ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০

শিরোপা জিততে চান মিরাজ-জাকের দু’জনেই

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:৩০, ১ মার্চ ২০২৪

শিরোপা জিততে চান মিরাজ-জাকের দু’জনেই

ফরচুন বরিশালের মেহেদি হাসান মিরাজ ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের জাকের আলী অনিক

বরিশালে জন্ম, কিন্তু বেড়ে উঠেছেন খুলনায়। মেহেদি হাসান মিরাজ এবার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) শিরোপা জিততে চান জন্মস্থান বরিশালের হয়ে। আজ ফাইনালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষেস মুখোমুখি হবে ফরচুন বরিশাল। অধিনায়ক না হলেও তামিম ইকবালের অনুপস্থিতিতে মিরাজ ঐতিহাসিক নিদর্শন আহসান মঞ্জিলের সামনে হওয়া বিপিএল ট্রফির ফটোসেশনে ছিলেন। ওই সময় তিনি শিরোপা জয়ের আশা ব্যক্ত করেন।

বুধবার রাতে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচ শেষ করে গভীর রাতে টিম হোটেলে ফেরার পর দলীয় উদযাপনের জন্যই এই ট্রফি নিয়ে ফটোসেশনে যাননি বরিশাল অধিনায়ক তামিম। এ ছাড়া দূরত্বের কারণে যাওয়া-আসার লম্বা সময় বিবেচনা করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের অধিনায়ক লিটন কুমার দাসও যাননি। তার পরিবর্তে উইকেটরক্ষক ব্যাটার জাকের আলী অনিক করেছেন ফটোসেশন। এ সময় জাকের জানিয়েছেন, ফাইনাল খেলতে অভ্যস্ত কুমিল্লা অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে সেরা পারফর্ম করবে।

সর্বাধিক ৪ বার (২০১৫, ২০১৯, ২০২২ ও ২০২৩) শিরোপা জিতেছে কুমিল্লা। এই চারবারই তারা ফাইনাল খেলেছে। অর্থাৎ ফাইনালে উঠলে শিরোপা জিতে কুমিল্লা। এবারও সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে উন্মুখ তারা। বিপিএল ট্রফির ফটোসেশনে উপস্থিত কুমিল্লার উইকেটরক্ষক জাকের এ বিষয়ে বলেছেন, ‘একটা জিনিস হচ্ছে কুমিল্লা এসব বড় ম্যাচ খেলে অভ্যস্ত। দল হিসেবে আমরা জানি কীভাবে বড় পারফর্ম্যান্স করতে হয়। ওইদিকেই মনোযোগ থাকবে। ওই অনুযায়ী খেলার চেষ্টা করব।’

প্রতিপক্ষ ফরচুন বরিশালকেও ২০২২ সালের ফাইনালে হারিয়েছে কুমিল্লা। এবারও সেই একই প্রতিপক্ষ মাঝের একটি আসর বাদ দিয়ে। জাকের প্রতিপক্ষ নিয়ে বলেছেন, ‘যেহেতু ফাইনাল ম্যাচ অবশ্যই বরিশাল দল অনেক ভালো খেলেই ফাইনালে এসেছে। আমরা প্রতিপক্ষ হিসেবে সবসময় সব দলকে সম্মান করি। ফাইনালেও এর ব্যতিক্রম থাকবে না। আমরা সবসময় চেষ্টা করি আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলতে। ফাইনালেও আমরা সেরা ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করব।’

২০১৫ সালে বরিশাল বুলস এবং ২০২২ সালে ফরচুন বরিশাল ফাইনালে কুমিল্লার বিপক্ষে খেলে চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি। একবার করে সিলেট স্ট্রাইকার্স ও ঢাকা ডায়নামাইটসও পারেনি তাদের বিপক্ষে। ফাইনালে উঠে কখনোই হারেনি কুমিল্লা। এবারর  বরিশালের তৃতীয় সুযোগ কুমিল্লাকে হারিয়ে দেওয়ার। দলের অন্যতম অলরাউন্ডার মিরাজ বলেছেন, ‘কখনো বিপিএলে ট্রফি জেতেনি। যদি চ্যাম্পিয়ন হতে পারি, এবারই প্রথম চ্যাম্পিয়ন হবো। এর আগে দুবার ফাইনাল খেলেছি, এটা নিয়ে তৃতীয়বার হবে।

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্যই খেলব। সবাই চায় চ্যাম্পিয়ন হতে, ফুমিল্লাও চায়। মাঠে যারা ভালো খেলবে, তারাই জিতবে।’ জমজমাট ফাইনালের আশা করছেন মিরাজ। তার মতে দুই দলই যথেষ্ট শক্তিশালী। তিনি বলেছেন, ‘এর আগেও বরিশাল-ফুমিল্লা ফাইনাল হয়েছে, সেবার বরিশাল ১ রানে হেরেছে। আশা করছি, আবার ভালো একটা ম্যাচ হবে, সবাই উপভোগ করবে। কুমিল্লা সব সময়ই অনেক বড় দল, তারা অনেক ভালো দল সব সময়ই গড়ে। প্রতিপক্ষ হিসেবে চ্যালেঞ্জিং হবে, সহজ হবে না।

দুই দলের খেলাটা ভালো হবে। কারণ আমাদের দলও অনেক শক্তিশালী। আমাদের দলেও অভিজ্ঞ খেলোয়াড় আছে, দেশের বাইরের যারা আছে তারাও খুব ভালো খেলোয়াড়।’ জন্মের পর বরিশালেই বছর তিনেক ছিলেন মিরাজ এবং পরে খুলনায় থেকে ক্রিকেটার হিসেবে গড়ে উঠেছেন। এখনো নানী-দাদী, চাচা, খালারা বরিশালে আছেন। তাই জন্মস্থানের হয়ে এবার শিরোপা ছুঁয়ে দেখতে চান মিরাজ।

×