্রভাবশালীরা খালগুলো লিজ নিয়ে বিষ দিয়ে অবাধে মাছ নিধন করছে। বিষের তীব্র প্রভাবে অবস্থা এত ভয়াবহ হয়ে উঠেছে যে, পানি পর্যন্ত ব্যবহার করা যাচ্ছে না। বিষ ছড়িয়ে পড়ছে সর্বত্র। একই এলাকার আরেক গরিব জেলে হামিরুল ফকির অভিযোগ করেছেন, বনের অভ্যন্তরের সরুনালাগুলোতেও তাদের মাছ ধরতে বাধা দেয়া হচ্ছে। প্রভাবশালীরা অতিসম্প্রতি তাদের সোয়া লাখ টাকার মাছ লুট করে নিয়ে গেছে এবং আরও অন্তত এক লাখ টাকার মাছ বিষ দিয়ে মেরে ফেলেছে। এ বিষয়ে তারা আদালতে মামলাও করেছেন। জেলে মনির ফকির, আঃ জলিল, আঃ ছত্তার, জাহাঙ্গীর সরদারসহ কয়েকজন অভিযোগ করেছেন, খালগুলোতে মাছ ধরতে না পেরে চরনজিরে শতাধিক জেলে পরিবার বর্তমানে অভাব অনটনে দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে।

এসব অভিযোগের বিষয়ে বন বিভাগের চরআগস্তি বিট অফিসার নারায়ণ চন্দ্র বিশ্বাস জানান, মন্ত্রী-এমপিদের নির্দেশের আগেই খালগুলো লিজ দেয়া হয়েছে। তারপরও জেলেরা যাতে মাছ ধরতে পারে, সে বিষয়টি সমন্বয় করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

শীর্ষ সংবাদ:
কালোবাজারি চলবে না ॥ তালিকা নিয়ে মাঠে নামছে রেল পুলিশ         বুঝেশুনে উন্নয়ন কাজের পরিকল্পনা নিতে হবে         বিএনপিকে নিয়ম মেনেই নির্বাচনে আসতে হবে ॥ কাদের         ঢাকায় আইসিসি প্রধানের ব্যস্ত দিন         দুদুকের মামলায় হাজী সেলিম কারাগারে         সিলেট নগরীর পানি নামছে ॥ সুনামগঞ্জ হাওড়বাসীর দুর্ভোগ         দুই সন্তানসহ স্ত্রী হত্যা ॥ স্বামী আটক         বিশ্বের সবচেয়ে দামী আম চাষ হচ্ছে দেশে         সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন পরিচয়ে প্রতারণা ॥ জামাই-শ্বশুর আটক         দেশে কালো টাকা ৮৯ লাখ কোটি, পাচার ৮ লাখ কোটি         সব ব্যাংকারদের বিদেশ ভ্রমণ বন্ধ করলো বাংলাদেশ ব্যাংক         সরকার পরিবর্তনের একমাত্র উপায় নির্বাচন ॥ কাদের         ভারত থেকে গমের জাহাজ এলো চট্টগ্রাম বন্দরে, কমছে দাম         কারাগারে হাজী সেলিম, প্রথম শ্রেণির মর্যাদা         অর্থনীতি সমিতির ২০ লাখ ৫০ হাজার কোটি টাকার বিকল্প বাজেট পেশ         কোভিড-১৯ : ভারত-ইন্দোনেশিয়াসহ ১৬ দেশের হজযাত্রীদের দুঃসংবাদ         বাইডেনসহ ৯৬৩ মার্কিন নাগরিকের রাশিয়া প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা         পেছাচ্ছে না ৪৪তম বিসিএস প্রিলি         পরিবেশ রক্ষায় যত্রতত্র অবকাঠামো করা যাবে না ॥ প্রধানমন্ত্রী         রাজধানীর গুলশানে দারিদ্র্য কম, বেশি কুড়িগ্রামের চর রাজিবপুরে