১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দুই বছরের শিশুকে বুকের দুধ খাইয়ে বাঁচাল কুকুর


খাবার ও পানি ছাড়া দু’বছরের শিশুকে একা ফেলে রেখে চলে গেছে এক মাদকাসক্ত মা। তাই খিদের জ্বালায় ঘরের বাইরে বেরিয়ে গিয়েছিল সেই দু’বছরের শিশু। ছোট্ট শিশুর কান্না মন ছুঁয়ে যায়নি কোন মানুষের। সবাই অবহেলা করলেও অবহেলা করেনি একটি কুকুর। মানবিকতা যেখানে শেষ হয়, সেখান থেকেই অনেক সময় দেখা যায় অবলা জীবরা তাদের স্নেহ-ভালবাসার ছাপ রাখা শুরু করে। সেই কুকুরটি আবার মা হতে চলেছে। হবু সারমেয় মা বুকে টেনে নেয় মানুষের সন্তানকে। কুকুরটি নিজের বুকের দুধ খাইয়ে বাঁচিয়ে রাখে ওই দু’বছরের শিশুটিকে। ঘটনাটি ঘটেছে চিলির রাজধানী সান্টিয়াগো থেকে ১,২৪০ মাইল দূরে মরু বন্দর আরিকায়। বেশ কয়েকদিন ধরেই একেবারে নিজের সন্তানের মত শিশুটিকে আগলে রাখে কুকুরটি। সাধারণ মানুষ শিশুটিকে দেখলেও একেবারে আমল দেয়নি। তবে দু’একজন পুলিশকে খবর দেয় হাসপাতালের পাশে এক গ্যারেজে একটা কুকুর নাকি একটা শিশুকে আগলে রাখছে। কদিন পর পুলিশ গিয়ে খোঁজ করতেই অবাক হয়ে যায়। তারপর শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকরা জানান, শিশুটি অপুষ্টিতে ভুগলেও, তার বেঁচে থাকার একমাত্র কারণ কুকুরের স্নেহ-ভালবাসা। এই কদিন খাবার না পেলে শিশুটিকে বাঁচানো অসম্ভব হত বলেও তারা জানান। - ডেইলি মেইল।