মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

চরফ্যাশনে নিষিদ্ধ ওষুধ দিয়ে চলছে গরু মোটা তাজা করণ

প্রকাশিত : ৩০ আগস্ট ২০১৫, ০৫:০৬ পি. এম.

নিজস্ব সংবাদদাতা, চরফ্যাশন॥ ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে অতিরিক্ত মুনাফা লাভের আশায় ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার বিভিন্ন এলাকার অর্ধ শতাধিক গরু খামারীরা মানবদেহের জন্য মারাতœক ক্ষতিকর ডেক্্রামেথাসন, ডেক্্রাভেট, ও বাংলাদেশে নিষিদ্ধ ঘোষিত সিপ্্েরাহেপ্টাডিন নামক ট্যাবলেট ও ইনজেকশন প্রয়োগ করে গরু মোটাতাজা করণ পদ্ধতি শুরু করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঈদের আগে ভাগে এসব গরু গুলোকে বাজারজাত করা হবে। তবে খামার মালিকরা এসব অভিযোগ অস্বীকার করছেন।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. হিরন্ময় দাস বলেন, খামারীরা কোরবানী ঈদের ২/৩ মাস পুর্বে দুর্বল প্রকৃতির গরু কম দামে বিভিন্ন বাজার থেকে ক্রয় করে অতিরিক্ত মুনাফা লাভের আশায় নিষিদ্ধ ঘোষিত ওষুধ গরুকে প্রয়োগ করে। ফলে গরুর লিভার, ফুসফুস সহ চামড়ার নিচে পানি জমে অল্প সময়ে মোটা তাজা হয়ে যায়। এসকল গরু গুলোর মাংস ভক্ষণ করলে মানুষের ও একই ধরনের রোগ হওয়ার সম্ভবনা থাকে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও প. প. কর্মকর্তা ডা. ছিদ্দিকুর রহমান বলেন, এসকল গরুর গোশত খেলে মানুষের লিভার, কিডনি, হার্ট ও ফুসফুসে পানি জমে শারিরীক ওজন বেড়ে যাওয়া ও স্থায়ী ভাবে অসুস্থ্য হওয়ার ঝুকি সহ ডায়াবেটিস রোগ দেখা দিতে পারে।

চরফ্যাশন উপজেলা নিবার্হী অফিসার রেজাউল করিম বলেন, শিঘ্রই প্্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাসহ ওইসব খামারে অভিযান করা হবে।

প্রকাশিত : ৩০ আগস্ট ২০১৫, ০৫:০৬ পি. এম.

৩০/০৮/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: