শুক্রবার ৮ মাঘ ১৪২৮, ২১ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

হে নারী, তোমার হাতেই আশার মশাল!

  • পান্থ আফজাল

সাত সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয়ের অভিযাত্রী ওয়াসফিয়া

ওয়াসফিয়া শুধু এভারেস্ট জয় করেই থেমে নেই। তিনি বরং সাতটি মহাদেশের সাতটি সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশের নারীদের ভিন্ন এক উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন? সম্প্রতি ন্যাশনাল জিওগ্রাফির বর্ষসেরা অভিযাত্রীর খেতাব পেয়েছেন ওয়াসফিয়া। প্রথম কোন বাংলাদেশী নারী হিসেবে সেভেন সামিট তথা সাতটি সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গ জয় করা ওয়াসফিয়া নাজরীন তার ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে বলেন, বাংলাদেশের একজন পর্বতারোহী হিসেবে একজন নারী ওশেনিয়া বা অস্ট্রেলিয়া অঞ্চলের কার্সটেনস পিরামিড পর্বত শৃঙ্গ জয়ের মাধ্যমে বিশ্বের সাতটি অঞ্চলের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয়ের অভিযান পূর্ণ করেছেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৪০ বছর উদ্যাপনের জন্য আমরা এই ক্যাম্পেইন শুরু“করি, যা ’৭১ -এর চেতনাকে আরও পরিপূর্ণ করার একটি প্রয়াস এবং তাদের জন্য উৎসর্গ করছি যারা দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছেন।

এভারেস্টজয়ী নারী নিশাত মজুমদার

শৈশবে বৈমানিক হতে চেয়েছিলেন, কখনোই পবর্তারোহী হতে চাননি। কিন্তু তিনিই প্রথম বাংলাদেশী নারী হিসাবে জয় করেছেন পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গ এভারেস্ট। গত ১৯ মে তিনি এই সর্বোচ্চ পর্বতের চূড়ায় উঠে জয়ের আনন্দের পাশাপাশি মৃত্যুকে দেখে এসেছেন খুব কাছ থেকে। তারপরেও অভিযান তাকে ডাকে। পর্বতশৃঙ্গে ভ্রমণের ব্যাপারটি একটি ভয়ঙ্কর সুন্দরের হাতছানি। বিপদকে ভয় নয়, বরং মোকাবেলা করতেই ভালবাসেন। উঠেছেন বাংলাদেশের কেওক্রাডং, নেপালের মেরা পর্বত, অন্নপূর্ণা হিমালের সিংগু চুলিতে। অংশ নিয়েছেন মাকালু পর্বতসহ আরও কয়েকটি অভিযানে। নিশাত পেশায় ঢাকার একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা। তবে এখন স্বপ্ন দেখেন, মানুষের জন্য কিছু করার। শিক্ষা নিয়ে তাঁর কাজ করার ইচ্ছা।

বিমান বাহিনীর পাইলট অফিসার তামান্না-ই-লূৎফী

বিমান বাহিনীর পাইলট অফিসার তামান্না-ই-লূৎফী দেশের প্রথম সামরিক নারী বৈমানিক হিসেবে সফলভাবে একক উড্ডয়ন করে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন। বৃহস্পতিবার যশোরে বিমানবাহিনী ঘাঁটিতে তিনি তার প্রথম উড্ডয়নে সফল হন। সামরিক বাহিনীর প্রথম পাইলট হিসেবে সফলভাবে হেলিকপ্টার উড্ডয়ন সম্পন্ন করে সকলকে তাক লাগিয়ে দেন। সশস্ত্র বাহিনীতে নারী কর্মকর্তা নিয়োগের পাশাপাশি, জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে ও বিভিন্ন কর্মক্ষেত্রে নারীর অবদান এবং দৈনন্দিন জীবনে নারীদের নিরলস পরিশ্রম ও নিষ্ঠার স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলাদেশ বিমানবাহিনী প্রথমবারের মতো জিডি (পাইলট) ব্রাঞ্চে নারী বৈমানিক নিয়োগের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। বেসামরিক ক্ষেত্রে নারী বৈমানিক থাকলেও সামরিক জীবনের ঝুঁকিপূর্ণ ও চ্যালেঞ্জিং বৈমানিক পেশায় বাংলাদেশে এই প্রথম নারী বৈমানিক নিয়োগের মাইলফলক স্থাপন করে বাংলাদেশ বিমানবাহিনী। কর্মক্ষেত্রে সাফল্যের প্রথম ধাপ হিসেবে বৃহস্পতিবার তামান্না-ই-লূতফী বেল-২০৬ হেলিকপ্টারে প্রথম সফলভাবে একক উড্ডয়নে সক্ষমতা অর্জন করেন। নারী অগ্রযাত্রার এই অভিযান তাদের সাফল্য বাংলাদেশ বিমানবাহিনী তথা সমগ্র দেশ ও জাতির জন্য এক নতুন উৎসাহ ও উদ্দীপনার দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

