ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১

মিয়ানমার জান্তার ঘোষণা

৩৭ শহরে মার্শাল ল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:১১, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

৩৭ শহরে মার্শাল ল

মিয়ানমারে এবার ৩৭টি শহরে সামরিক আইন জারি করা হলো

মিয়ানমারে এবার ৩৭টি শহরে সামরিক আইন জারি করা হলো। এর আগে মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের দুই বছর পূর্তিতে জরুরি অবস্থার মেয়াদ আরও ৬ মাস বাড়িয়েছে দেশটির জান্তা সরকার। শুক্রবার মিয়ানমারের ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যান্ড সিকিউরিটি কাউন্সিলের বৈঠকে ৩৭টি শহরে মার্শাল ল জারির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানা গেছে। দেশটিতে আগে থেকেই রাষ্ট্রদ্রোহ থেকে শুরু করে ‘মিথ্যা খবর ছড়ানো’- সবকিছুর জন্য অভিযুক্ত ব্যক্তিদের সামরিক ট্রাইব্যুনালে বিচার করা হচ্ছে। খবর আলজাজিরার।
দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম গ্লোবাল নিউ লাইট অব মিয়ানমারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইংয়ের এই আইনে বিচারের জন্য অনুমতি নিতে হবে। এতে বলা হচ্ছে, ৩৭টি শহরে সামরিক ট্রাইব্যুনালের রায়ের জন্য কোনো আপিলের অনুমতি দেওয়া হবে না, যেখানে মৃত্যুদ- আরোপ করা হয়েছে এবং যা অবশ্যই সামরিক প্রধান কর্তৃক অনুমোদিত হতে হবে।
এই আইনটি করার পেছনে যে কারণ বলে ধারণা করা হচ্ছে তা হলো, সামরিক বাহিনী সেই অঞ্চলে প্রতিরোধ বন্ধ করার নতুন উপায় খুঁজছে যেখানে স্থানীয় লোকজন দুই বছর আগে ক্ষমতা দখলের বিরুদ্ধে লড়াই করতে অস্ত্র তুলে নিয়েছিল। মিয়ানমারের ওই গণমাধ্যমটি বলছে, ‘নিরাপত্তা, আইনের শাসন ও স্থানীয়দের মাঝে শান্তি নিশ্চিত করার জন্য আরও কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সামরিক আইনের সম্প্রসারণ প্রয়োজন ছিল।’
কঠোর নতুন পদক্ষেপের অধীনে, সামরিক ট্রাইব্যুনালগুলো রাষ্ট্রদ্রোহ থেকে মিথ্যা সংবাদ প্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞাসহ ফৌজদারি মামলার শুনানি করবে। যেখানে দেশটির সেনাবাহিনী এরই মধ্যে কয়েক ডজন সাংবাদিককে কারাগারে বন্দি করতে আইনের অপব্যবহার করেছে। সামরিক আইন জারি করা ৩৭টি শহর, আটটি রাজ্য ও অঞ্চলজুড়ে অবস্থিত। এসব অঞ্চল হলো সাগাইং, চিন, ম্যাগওয়ে, বাগো, মন, কারেন, তানিনথাই এবং কায়া। এর আগে, বুধবার দেশটির সামরিক সরকার ঘোষণা দেয়, জরুরি অবস্থা আরও ৬ মাস বাড়ানো হচ্ছে। ক্ষমতা দখলের পর গত আগস্টে দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করেছিল মিয়ানমার জান্তা সরকার। সূত্র : আলজাজিরা

×