ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০

রাজশাহী চিড়িয়াখানায় ডিম দিয়েছে বিপন্ন প্রজাতির ঘড়িয়াল

​​​​​​​স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী

প্রকাশিত: ২১:২৭, ১৯ মার্চ ২০২৩

রাজশাহী চিড়িয়াখানায় ডিম দিয়েছে বিপন্ন প্রজাতির ঘড়িয়াল

চিড়িয়াখানায় পাওয়া ঘড়িয়ারের ডিম (ইনসেটে) ঘড়িয়াল জুটি

শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান বোটানিক্যাল গার্ডেন চিড়িয়াখানার ঘড়িয়াল ফের ডিম দিয়েছে। ছয় বছর আগে চিড়িয়াখানায় দুটি ঘড়িয়ালের জুটি তৈরি করা  হয়। প্রত্যাশা ছিল ঘড়িয়ালটি ডিম দেবে। এর মধ্য দিয়ে বিলুপ্তপ্রায় প্রাণীটির বংশবিস্তার ঘটবে। এজন্য রাজশাহী কেন্দ্রীয় উদ্যানে ঘড়িয়ালের প্রজনন উপযোগী পরিবেশও তৈরি করা হয়। 

এর আগে গেল বছরও স্ত্রী ঘড়িয়ালটি ডিম দিয়েছিল। তবে শেষ পর্যন্ত তা রক্ষা করা যায়নি। তবে রবিবার সকালে রাজশাহী সিটি মিউজিয়াম আর্কাইভের কিউরেটর এবং চিড়িয়াখানার সাপ্তাহিক তদারককারী মো. আনারুল হক আনা ঘড়িয়ালের সেই ডিমের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ব্রিটিশ আমলে ঘোড়দৌড় মাঠেই রাজশাহীর কেন্দ্রীয় পার্ক স্থাপনের পর তৎকালীন বাণিজ্যমন্ত্রী এএইচএম কামারুজ্জামান ১৯৭৩ সালের ২৮ জুলাই এটি উদ্বোধন করেন। নামের পর্যায়ক্রমিক পরিবর্তনের মাধ্যমে তা এখন শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান বোটানিক্যাল গার্ডেন চিড়িয়াখানা। তিনি জানান, সম্প্রতি এই ঘড়িয়ালের প্রজনন বা বংশবৃদ্ধির জন্য পদক্ষেপ নেয় রাজশাহী সিটি করপোরেশন। ঘড়িয়ালের জলাশয়ে খাঁচার দক্ষিণাংশে বালুচর তৈরি করা হয়েছে। যাতে ঘড়িয়াল সেখানে উঠে রোদ পোহানোর সুযোগ পায় ডিম পাড়তে পারে। 

গত শুক্রবার সকাল ৯টার পর তদারকির দায়িত্বপ্রাপ্ত কিউরেটর আনারুল হক চিড়িয়াখানার কর্মচারী শামসুল আলমগীরকে সঙ্গে নিয়ে সেখানে খাবার দিতে গিয়ে দেখতে পান ভাঙাচোরাসহ আস্ত কয়েকটি ডিম। বালুচরায় নয়; মাঝখানের মেটে ঢিবির জলের ধারেই ডিমগুলো পেড়েছে ঘড়িয়াল। প্রথমে শামসুল আলমগীর ডিমগুলো দেখে ওপরে দাঁড়িয়ে থাকা আনাকে দেখান। আনা নেমে যেতেই স্ত্রী ঘড়িয়ালটি তেড়ে আসে তাদের দিকে।

পরে চিড়িয়াখানার সুপারভাইজার আবুল কালাম আজাদ, কর্মচারী বাবরসহ অন্যদের সহযোগিতায় আটটি ডিম উদ্ধার করে অফিসে নিরাপদে রাখা হয়। এবারই রাজশাহীতে সর্বপ্রথম ঘড়িয়ালের ডিম সংগ্রহ করা হলো। ডিমগুলো থেকে বাচ্চা ফোটানো হবে। প্রায় ৩৫ বছর আগে থেকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় উদ্যানে দুটি ঘড়িয়ালের বসবাস।

×