সফল নারী ক্রিকেটার সালমা খাতুন

সালমা একজন সফল নারী। পারিবারিক অভাব অনটনের কারণে তিনি বেশিদূর লেখাপড়া করতে পারেননি। তবে, সকল পারিবারিক ও সামাজিক প্রতিকূলতা, মানসিক নির্যাতন কাটিয়ে উঠে শুধুমাত্র নিজ প্রচেষ্টায় খেলাধুলা করে তিনি এখন বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের সফল অধিনায়ক। তিনি দুবার প্রথম আলো বর্ষসেরা মহিলা ক্রিকেটারসহ বিভিন্ন পুরস্কার ও ২০১৩ সালের নারী জয়িতার বিজয় মুকুট ছিনিয়ে আনেন। তার সফল্য দেখে অনেক মেয়েরাই খেলাধুলার প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠেছে। এটি নারী ক্ষমতায়নের এ উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। নারী দলের একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে আইসিসির সেরা একাদশে সুযোগ পেয়ে বাংলাদেশের মান বাঁচিয়েছেন এই অদম্য নারী সালমা খাতুন। বাংলাদেশ নারী জাতীয় দলের অধিনায়ক ও অলরাউন্ডার সালমা খাতুন প্রথমবার বিশ্বকাপে অংশ নিয়ে প্রথমবারই আইসিসির নজর কাড়ে।

অকুতোভয় সাংবাদিক নাদিয়া শারমিন

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ইন্টারন্যাশনাল উইমেন অব কারেজ এ্যাওয়ার্ড- আইডব্লিউওসি বা ‘আন্তর্জাতিক সাহসী নারীর পুরস্কার’ পেয়ে বাঙালী নারীদের আরেকবার বিশ্ব দরবারে পরিচিত করেন একাত্তর টেলিভিশনের সাংবাদিক নাদিয়া শারমিন। ওয়াশিংটনে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিগিনবটম নাদিয়া শারমিনসহ আরও ৯ সাহসী নারীর হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। ২০১৩ সালে ঢাকায় হেফাজতে ইসলামের সমাবেশে চলার সময় খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার হন নাদিয়া। তখন তিনি একুশে টেলিভিশনে কর্মরত ছিলেন। বর্তমানে তিনি কাজ করছেন ’৭১ টেলিভিশনে। নাদিয়ার ওপর হামলার ঘটনা জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আলোচনার ঝড় তোলে। সাহসিকতার স্বীকৃতি হিসেবে বাংলাদেশের তরুণ সাংবাদিক নাদিয়া শারমিন এবার এ পুরস্কারে ভূষিত হন। ফলে বিশ্ব মানচিত্রে বাংলার অপরাজিতাদের বিজয় কেতন, সত্যিই অসাধারণ! নাদিয়ার আগে আরেকজন বাংলাদেশী নারী এ পুরস্কার পেয়েছিলেন। নাদিয়া শারমিন দ্বিতীয় বাংলাদেশী নারী, সাহসিকতার জন্য এ পুরস্কার পেলেন।

এ্যাথলেট মাবিয়া আক্তার সীমান্ত ও মাহফুজা আক্তার শিলা

ভারতের সাউথ এশিয়া গেমসে এবার বাংলাদেশেকে আলোকিত করল দুই স্বর্ণজয়ী বাংলাদেশী নারী। স্বর্ণজয়ী এ দুই কন্যার হাত ধরেই ইতিহাসে নাম লেখাল বাংলাদেশ। এস এ গেমসে ভারোত্তোলনে বাংলাদেশের হয়ে প্রথম স্বর্ণ উপহার দিয়েছেন মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। পরে সাঁতারের দুই ইভেন্টে আরও দুটি স্বর্ণ জেতেন বাংলাদেশের জলকন্যা মাহফুজা আক্তার শিলা। সীমান্ত এসএ গেমসে এবারই প্রথম অন্তর্ভুক্ত হওয়া ভারোত্তোলনে স্বর্ণপদক পেয়েছেন। দক্ষিণ এশিয়ার অলিম্পিক খ্যাত এসএ গেমসে বাংলাদেশের হয়ে সুনাম বয়ে আনল এই দুই এ্যাথলেট। এই অর্জন বা গৌরব সমগ্র নারীদেরই নয়; সোনার বাংলাদেশের।

