ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

ধামরাইয়ে সাংবাদিকের বাড়িতে হামলা, থানায় অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, ধামরাই

প্রকাশিত: ২২:৩৭, ৩ অক্টোবর ২০২৩

ধামরাইয়ে সাংবাদিকের বাড়িতে হামলা, থানায় অভিযোগ

ধামরাই থানা।

ঢাকার ধামরাইয়ে মো. মাসুদুর রহমান (৪৫) নামে এক সাংবাদিকের বাড়িতে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় ওই সাংবাদিকের ছেলে ও স্ত্রীসহ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

সোমবার (২ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার সুতিপাড়া ইউনিয়নের সুতিপাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। পরে ধামরাই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন ওই ভুক্তভোগী সাংবাদিক। 

ভুক্তভোগী মো. মাসুদুর রহমান ধামরাইয়ের সুতিপাড়া ইউনিয়নের সুতিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। তিনি দৈনিক মুক্ত খবর পত্রিকায় কর্মরত আছেন।

অভিযুক্তরা হলেন- আব্দুর রহিম চেনু (৫৫), সোহাগ হোসেন (২৫), ইমন (২১), শুভ (২২), তুহিন (২৫), মঞ্জরুলসহ (২৩) আরও ৫-৬ জন। তারা সবাই একই এলাকার বাসিন্দা।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পূর্ব শত্রুতা ও বিরোধের জেরে বিভিন্ন প্রকারের দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ভুক্তভোগীর বাড়িতে হামলা চালায় অভিযুক্তরা। তারা ভুক্তভোগীর ছেলেকে রড দিয়ে মারধর করে। ছেলের চিৎকার শুনে পরিবারের অন্য সদস্যরা এগিয়ে এলে তারাও হামলার শিকার হন। চিৎকার শুনে আশপাশের প্রতিবেশীরা এসে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। তবে বাড়িতে না থাকায় হামলা থেকে বেঁচে যান ওই সাংবাদিক। 

মো. মাসুদুর রহমান বলেন, ‘আমার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। তিনি সবসময় স্থানীয়দের পাশে থাকতেন। তাকে মুরুব্বি হিসেবে সবাই মানতেন। বাবার মৃত্যুর পর স্থায়ীভবে বাড়িতে বসবাস শুরু করি। বিভিন্ন সময় লোকজন আমার কাছে সহযোগিতার জন্য আসেন। এছাড়া অভিযুক্তরা সবাই স্থানীয় বিরোধী রাজনৈতিক দলের ক্যাডার ও মাদকাসক্ত। এসব নিয়ে প্রতিবাদ করায় তারা আমার ওপর ক্ষুব্ধ। তারা আমার সন্তানসহ পরিবারকে মারধর করে। আমি তখন বাড়ি ছিলাম না। বিষয়টি শুনে আমি পুলিশের সহযোগিতা নেই ও থানায় অভিযোগ করি।’

অভিযোগের তদন্ত কর্মকর্তা ধামরাই থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) হুমায়ুন বলেন, ‘ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় দুই পক্ষের মধ্যে বিবাদ হয়েছিল। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এম হাসান

×