রবিবার ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ওআইসি সম্মেলনে মিথ্যা পরিচয়ে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব ॥ তোলপাড়

কূটনৈতিক রিপোর্টার ॥ পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব তেহমিনা জানজুয়া মিথ্যা পরিচয়ে ইসলামী সহযোগিতা সম্মেলনের (ওআইসি) ৪৫তম পররাষ্ট্রমন্ত্রী সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেছিলেন। তিনি ‘পররাষ্ট্র সচিব’ হলেও নিজেকে ‘পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী’ পরিচয় দিয়ে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন। এ নিয়ে ঢাকায় এখন তোলপাড় শুরু হয়েছে।

গত ৫-৬ মে ঢাকায় অনুষ্ঠিত ওআইসি পররাষ্ট্র মন্ত্রিদের ৪৫তম সম্মেলনে অংশগ্রহণ করে পাকিস্তান। পাকিস্তানের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন দেশটির পররাষ্ট্র সচিব তেহমিনা জানজুয়া। তবে এই সম্মেলনে যোগ দেয়ার আগে গত ৪ মে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাকিস্তান একটি নোট ভারবাল বা আনুষ্ঠানিক পত্র পাঠিয়েছিল। পাকিস্তানের সেই পত্রে বলা হয়, দেশটির প্রতিমন্ত্রী তেহমিনা জানজুয়া ওআইসির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সম্মেলনে অংশগ্রহণ করছেন। কিন্তু গত ৭ মে বাংলাদেশে পাকিস্তানের হাইকমিশন থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ৪৫তম পররাষ্ট্র মন্ত্রিদের সম্মেলন ৬ মে ঢাকায় সমাপ্ত হয়েছে। পাকিস্তান দলের নেতৃত্ব দিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র সচিব তেহমিনা জানজুয়া।

এ বিষয়ে ঢাকার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কোন কর্মকর্তাই মুখ খোলেননি। কেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব নিজেকে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে পরিচয় দিয়ে সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেছেন, সে বিষয়েও কেউ কিছুই জানেন না। তবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বিস্ময় প্রকাশ করেছেন।

অনেক সময়ে বৈদেশিক সম্পর্কে একজন ব্যক্তিকে ‘বিশেষ দূত’ হিসেবে অভিহিত করা হয়। সে ক্ষেত্রে পররাষ্ট্র সচিবকে প্রতিমন্ত্রী পর্যায়ে উন্নীত করা হয়। কিন্তু এ রকম পরিস্থিতিতে পরিষ্কারভাবে বলা হয়ে থাকে, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে এই অনুষ্ঠানের জন্য বা এই মেয়াদের জন্য ‘প্রতিমন্ত্রীর প্রটোকল’ দেয়া হলো। তবে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দফতরের ওই নোট ভার্বালে এ ধরনের কোন কিছুই বলা ছিল না।

ঢাকায় ওআইসির পররাষ্ট্র মন্ত্রিদের ৪৫তম সম্মেলনের শেষ দিনে দেয়া হয় ৩৯ দফা ঢাকা ঘোষণা। তবে ঘোষণার বিষয়ে পাকিস্তান হাইকমিশন বলেছে, সম্মেলনে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব তেহমিনা জানজুয়ার নেতৃত্বে পাকিস্তানের প্রতিনিধি দল অংশগ্রহণ করেন। তবে এই সম্মেলন সমাপ্তির কিছুক্ষণ আগে ঢাকা ঘোষণা সরবরাহ করা হয়। পাকিস্তানের অভিযোগ, অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর সঙ্গে পরামর্শ না করেই এই ঘোষণাপত্র তৈরি করা হয়েছে। এ ছাড়া ঘোষণায় বাংলাদেশের নিজস্ব মতামতই তুলে ধরা হয়েছে বলেও অভিযোগ করে একাত্তরে স্বাধীনতা যুদ্ধে পরাজিত দেশটি।

পাকিস্তানের এই প্রতিক্রিয়ার বিরুদ্ধে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলে, ঢাকা ঘোষণার মূল খসড়া ওআইসির সচিবালয় থেকে প্রস্তুত করা হয়েছে। পরবর্তীতে কিছু সদস্য, ওআইসির সঙ্গে সম্পর্কিত সংস্থা ও স্বাগতিক দেশ এর কয়েকটি বাড়তি ধারা সংযোজনের প্রস্তাব করে। নতুন প্রস্তাবগুলো কাউন্সিলে খসড়া গৃহীত হওয়ার আগেই সংযোজন করা হয়। কিন্তু মূল খসড়ায় পাকিস্তানের আপত্তি যে ১৮ নম্বর ধারা নিয়ে তার কোন পরিবর্তন করা হয়নি।

ওআইসি সম্মেলনে অংশ নেয়ার বিষয়ে পাকিস্তানের হাইকমিশন থেকে পাঠানো ওই বিজ্ঞপ্তিতে দেশটির পররাষ্ট্র সচিব তেহমিনা জানজুয়ার নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলের কথা উল্লেখ করা হয়। এ প্রেক্ষিতে ঢাকার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অবহিত হয়, তিনি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নন। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিবের মিথ্যা পরিচয়ে ওআইসি সম্মেলনে অংশগ্রহণ নিয়ে ঢাকায় এখন তোলপাড় শুরু হয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই         শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে শুরুর প্রত্যাশা বাংলাদেশের         বিরল প্রজাতির ভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপি ॥ কাদের         কৃষি উদ্যোক্তা তৈরিতে সেল গঠন করা হবে ॥ কৃষিমন্ত্রী         পীরগঞ্জের ঘটনার হোতাসহ দুজন গ্রেফতার         ডেমু এখন গলার কাঁটা, ৬৫৪ কোটি টাকাই পানিতে         আজ ভারত পাকিস্তান মহারণ         গোপালগঞ্জ ও হবিগঞ্জে মন্দিরে হামলা, আগুন ভাংচুর         মন্ডপে হামলাকারীদের ট্রাইব্যুনালে বিচার দাবি         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৯         ‘যেকোনো অর্জন বা সাফল্যকে বিতর্কিত করা বিএনপির স্বভাব’         হিন্দু সম্প্রদায়ের ক্ষতিগ্রস্ত হিন্দুদের ৫০ লাখ টাকা অনুদান         বিএফইউজে নির্বাচন : সভাপতি ওমর ফারুক, মহাসচিব দীপ আজাদ         আগামী বছরই দেশের সাব-রেজিস্ট্রি অফিসগুলোতে ই-রেজিস্ট্রেশন চালু হবে : আইনমন্ত্রী         স্কুল-কলেজে সরাসরি ক্লাস এখন আর বাড়ছে না ॥ শিক্ষামন্ত্রী         করোনা : বাংলাদেশিদের জন্য সীমান্ত খুলে দিল সিঙ্গাপুর         ২ মিনিটেই শেষ রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ ‘কিলিং মিশন’         রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৬ জনকে হত্যার ঘটনায় আটক ৮         হঠাৎ বিশ্ববাজারে বাড়লো স্বর্ণের দাম         ‘আগামী ১৯ নবেম্বর মেয়র জাহাঙ্গীরের বিষয়ে সিদ্ধান্ত‘