নৃত্যশিল্পী ও কোরিওগ্রাফার ওয়ার্দা রিহ্যাব

ওয়ার্দা রিহ্যাব। নৃত্যশিল্পী ও কোরিওগ্রাফার। ওয়ার্দা অর্থ গোলাপ। সঙ্গে জুড়ে দিলেন সুগন্ধ (রিহ্যাব)। ওয়ার্দা রিহ্যাব এর পুরো অর্থ হলো সুগন্ধি গোলাপ। নামের প্রকৃত অর্থের মতোই আমাদের দেশের নৃত্যাঙ্গনে সুবাস ছড়াচ্ছেন মণিপুরী উচ্চাঙ্গ নৃত্যশিল্পী ওয়ার্দা রিহ্যাব। ইন্দিরা গান্ধী কালচারাল সেন্টারের নৃত্য প্রশিক্ষক দেশের এই নন্দিত নৃত্যশিল্পী ও তার দল ধৃতি নৃত্যালয় দেশ ও দেশের বাইরে সৃজনশীল ও মনোমুগ্ধকর পরিবেশনার মাধ্যমে ধারাবাহিকভাবে সুনাম অর্জন করছেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তার নৃত্য সম্ভার নিয়ে সফর করে বাংলা নৃত্য তথা বাংলা সংস্কৃতিকে বিশ্বময় করে তুলেছেন। ওয়ার্দা রিহ্যাব দীর্ঘ ১৭ বছর ছায়ানটে ক্লাসিক্যাল শিখেছেন। তিনি ছায়ানটের একমাত্র নৃত্যশিল্পী যিনি ভরতনাট্যম এবং মণিপুরী দুই বিভাগেই ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট হয়েছেন। ওয়ার্দা রিহ্যাব আইসিসিআর স্কলারশিপ নিয়ে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মণিপুরীতে অনার্স সম্পন্ন করেন। আবার ছায়ানটের স্কলারশিপ নিয়ে রবীন্দ্রভারতী থেকে মাস্টার্স করেন। এছাড়া ভারতের প্রখ্যাত মণিপুরী নৃত্যশিল্পী কলাবতী দেবীর গৃহে টানা সাড়ে পাঁচ বছর অনুশীলন করেছেন। সেই ছোটবেলায় তিন বছর বয়সে প্রথম চরণে বেজেছিল নূপুরের নিক্কন। এরপর আজন্ম ওয়ার্দা রিহ্যাব ব্যস্ত নাচ আর নাচের মানুষদের নিয়ে।

শীর্ষ সংবাদ:
‘আমার প্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়টি ভালো নেই’         করোনা ভাইরাসে আরও ১২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১১৪৩৪         ‘১৫ ফেব্রুয়ারি বইমেলা শুরু’         ঢাবির হল খোলা, ক্লাস চলবে অনলাইনে         করোনারোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ৫ জরুরি নির্দেশনা         আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ স্কুল-কলেজ         ভরা মৌসুমে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি         মাদারীপুরে সেতুর পিলারে মোটরসাইকেলের ধাক্কা, ২ শিক্ষার্থী নিহত         বিপিএম-পিপিএম পাচ্ছেন পুলিশের ২৩০ সদস্য         অভিনেত্রী শিমু হত্যা : ফরহাদ আসার পরেই খুন করা হয়         দিনাজপুরে মাদক মামলায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য গ্রেফতার         শাবিপ্রবিতে গভীর রাতে শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল         ঘানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে ৫শ’ ভবন ধস, নিহত ১৭         করোনায় রেকর্ড সাড়ে ৩৫ লাখ শনাক্ত, মৃত্যু ৯ হাজার         রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বাসের ধাক্কায় এক পরিবারের ৩ জন নিহত         তিন পণ্য দ্রুত আমদানির পরামর্শ         শতবর্ষী কালুরঘাট সেতুর আরও বেহাল দশা         ঐক্য সুদৃঢ় আওয়ামী লীগের বিএনপি হতাশ         ইসি নিয়োগ আইন চলতি অধিবেশনেই পাসের চেষ্টা থাকবে