ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

মণিরামপুরে ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে ॥ আটক ৩

প্রকাশিত: ০৪:৫৫, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

মণিরামপুরে ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে ॥ আটক ৩

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যশোরের মণিরামপুরে এবার এক এসএসসি পরীক্ষার্থীর ধর্ষণের ভিডিওচিত্র ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে অপর এক পরীক্ষার্থীর শ্লীলতাহানির ভিডিওচিত্র একইভাবে ছড়িয়ে দেয়া হয়। বখাটেরা গত ১২ ফেব্রুয়ারি এ অপকর্ম করলেও বৃহস্পতিবার এই ভিডিও ফুটেজ এলাকার মানুষ দেখলে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। শুক্রবার দুপুরে ভিডিওচিত্র দেখে বখাটেদের শনাক্ত করে স্থানীয় জনতা তাদের ধরে পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। স্থানীয়রা জানান, গত ১২ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২টার দিকে গণিত পরীক্ষা শেষে দুই এসএসসি পরীক্ষার্থী বাড়ি ফেরার পথে বেগারিতলা এলাকার নিমতলায় পাঁচ বখাটে চালকিডাঙ্গা গ্রামের রুস্তম আলী দফাদারের ছেলে এয়াকুব আলী, টুনিয়াঘরা গ্রামের মৃত নূর আলী বিশ্বাসের ছেলে ইসরাফিল আলম, একই গ্রামের মৃত আজিজুর রহমানের ছেলে আল-আমিন, মুরাদ হোসেনের ছেলে ইমন হোসেন ও আজিজুর রহমানের ছেলে আলমগীর হোসেন তাদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে পাশের বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে দুই পরীক্ষার্থীর মধ্যে একজনকে এয়াকুব আলী ধর্ষণ করে এবং ইসরাফিলসহ অন্যান্যরা অপরজনকে শ্লীলতাহানি করে। বখাটেরা পুরো ঘটনা মোবাইল ফোনে ভিডিও করে। এ সময় শিক্ষার্থীরা বাধা দিতে গেলে বখাটেরা তাদের অস্ত্র দেখিয়ে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় এবং মারপিট করে। এ ঘটনা জানাজানি করলে তাদের মোবাইল ফোনে ধারণকৃত ধর্ষণ ও শ্লীলতাহানির ভিডিও ফুটেজ ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়াসহ হত্যার হুমকি দেয় বখাটেরা। এরপর বৃহস্পতিবার বখাটেরা ওই ভিডিও ফুটেজ ইন্টারনেটে ছেড়ে দিলে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। শুক্রবার দুপুরে স্থানীয়রা বখাটে এয়াকুব আলী, ইমন ও আল-আমিনকে শনাক্ত করে ধরে গণপিটুনি দিয়ে ভোজগাতী ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে নেয়। পরে ইউপি চেয়ারম্যান তাদেরকে পুলিশে সোপর্দ করেন। ধর্ষিতার মা জানান, তার মেয়ের ওপর যে পাশবিক নির্যাতন করা হয়েছে তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক জানান, বখাটেদের তার কার্যালয়ে আনলে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।
monarchmart
monarchmart