মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৫ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

মুন্সীগঞ্জে ইতি হত্যার আসামী গ্রেফতারে মানববন্ধন

প্রকাশিত : ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ০৫:৩৫ পি. এম.
মুন্সীগঞ্জে ইতি হত্যার আসামী গ্রেফতারে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জে গৃহবধূ ইতি আক্তারের (২২) হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে সমাবেশ ও মানববন্ধন হয়েছে। শহরের জুবলী রোডে রবিবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে এ মানববন্ধনে শহরের হাটলক্ষীগঞ্জ এলাকার নিহতের স্বজন ও এলাকার শতশত নারী-পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধন চলাকালে নিহত ইতি আক্তারের মা নিলুফা ইয়াসমিন বলেন, গত ৩ রা সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে গজারিয়াকান্দি গ্রামের স্বামীর বাড়িতে তার মেয়েকে হত্যা করার পর এখন হত্যাকারীরা মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকি ও নিহতের ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন ভিন্ন দিকে নেয়ার চেষ্ঠা চলাচ্ছে। এতে তারা মামলার ভবিষ্যত নিয়ে শঙ্কিত হয়ে পড়েছে। এছাড়াও ঘাতক স্বামীকে গ্রেফতারের দাবীতে বক্তব্য রাখেন ইতির বোন নাজমা বেগম ও ফুফু রাহিমা বেগম।

৪ সেপ্টেম্বর রাতে ঘাতক স্বামী ফরিদ সরকার, শ্বশুর সোলেমান সরকার, দেবর বাহাউদ্দিন সরকারসহ ৪ জনকে আসামি করে নিহতের বাবা শফিউদ্দিন শেখ বাদী হয়ে সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

গত ৩ বছর আগে গজারিয়াকান্দি গ্রামের সোলায়মান সরকারের ছেলে ফরিদ সরকারের সঙ্গে শহরের হাটলক্ষীগঞ্জ গ্রামের শফিউদ্দিন শেখের ছোট মেয়ে ইতি আক্তারের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর যৌতুকের দাবিতে স্বামী, শ্বশুর, শ্বাশুড়িরা মিলে চাপ প্রয়োগ ও নির্যাতন শুরু করে। এ নিয়ে একাধিকবার বিচার সালিশ হয়। সর্বশেষ ১৫-১৬ দিন আগে এলাকার মহসিন মেম্বারের হস্তক্ষেপে সালিসী বৈঠকের পর ইতি আবার স্বামীর বাড়ি ফিরে যায়। এরপর গত ২রা সেপ্টেমর স্বামী ও স্বামীর বাড়ির লোকজন আবার নির্যাতন শুরু করে। এ ঘটনা সহ্য করতে না পেরে ৩ সেপ্টেম্বর রাত ১০ টার দিকে ইতি তার বড় বোন আখি আক্তারকে মোবাইল ফোন এ নির্যাতনের কথা জানায়। বোনকে জানায় নিয়ে যেতে। কিন্তু এই রাতেই ইতিকে নির্যাতন ও শ্বাসরোধে হত্যা করে স্বামী ও স্বামীর স্বজনরা হত্যা করে। পরদিন ৪ সেপ্টেম্বর দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে স্বামীর বাড়ির ঘরের ফ্লোর থেকে ইতির লাশ উদ্ধার করে।

প্রকাশিত : ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ০৫:৩৫ পি. এম.

০৬/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: