সোমবার ২৯ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কঙ্গোয় সশস্ত্র হামলায় শিশুসহ অন্তত ২৮ বাস্তুহারা নিহত

কঙ্গোয় সশস্ত্র হামলায় শিশুসহ অন্তত ২৮ বাস্তুহারা নিহত

অনলাইন ডেস্ক ॥ মধ্য আফ্রিকার দেশ কঙ্গোর উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় ইতুরি প্রদেশে গত দুই দিনে একাধিক সশস্ত্র হামলায় শিশুসহ অন্তত ২৮ বাস্তুচ্যুত নিহত হয়েছেন।

কঙ্গোতে নিয়োজিত জাতিসংঘ শান্তি মিশন ‘এমওএনইউএসসিও’ (মোনাস্কো) কর্তৃপক্ষ বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) এ তথ্য জানায়।

শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) রয়টার্সের খবরে বলা হয়, গত দুই দিনে ইতুরির বিভিন্ন গ্রামের শরণার্থী শিবিরগুলোতে আশ্রিত মানুষজনকে লক্ষ্য করে সশস্ত্র হামলা চালায় দুষ্কৃতিকারীরা। এ সময় মনুস্কোর একটি অস্থায়ী ক্যাম্পেও হামলা হয়। সম্প্রতি কৃষক ও যাযাবর গোত্রের মধ্যে হওয়া দাঙ্গায় এসব মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে আসেন।

হামলাগুলোতে প্রধানত হেমা গোত্রের যাযাবরদের লক্ষ্য করা হয়েছে। দীর্ঘ দিন ধরে রাজনৈতিক প্রতিনিধিত্ব ও পশুচারণভূমির ওপর নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠা নিয়ে এ গোষ্ঠীর সঙ্গে লেন্দু কৃষক সম্প্রদায়ের সংঘাত চলছে। যদিও ঠিক কারা সর্ব শেষ হামলাগুলো চালিয়েছে তা স্পষ্ট নয়।

চলতি বছরের জুন থেকে এখন পর্যন্ত কঙ্গোতে জাতিগত দাঙ্গায় অন্তত ২০০ মানুষ নিহত হয়েছেন। বাস্তুচ্যত হয়েছেন অন্তত ৩ লাখ।

এর আগে ১৯৯৯ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত পূর্ব কঙ্গোয় হেমা ও লেন্দু গোত্রের মধ্যে চলা দীর্ঘস্থায়ী রক্তক্ষয়ী গৃহযুদ্ধে ৫০ হাজারের মতো মানুষ নিহত হয়। এছাড়া এর ফলে ক্ষুধা ও রোগে ভুগে মারা যায় আরও লাখ লাখ মানুষ।

২০১৭ সাল থেকে আবারও দুই গোত্রের মধ্যে ছোটখাটো সংঘাত ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে। এসবের বলি হয়ে এখন পর্যন্ত শত শত মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া ঘরবাড়ি ছাড়তে হয়েছে হাজার হাজার মানুষকে।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে নির্বাচিত দেশটির প্রেসিডেন্ট ফেলিক্স তাসিসেকেদি অবশ্য এখানকার অস্থিরতা নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছেন। এ অঞ্চলে বিভিন্ন সশস্ত্র গোষ্ঠী সক্রিয় রয়েছে। ফেলিক্স সরকারের পদক্ষেপে এরই মধ্যে অনেক মিলিশিয়া নেতাই আত্মসমর্পণ করেছে। এর বাইরেও অনেকেই বিভিন্ন অভিযানে আটক কিংবা নিহত হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত বিশেষ করে উত্তর কিভু ও দক্ষিণ ইতুরি অঞ্চলে নানা মাত্রায় সহিংসতা বিরাজমান।

শীর্ষ সংবাদ:
জেকেজি প্রতারণার হোতা সাবরিনা গ্রেফতার         প্রধানমন্ত্রী ১ কোটি গাছের চারা রোপণ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন বৃহস্পতিবার         অনিয়ম, দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে সরকার ॥ কাদের         আপীল বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম হবে ভার্চুয়াল         সভরেন ওয়েলথ ফান্ড ॥ বৈদেশিক রিজার্ভ থেকে ঋণ নেয়ার একমাত্র পথ         পালাতে পারবে না সাহেদ ধরা পড়তেই হবে ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         করোনার প্রকোপ বাড়লে ভার্চুয়াল কোর্টের সাহায্য নিতেই হবে ॥ আইনমন্ত্রী         করোনায় ভেদাভেদ ভুলে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে ॥ শামীম ওসমান         ঈদ-উল-আজহার প্রধান জামাত হবে বায়তুল মোকাররমে         তিস্তার রুদ্রমূর্তি, দুই পাড়েই রেড এ্যালার্ট         করোনা কি বায়ুবাহিত?         নারী পাচার চক্রের হোতা আজম খান দুই সহযোগীসহ গ্রেফতার         বগুড়া-১ আসনে উপনির্বাচন কাল         নিম্নমানের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী ক্রয়ে দুর্নীতি তদন্তে ৬ কর্মকর্তাকে তলব দুদকের         রাজধানীতে ৮ অস্থায়ী পশুর হাটের চূড়ান্ত ইজারা সম্পন্ন         রাজধানীতে কোরবানির পশুর হাট বসতে দেয়া হবে না: স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়         সিএমএসডির ৬ কর্মকর্তাকে তলব করেছে দুদক         বিদেশ যেতে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট লাগবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী         করোনা : মসজিদেই হবে ঈদুল আজহার জামাত         ডা. সাবরিনা বরখাস্ত        
//--BID Records