শুক্রবার ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মাটির সঙ্গে সম্পর্ক ছাড়ছে কুমাররা

একটা সময় ছিল যখন গ্রামীণ পরিবারের পাশাপাশি শহুরে জীবনেও সংসারের প্রয়োজনীয় জিনিস বলতে ছিল মাটির হাড়ি-পাতিল, কলস, কড়াই, ঢাকনা, সরাই, সানকি থেকে শুরু করে দইয়ের পাত্র। নব্বইয়ের দশকেও গ্রামের বাড়ি বাড়ি দেখা মিলেছে মাটির হাড়ি-পাতিলের।

পবার বাগধানি এলাকার মৃৎশিল্পী সরেন পাল জানান, তাদের এলাকায় হাড়ি ও খেলনা তৈরি হয়। এসবও মৌসুমভিত্তিক হয়ে গেছে। তিনি বলেন, সব পেশার মানুষের জন্য ক্ষুদ্র ঋণের ব্যবস্থা আছে। অথচ তারা এ থেকে বঞ্চিত। রাজশাহীর পবা উপজেলার আরেকটি গ্রাম বসন্তপুর। ওই গ্রামের ৫০ পরিবার এ পেশায় জড়িত। তবে নানা কারণে তারাও এ পেশা থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে। এ গ্রামে ২৭ বছর ধরে এ পেশা ধরে রেখেছেন সুশান্ত কুমার পাল। এরই মধ্যে অনেক পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি। জাপানে গিয়েও মাটির কারুকাজ রপ্ত করে এসেছেন। কথা হয় তাঁর সঙ্গে। তিনি জানান, এখনও তিনি ও তাঁর পরিবার ধরে রেখেছেন এ পেশা। বাড়ির সবাই মিলে কাজ করেন। ঝিমিয়ে পড়া এ গ্রামটিতে নতুন করে হাওয়া লেগেছে। প্রথমবারের মতো প্রশিক্ষণের মাধ্যমে শখের হাড়ি, মুখোশ, মাটির পুতুল, পঞ্চসাজি, তৈরি করা হচ্ছে। এবার এ কাজে যুক্ত হয়েছে নতুন প্রজন্মের শিশুরাও। তারাও তৈরি করছে মাটির পুতুল থেকে শুরু করে হাতি, ঘোড়া, পাখি, কলস, বাটি-ঘটি।

সুশান্ত কুমার পাল বলেন, সময়ের পরিবর্তনে মাটির তৈরি সামগ্রীর প্রয়োজন ফুরিয়েছে। টিকে আছে শুধু শখ। বংশপরম্পরায় শিল্পটির সঙ্গে জড়িয়ে ছিল যাদের নাম, তাদের মধ্যেই এখন চলছে পেশাবদলের হিড়িক। মাটি-কাদার সম্পর্ক ছেড়ে কেউ বেছে নিচ্ছে কৃষি শ্রমিকের পেশা। কেউ রিকশা-ভ্যান চালিয়ে জীবিকার সংগ্রামে ব্যস্ত।

-মামুন-অর-রশিদ

রাজশাহী থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
শনিবার গ্যাস থাকবে না রাজধানীর যেসব এলাকায়         আজ দ্বিতীয় ধাপের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত         সারাদেশে চলছে ভোটার তালিকার হালনাগাদ         দৌলতখানে বাবা-ছেলে চেয়ারম্যান প্রার্থী         আফগানিস্তানে নারী উপস্থাপকদের অবশ্যই মুখ ঢাকতে হবে, নির্দেশ তালিবানের         শাহজালালে ৯৩ লাখ টাকার স্বর্ণসহ যাত্রী আটক         আগামী ২৯ মে চালু হচ্ছে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে যাত্রীবাহী ট্রেন         যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ইউরোপে ছড়িয়ে পড়ছে বিরল যে রোগ!         কৃষিজমি ৬০ বিঘার বেশি হলে সিজ করবে সরকার         ‘মুজিব’ বায়োপিকের ট্রেলার প্রকাশ         সিলেটে উজানের ঢলে ভাঙলো ৩ নদীর মোহনার ডাইক         পাকিস্তানি মুদ্রার ১ ডলার কিনতে লাগছে ২শ রুপি         জড়িত ৮৪ রাঘববোয়াল ॥ পি কে হালদারের অর্থপাচার         স্বপ্নের পদ্মা সেতুর নাম পরিবর্তন হবে না         এবার উল্টো পথে ডলার ॥ ৯৬ টাকায় নেমেছে         কোরানে হাফেজ হয়েও পেশা চুরি !         সিলেটে ২০ লাখ মানুষ পানিবন্দী দুর্ভোগ চরমে         চট্টগ্রামে ড্র করেই সন্তুষ্ট মুমিনুলরা         গ্যাসের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা আসতে পারে এ মাসেই