২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সন্তানের অর্জনেই গর্বিত হন মা- প্রতিষ্ঠা পান সমাজে


স্টাফ রিপোর্টার ॥ মায়ের চোখে প্রতিটি সন্তানের স্বপ্ন রচিত হয়। মূলত মায়ের স্বপ্নই সন্তানের হাত ধরে বাস্তব রূপ পায়। সন্তান নারীর শরীরের একটি অংশমাত্র, নিঃস্বার্থ ভালবাসায় সন্তানের কষ্ট একমাত্র মা-ই পরিপূর্ণভাবে উপলব্ধি করতে পারেন। সন্তানের অর্জনে মা গর্বিত হন, স্বপ্নজয়ী মা রূপে সমাজে প্রতিষ্ঠা পান। নারীর প্রতি সুন্দর আচরণই মায়ের প্রতি শ্রদ্ধার প্রকাশ। আকাশসম অতুলনীয় অবদানের জন্য মা তথা প্রতিটি নারীকেই সম্মান করতে হবে।

রবিবার বিকেলে রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেনে মহিলা অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে ‘স্বপ্নজয়ী মা’দের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন। বিশ্ব মা দিবস উপলক্ষে মহিলা বিষয়ক অধিদফতর এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে ১৫ জন স্বপ্নজয়ী মা’কে সম্মাননা প্রদান করা হয়। যাদের সন্তানরা সমাজের উচ্চতর ও স্ব স্ব কর্মক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত। মহিলা অধিদফতরের মহাপরিচালক সাহিন আহ্মেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেনÑ মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি, মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক শাহনওয়াজ দিলরুবা খান ও স্বপ্নজয়ী মায়ের সন্তান ড. মোঃ শহীদুল্লাহ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেন, মা এমন একটি শব্দ যা মুখ থেকে আপনাআপনি চলে আসে, জোর করে বলতে হয় না। আসলে এটা নাড়ির টান। সন্তান নারীর শরীরের একটি অংশ মাত্র। মা সন্তানের যে কোন কষ্ট গভীরভাবে দেখতে পায়। যাদের মা জীবিত আছেন, তারা ভাগ্যবান। তারা যেন মাকে ঠিকমতো সম্মান করেন, সঠিকভাবে মায়ের যতœ নেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে অনেক মায়ের মৃত্যু হয়। আজকের দিনে আমাদের প্রত্যাশাÑ বাংলাদেশের একটি মাও যেন শিশু জন্মের সময় মৃত্যুবরণ না করেন। মা’দের উদ্দেশে তিনি বলেন, প্রতিটি মাকে বলব সন্তানের প্রতি আরও বেশি নজর দিতে। শুধু ভালবাসা-স্নেহ নয়, সন্তানের প্রতি বিশেষ নজর দিতে হবে। সব সন্তানই প্রতিটি ক্ষেত্রে প্রথম হবে তা সম্ভব নয়, তবে সন্তান যেন মানুষের মতো মানুষ হয়। গরিবের দুখে তারা যেন দুখী হয়, ব্যথিত হয়। তিনি আরও বলেন, সকল বড় কিছুর সঙ্গে মায়ের তুলনা করি। দেশকে মা বলি। ভাষাকে মায়ের ভাষা বলি। স্ত্রী একজন মা, সে আপনার সন্তানের মা, তার প্রতিও সুন্দর আচরণ করতে হবে। প্রতিটি নারীর প্রতি সুন্দর আচরণই মায়ের প্রতি শ্রদ্ধার প্রকাশ। সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি বলেন, মা কিন্তু নিজের চাওয়া-পাওয়া নিয়ে ভাবেন নাÑ সন্তানের অর্জনে, সন্তানের গৌরবে গৌরবান্বিত হন। তবে কোন কোন সন্তান রয়েছেন বড় হয়ে মায়েদের পরিচয় দিতে কুণ্ঠাবোধ করেন। তাদের এই বিকৃত মানসিকতা সমাজের অকাম্য। মায়ের যে পরশ, মায়ের যে ভালবাসা তার কোন তুলনা হয় না। স্বাগত বক্তব্যে শাহনওয়াজ দিলরুবা খান বলেন, মায়ের চোখেই আমরা স্বপ্ন দেখেছি।

প্রত্যেকটা মা-ই তার সন্তানকে নিয়ে স্বপ্ন দেখেন। আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের মায়েরাও যেন স্বপ্নজয়ী মা রূপে অবির্ভূত হন। স্বপ্নজয়ী মায়ের সন্তানদের প্রতিনিধি ড. মোঃ শহীদুল্লাহ বলেন, মা আমাদের পড়াশোনার জন্য কোন চাপ দিতেন না। তিনি কোনদিন বলেননিÑ পড়তে বসো। তারপরও আমরা মায়ের স্বপ্নেই এগিয়ে চলেছি।