রবিবার ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রাতে হাতিরঝিলে লাল-নীল জলের নাচন, আতশবাজি লেজারশো

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কখনও লেজারশো। কখনও আকাশে আতশবাজি। আবার কখনও লাল-নীল জলের নাচন। শনিবার মহান বিজয় দিবসের রাতে এসবই উপভোগ করলেন রাজধানীবাসী। সরকারের পক্ষ থেকে আয়োজিত হাতিরঝিলে বর্ণাঢ্য এই আয়োজনে অভিভূত দর্শক-শ্রোতা। একই সঙ্গে তাদের সামনে স্বাধীনতার ইতিহাসও তুলে ধরা হলো।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে হাতিরঝিলের এ্যাম্ফিথিয়েটারে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। অনুষ্ঠানে নৃত্য ও গানের পাশাপাশি আয়োজন করা হয় লেজারশো। আতশবাজি। সন্ধ্যা হতে না হতেই এ্যাম্ফিথিয়েটার মঞ্চ কানায় কানায় ভরে যায়। মঞ্চের বাইরেও হাতিরঝিলের চারপাশে ছিলেন হাজার হাজার দর্শক। বিশেষ করে লেজার শো দেখার জন্য অধীর প্রতীক্ষায় ছিলেন তারা। তবে সন্ধ্যা হলেও অনুষ্ঠান শুরু হতে দেরি হয়। রাত আটটার সময় অনুষ্ঠান শুরু হয়।

এ্যাম্ফিথিয়েটার মঞ্চ থেকে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান শুরুর ঘোষণার পরই দর্শক- শ্রোতা উল্লাস প্রকাশ করেন। শুরু হয় পানির নাচন। লাল, সবুজ, নীলসহ অনেক রং। রঙের যেন শেষ নেই। পানির নাচন শেষ হতে না হতেই আতশবাজি। আতশবাজির রঙে পুরো হাতিরঝিল ঝলমলিয়ে ওঠে। শুরু হয় লেজার শো। নানা রং। লেজার রশ্মিরও যেন শেষ নেই।

লেজার শো, আতশবাজির ফাঁকে ফাঁকে মঞ্চে মুক্তিযুদ্ধের নৃত্য ও গান পরিবেশিত হয়। জয়বাংলা বাংলার জয়, নোঙর তোলো তোলো, কারার ঐ লৌহ কপাট ইত্যাদি গানের সঙ্গে ছিল নৃত্য। দর্শকের মন ছুঁয়ে যায় এই নৃত্য ও গানে।

হাতিরঝিলে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়। প্রদর্শনীতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণসহ স্বাধীনতাযুদ্ধের খ-চিত্র প্রদর্শন করা হয়। পাশাপাশি বর্তমান সরকারের গৃহীত বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের চিত্র লেজার শোর মাধ্যমে দেখানো হয়। রং-বেরঙের আতশবাজির মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

অনুষ্ঠান শুরুর আগে প্রধান অতিথি পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, বর্তমান সরকার নানা ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করেছে। আমরা সেই সাফল্য সকলের সামনে তুলে ধরতে চাই। লেজার শোর মাধ্যমে সেটা তুলে ধরার জন্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। তিনি বলেন, জাতি আজ মহান বিজয় দিবস পালন করছে। এটা আমাদের জন্য একটি বিশেষ আনন্দের দিন। এই আনন্দের দিনে নগরবাসীর সামনে লেজার শো প্রদর্শন করা হবে। আমরা যে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে সক্ষম হয়েছি, এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সকলে বুঝতে পারবেন বলেও তিনি প্রত্যাশা করেন।

হাতিরঝিলের অনুষ্ঠানে সর্বাত্মক সহযোগিতায় ছিল ম্যাক্স গ্রুপ। অনুষ্ঠানে ম্যাক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান গোলাম এম আলমগীর বলেন, বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে ম্যাক্স গ্রুপ সহযোগিতা করতে পারায় আমরা আনন্দিত। বিজয় দিবসে বলতে চাই তরুণ প্রজন্মকে সঙ্গে নিয়ে আমরা আরও অনেকদূর এগিয়ে যাব।

শীর্ষ সংবাদ:
দুশ্চিন্তায় কৃষক ॥ বোরো ধান কাটতে তীব্র শ্রমিক সঙ্কট         সিলেটে ৩৩২ কিমি সড়ক এখনও পানির নিচে         বিদ্যুত ও গ্যাসের দাম বাড়ানোর উদ্যোগ আত্মঘাতী         দখল দূষণে কর্ণফুলীর আরও বিপর্যয়         টিকটক হৃদয়সহ ৭ বাংলাদেশীর যাবজ্জীবন         গাজীপুরে ট্রেন পিকআপ সংঘর্ষে নিহত ৩         এবার ডিমের বাজারও বেপরোয়া         হজযাত্রীদের বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষা         সড়ক দুর্ঘটনায় এসআইসহ নিহত ৭         কালবৈশাখী ঝড় ও বজ্রপাতে পাঁচজনের মৃত্যু         রাজশাহীর বাজারে এসেছে সুমিষ্ট গোপালভোগ         পূর্বাঞ্চলীয় রেলের ৪৮২ একর জমি বেদখল         তিস্তা কমান্ড এলাকায় ৭০ হাজার হেক্টরে বোরোর বাম্পার ফলন         চট্টগ্রামে ৩ ঘণ্টা বৃষ্টিতে জলজট, দুর্ভোগ         এনটিআরসিএতে আসছে বড় পরিবর্তন         সংকট নিরসনে শ্রীলংকা ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মডেল’ অনুসরণ করতে পারে         করোনা : এক মাস পর মৃত্যু এক, শনাক্ত ১৬         ইইউর জোর বাংলাদেশের অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনে         ‘শেখ হাসিনার কারণেই দেশের চেহারা পাল্টে গেছে’         মাদক ও অপসংস্কৃতি থেকে তরুণ সমাজকে দূরে রাখতে ক্রীড়াই অন্যতম শক্তি : প্রাণিসম্পদমন্ত্রী