সোমবার ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

হত্যা মামলায় একজনের বদলে আরেকজন জেলে

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যশোর শহরতলীর খোলাডাঙ্গার সবুজ বিশ্বাসকে পুলিশ জনি নামে আটক করে আদালতে সোপর্দ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সদরের বেড়বাড়ি গ্রামের মিঠু শেখ হত্যা মামলার চার্জশীটভুক্ত আসামি পলাতক জনির গ্রেফতারি পরোয়ানায় পুলিশ তাকে আটক করে। সবুজ যে জনি নয় পুলিশকে তা কোনভাবে বুঝাতে পারেনি স্বজনেরা। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি পুলিশ সবুজকে আটক করে জনি বলে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।

সবুজের আইনজীবী মোস্তফা হুমায়ুন কবীর জানিয়েছেন, পুলিশ সবুজকে জনি নামে আটক করে কারাগারে পাঠিয়েছে। সবুজ দুইমাসের অধিক সময় কারাগারে আটক আছে। সবুজ যে জনি নয় তার প্রমাণ হিসেবে আদালতে ড্রাইভিং লাইসেন্স ও জাতীয় পরিচয়পত্র জমা দিয়েছি। সবুজের বিষয়ে আদালতের কোন সিদ্ধান্ত এখনও পাওয়া যায়নি। সবুজের পিতা খাইরুল বিশ্বাস জানিয়েছেন, তার ছেলে পেশায় একজন ড্রাইভার। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি কোতোয়ালি থানা পুলিশ তার নামে ওয়ারেন্ট আছে বলে আটক করে নিয়ে যায়। সবুজ যে জনি নয় পুলিশকে তা কোনভাবে বোঝাতে পারিনি আমরা।

আদালতে খোঁজ নিয়ে তিনি জানতে পারেন যশোর সদরের বেড়বাড়ি গ্রামের মিঠু শেখ হত্যা মামলায় সবুজকে চার্জশীটভুক্ত আসামি জনি বলে আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ। এ মামলায় এজাহার নামীয় আসামি ৯ জন। যার মধ্যে ৪ নম্বর আসামি খোলাডাঙ্গার খাইরুলের ছেলে জনি। মামলার চার্জশীটে জনিকে ৫ নম্বর আসামি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, খোলাডাঙ্গা গ্রামের খাইরুল নামে আরও কয়েকজন আছে। তাদের ছেলেরাও আমার ছেলে বয়সী। প্রকৃতপক্ষে আমার ছেলে সবুজ বিশ্বাস কোন হত্যাকা-ের সঙ্গে জড়িত নয়। জনি নামে কেউ হত্যাক-ের সঙ্গে জড়িত থাকলেও সে তার ছেলে নয় বলে জানিয়েছেন। তিনি হত্যা মামলার আসামি জনির দায় সবুজের ওপর না চাপিয়ে দ্রুত মুক্তির বিষয়ে পুলিশ সুপারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর পুলেরহাট বাজার থেকে বেড়বাড়ি গ্রামের মিঠু শেখকে কৌশলে অপহরণ করে নিয়ে যায় তফসিডাঙ্গার ইসমাইল ও খোলাডাঙ্গা কদমতলার জনি। পরদিন আরিচপুর বিলের হলুদ ক্ষেতের মধ্যে মিঠুর লাশ পাওয়া যায়। এ বিষয়ে নিহতের ভাই ইসরাইল বাদী হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখ করে কোতোয়ালি থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। এ মামলার তদন্ত শেষে ৮ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট জমা দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। চার্জশিটভুক্ত ৫ নম্বর আসামি হলো খোলাডাঙ্গা কদমতলা এলাকার খায়রুলের ছেলে জনি (২৬)। মামলাটি বর্তমানে জেলা ও দায়রা জজ ১ম আদালতে বিচারাধীন আছে। জনি পলাতক থাকায় এ আদালত থেকে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

শীর্ষ সংবাদ:
উন্নয়নের কান্ডারি শেখ হাসিনার জন্মদিন আজ         এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর নেই         শেখ হাসিনার জীবন সংগ্রামের ॥ তথ্যমন্ত্রী         স্বামীর জন্য রক্ত জোগাড়ের কথা বলে ধর্ষণ, দুজন রিমান্ডে         ডোপ টেস্টে আরও ১৪ পুলিশ শনাক্ত         চীনা ভ্যাকসিনের ঢাকা ট্রায়াল নিয়ে সংশয়         দেয়াল চাপায় সাত জনের মৃত্যু         করোনায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে নতুন রোগী         অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক         অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর নেই         উন্নয়নে প্রতিবেশীদের সঙ্গে আরও দৃঢ় সহযোগিতায় জোর প্রধানমন্ত্রীর         সিলেটের ঘটনায় সরকার কঠোর অবস্থানে আছে ॥ কাদের         ভার্চুয়াল কোর্টেকে আরো সাফল্য মন্ডিত করতে বিচারক ও আইনজীবীদের প্রশিক্ষণ প্রয়োজন ॥ আইনমন্ত্রী         নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণ ॥ নিহত ও আহত ৩৮ পরিবারের মাঝে ৫ লাখ টাকা করে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান বিতরণ         স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি ॥ বন্ধ করতে দুদকের ২৫ সুপারিশ বাস্তবায়নে রিট         ‘অক্সফোর্ডের বাংলাদেশে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা ভুল প্রমাণিত হয়েছে’         এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূর আদালতে জবানবন্দি         এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ ॥ সাইফুরের পর অর্জুন গ্রেফতার         করোনা ভাইরাস ॥ ভারতে সংক্রমণ ৬০ লাখ ছুঁই ছুঁই         ধর্ষনের ঘটনায় ভিপি নূরসহ সকল আসামী ঢাবিতে অবাঞ্চিত