মঙ্গলবার ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

প্রশিক্ষণ ও প্রস্তুতি

  • সাগর কোড়াইয়া

বাংলাদেশ ভূপ্রকৃতিগতভাবে এমন একটা অবস্থানে রয়েছে যেখানে প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রতিনিয়তই সংঘটিত হয়। আর দেশের জনগণ সেই দুর্যোগ মোকাবেলায় বেশ সাহসিকতার পরিচয় দিচ্ছে। আন্তর্জাতিকভাবে দুর্যোগ মোকাবেলায় বাংলাদেশ প্রশংসিতও হয়েছে। যদিও ব্রিটিশ আমল থেকে শুরু করে বর্তমান পর্যন্ত আমাদের এ দেশ ভূমিকম্পের দ্বারা অনেকবার আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে তথাপি ভূমিকম্পের সঙ্গে এ দেশের মানুষ বেশি পরিচিত নয়। বিগত কয়েক বছরে মাঝারি ও মৃদু ভূমিকম্পের শিকার হয়েছে দেশ। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ উল্লেখযোগ্য ছিল না। তবে দেশের জনসাধারণের মনে একটা অজানা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। ঘটে যাওয়া ভূমিকম্পগুলো ভবিষ্যতে বড় কোন ভূমিকম্পের পূর্বাভাস দিচ্ছে কিনা সেই আশঙ্কাকে কোন মতেই এড়িয়ে যাওয়ার উপায় নেই। আমাদের দেশ যে ভূমিকম্পের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে এটা স্পষ্ট। ইদানীং প্রায়ই দেশের কোন না কোন অঞ্চল ভূমিকম্পে কেঁপে উঠছে। বছরের শুরুতেই আবারও ভূমিকম্পের ঝাঁকুনিতে কেঁপে উঠেছে দেশ। ৩ জানুয়ারি ভূমিকম্পনে তুলনামূলক বেশি কেঁপে উঠেছে সিলেট অঞ্চল। আমরা জানি যে কোন মুহূর্তে ভূমিকম্পে দেশ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। ভূমিকম্পের পূর্বাভাস দেয়ার যন্ত্র এখনও পর্যন্ত আবিষ্কৃত হয়নি তাই সচেতনতা, প্রশিক্ষণ ও পূর্ব প্রস্তুতিই হতে পারে ক্ষতি থেকে আমাদের রক্ষার কৌশল।

এ ক্ষেত্রে প্রশ্ন একটাইÑ আমাদের দেশে ভূমিকম্পের ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় কর্তৃপক্ষ কতখানি সক্ষম এবং অভিজ্ঞ? পৃথিবীর ভূমিকম্প দূর্যোগপূর্ণ দেশগুলো এই দিক দিয়ে অনেক এগিয়ে। ভূমিকম্পের ক্ষতি দূরীকরণে তাদের রয়েছে দক্ষকর্মী; সর্বোপরি জনগণ ভূমিকম্পের সময় কিভাবে নিজেদের রক্ষা করতে পারে সেই বিষয়ে তাদের অভিজ্ঞ করে তোলা হয়। এটা অনুমেয় যে, ঢাকা শহরের জনসংখ্যার আধিক্য এবং পরিকল্পনাবিহীন দুর্বল বহুতল ভবন নির্মাণই ভূমিকম্পের সময় আমাদের জন্য কাল হতে পারে। এ শহরে ভূমিকম্পের ক্ষয়ক্ষতির কথা ভাবলে গা শিউরে ওঠে। তাই দেশের প্রত্যেক নাগরিককে নিজ নিজ স্থান থেকে ভূমিকম্প মোকাবেলায় এগিয়ে আসতে হবে। সচেতনতা, প্রশিক্ষণ ও প্রস্তুতিই ভূমিকম্প মোকাবেলার একমাত্র উপায় এবং ভূমিকম্পের ক্ষয়ক্ষতি অনেকাংশে কমিয়ে দিতে পারে। অনেকে ভূমিকম্পের সময় আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে নিজেকে বাঁচাবার জন্য ছোটাছুটি করে আহত বা নিহিত হন। মনে রাখতে হবে, ভূমিকম্প মানুষকে আক্রমণ করে না বরং কোন ভবন, ঘরবাড়ি ও স্থাপনা ভেঙ্গে পড়ে মানুষ হতাহত হয়। উদ্ধার কাজ সম্পাদনে অত্যাধুনিক মেশিন-যন্ত্রপাতি ও পর্যাপ্ত পরিমাণ খাবার পানি ও খাদ্য মজুদ অবশ্যই রাখা প্রয়োজন।

বনানী, ঢাকা থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
কক্সবাজার জেলা পুলিশের ৭ শীর্ষ কর্মকর্তাকে একযোগে বদলি         এবার দেশের ভেতরই চ্যালেঞ্জের মুখে সু চি         বিশ্বাসযোগ্য ও বাস্তবসম্মত রোডম্যাপ তৈরি করুন ॥ জাতিসংঘে শেখ হাসিনা         নুরের বিরুদ্ধে অপহরণ-ধর্ষণ ও ডিজিটাল আইনে আরেক তরুণীর মামলা         রিজেন্টের সাহেদের বিরুদ্ধে মুন্সীগঞ্জে চেক জালিয়াতির মামলা         নারায়ণগঞ্জে বিস্ফোরণ ॥ আরও একজনের মৃত্যু         করোনা টিকার সমবণ্টনে ১৫৬ দেশের চুক্তি         সৌদির বিমান টিকেটের দাবিতে ঢাকায় প্রবাসী কর্মীদের বিক্ষোভ         শীতের সময় করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা কী ?         মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রীর মায়ের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক         করোনায় আক্রান্ত ৩ কোটি ১২ লাখ, মৃত্যু ৯ লাখ ৬৩ হাজার         ভারতে তিনতলা ভবনে ধস, নিহত বেড়ে ২০         অস্ট্রেলিয়ার উপকূলে ৯০ তিমির মৃত্যু         ইরানের বিরুদ্ধে আবারও নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের         যুক্তরাষ্ট্রকে মধ্যপ্রাচ্যে তাদের ভবিষ্যৎ নিয়েও ভাবতে হবে ॥ লাভরভ         করোনা ভাইরাস নিয়ে শি জিনপিংয়ের সমালোচনাকারীর ১৮ বছরের কারাদণ্ড         চীনের হয়ে গুপ্তরচরবৃত্তির অভিযোগে নিউইয়র্ক পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেফতার         আমিরাতের মানবসম্পদ মন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ         আর্থিক ক্ষতি না হলে বাড়ি থেকে কাজের পরামর্শ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর         বাড়ছে প্রাইভেট গাড়ি ॥ যানজট নিরসনে গণপরিবহন বাড়ানোর তাগিদ