ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১

ভারতে বিষাক্ত মদপানে ৩১ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ১৭:৪০, ১৫ ডিসেম্বর ২০২২; আপডেট: ১৯:০৮, ১৫ ডিসেম্বর ২০২২

ভারতে বিষাক্ত মদপানে ৩১ জনের মৃত্যু

মদপান

ভারতের বিহারে বিষাক্ত মদপানে কমপক্ষে ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। কয়েকজনকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার কর্তৃপক্ষ এ কথা জানিয়েছে।

পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য বিহারের দুটি গ্রামে এই প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। সেখানে মদ বিক্রি ও পান আইন করে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। 

ভারতের আরও কয়েকটি রাজ্যে এ ধরনের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ফলে গোপনে নিয়মবহির্ভূতভাবে তৈরি সস্তা মদের রমরমা কেনাবেচা হয়ে থাকে কালোবাজারে। এসব মদ পান করে প্রতিবছর কয়েক হাজার মানুষের মৃত্যু হয়।

সবশেষ ঘটনায় সরন জেলার বেশ কয়েকজন পুরুষ বমি করতে শুরু করেন। পরে তাঁদের অবস্থার অবনতি হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনজনের মৃত্যু হয়। বাকিরা গতকাল বুধবার ও আজ চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

মৃতের সংখ্যা ৩১ বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো। তবে হাসপাতালের প্রধান সাগর দুলাল সিনহা বলেছেন, এখন পর্যন্ত ২২ জনের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।

জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা সন্তোষ কুমার বলেন, কর্তৃপক্ষ ওই এলাকায় অবৈধ মদের দোকান বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। তিনি বলেন, ‘আমরা এখন পর্যন্ত ১২ জনের বেশি মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছি। আরও কয়েকজনকে আটক করেছি।’

ইন্টারন্যাশনাল স্পিরিটস অ্যান্ড ওয়াইন অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়ার তথ্য অনুযায়ী, ভারতে প্রতিবছর যত মদপান করা হয়, এর প্রায় ৪০ শতাংশই তৈরি হয় অবৈধভাবে।

কার্যকারিতা বাড়াতে অবৈধ এসব মদে প্রায়ই মিথানল মেশানো হয়। মিথানল সেবনের ফলে অন্ধত্ব, লিভার ক্ষতিগ্রস্ত এবং মৃত্যুও হতে পারে।

গত জুলাইয়ে মদপানে পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য গুজরাটে ৪২ জন প্রাণ হারান। একই ধরনের ঘটনায় গত বছর উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য পাঞ্জাবে প্রায় ১০০ জনের মৃত্যু হয়।

এমএস

সম্পর্কিত বিষয়:

×