ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

ফ্যাশনের অনুষঙ্গ সুগন্ধী

জলি রহমান

প্রকাশিত: ২০:১১, ২৬ মে ২০২৪

ফ্যাশনের অনুষঙ্গ সুগন্ধী

.

কখনো বৃষ্টির হিমেল বাতাস, কখনো রোদের তীব্র তাপপ্রবাহ। হয়তো ভোরের আবহাওয়ায় মনে হবে আজ সারাদিন ঘুরবো। আবার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মনে হবে অসহনীয় গরম আজ আর বাহিরে যাওয়া যাবে না। কিন্তু যাদের কোনো অপশন নেই। রোদ, বৃষ্টি, বন্যা যাই হোক জীবিকার প্রয়োজনে যেতেই হবে কর্মক্ষেত্রে। তাদেরই যত বিপত্তি। এজন্য গরমে স্বস্তি পেতে পোশাকের সঙ্গে ভাবতে হয় আনুষঙ্গিক নানা জিনিস নিয়েও। অতিরিক্ত গরমে ঘর্মাক্ত শরীর দুর্গন্ধ ছড়ায় সহজেই। এই দুর্গন্ধ থেকে মুক্তি পেতে আমাদের কাছে খুব প্রিয় সুগন্ধী বা পারফিউম। ধরুণ আপনার কর্মক্ষেত্রে অনেকেই পাশাপাশি বসে কাজ করেন। এক্ষেত্রে যদি আপনার শরীর বা জামা-কাপড় থেকে দুর্গন্ধ ছড়ায়। তা অন্যের কাছে বিরক্তির কারন হতে পারে। তাই কর্মক্ষেত্র হোক বা ঘুরতে যাওয়া পারফিউম বা বডি স্প্রে ব্যবহার করা একান্ত প্রয়োজন। 

প্রাচীনকালে শুধু বিত্তবানরাই এগুলো ব্যবহার করতেন। তবে সময়ের স্রোতে এটি ব্যবহারে কোনো শ্রেণিভেদাভেদ নেই। বিক্রি করার ক্ষেত্রেও নির্দিষ্ট কোনো স্থানে সীমাবদ্ধ নেই। এসি মার্কেট থেকে রাস্তার ফুটপাত সর্বত্রই চলছে এর বেচাকেনা। আবার বয়স্করা ব্যবহার করছে আতর। এটাও এক ধরণের সুগন্ধী। আজকাল মসজিদের সামনেও অনেক সুগন্ধী বিক্রি করতে দেখা যায়। একটু স্বল্পমূল্যে কেনা যায় বিধায় ধনী-গরিব নির্বিশেষে সবাই ব্যবহার করছেন। তবে আধুনিক সভ্যতায় টিনএজ থেকে মধ্যবয়সী তরুণ-তরুণীরা ঝুঁকছে নামি-দামি ব্র্যান্ডের পারফিউম বা বডি স্প্রের দিকে।

মার্কেট ঘুরে দেখা যায়, বাংলাদেশের বডি স্প্রে মূলত লাফজ এবং কুল। ছেলেদের কাছে কুলের বেশ চাহিদা। এগুলো ৩০০ টাকার মধ্যেই পাওয়া যায়। এছাড়াও ফ্রান্স, দুবাই, স্পেন সুইজারল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করা হয়। বিদেশী বডি স্প্রের দাম একটু বেশি হলেও এর চাহিদা বেশি। তবে যারা দেশী পণ্য কিনতে পছন্দ করেন, তারা বেশ স্বাচ্ছন্দ্যেই কিনে নিচ্ছেন দেশী বডি স্প্রে এবং পারফিউম। তবে পারফিউমের দাম এবং স্থায়িত্ব দুটিই বেশি। দেশী পারফিউম কিউট। এর রয়েছে চারটি ভ্যারিয়েন্ট। এরমধ্যে একটি ভ্যারিয়েন্ট রোমান্টিক, যা বেশি চলছে। আরেকটি পারফিউম সুইস লাইম। এরও কদর রয়েছে। দেশী কোম্পানি স্কয়ার তৈরি করে জোনাকি পারফিউম। এর দাম একটু বেশি, তাই এটি কিনতে চাইলে যেতে হবে যেকোনো বড় মার্কেটে। কিছু সুগন্ধী পারফিউম এবং বডি স্প্রে দুটোর কাজই করে। বর্তমানে বেশ চলছে ফগ। এটি ছেলে-মেয়ে উভয়েই ব্যবহার করছে।

আবার বিদেশী এ্যাক্টিভ ওমেন, যা শুধু নারীদের জন্যই। শুধু ছেলেদের জন্য রয়েছে ওয়ান ম্যান শো। সাধারণত পারফিউম পাওয়া যায় ৯০০ থেকে ১৫০০ টাকার মধ্যেই। আর বডি স্প্রে পাওয়া যাবে ৩০০ পঞ্চাশ থেকে ৪০০ পঞ্চাশের মধ্যেই। তবে ফ্রান্স দুবাই থেকে আমদানিকৃত বডি স্প্রের দাম ৬০০ থেকে শুরু করে লাখের ওপরে। যদিও এগুলো বড় বড় শপিং সেন্টার ছাড়া পাওয়া যায় না। এই গরমে নিজেকে আরও ফ্যাশনেবল করতে অবশ্যই ব্যবহার করুন বডি স্প্রে। নিজের ব্যক্তিত্ব ফুটিয়ে তুলতে ঘর্মাক্ত শরীরকে শত ব্যস্ততার মধ্যেও রাখতে হবে  ফ্রেস। যার একমাত্র উপায় বাসা থেকে বের হলে বডি স্প্রে দেওয়া। যাদের বডি স্প্রেতে অনীহা আছে তারা ব্যবহার করুন পারফিউম। এতে অন্যরা নিশ্বাসের মাধ্যমে টের পায় আপনার উপস্থিতি। একজন রূপ বিশেষজ্ঞ জানালেন, বাইরে যাওয়ার ২০ মিনিট আগে সুগন্ধী ব্যবহার করা উচিত। তবে যেসব জায়গায় রক্তের সঞ্চালন বেশি বা তুলনামূলক উষ্ণ, সেসব জায়গায় সুগন্ধী স্প্রে করলে সারা দিন ধরে সুরভিত থাকা যায়।

×