সোমবার ২১ আষাঢ় ১৪২৭, ০৬ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

যুদ্ধাপরাধী বিচারের শেষ দেখতে চান দুই ভাষাসৈনিক

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার দুই ভাষাসৈনিক মকবুল হোসেন খান ও আব্দুল বাতেন জেল-জুলুম, হুলিয়া মাথায় নিয়ে অংশ নিয়েছিলেন মহান ভাষা আন্দোলনে। রাষ্ট্রদ্রোহের মামলার আসামি হয়ে জেল খেটেছেন। তবে এই দুই ভাষাসৈনিক এখন পর্যন্ত পাননি জাতীয় কিংবা রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি। তাতেও তাদের কোন ক্ষোভ, দুঃখ বা হতাশা নেই। তাদের দাবি একটি। জীবনের শেষ সময়ে এসে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় এসে স্বাধীনতাবিরোধীদের যে বিচার শুরু করেছে তার সফল সমাপ্তি। সব যুদ্ধাপরাধীর বিচার দেখে যেতে চান। একুশ আজ আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে। মর্যাদা লাভ করেছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের।

১৯৪৮ থেকে ১৯৫২ সাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রাদেশিক রাজধানী ঢাকা ছাড়িয়ে বাংলার জনপদে ছড়িয়ে পড়েছিল আন্দোলন। গফরগাঁও তার বাইরে ছিল না। সারাদেশে তখন রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনের জোয়ার বইছে। কান্দিপাড়া আস্কর আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র আজকের ভাষাসৈনিক মকবুল হোসেন। তিনি তখন সেই স্কুলের ক্লাস ক্যাপ্টেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের টাইপ করা সরকারবিরোধী লিফলেট স্কুল-কলেজে বিতরণ করেন। গঠন করেন স্থানীয়ভাবে ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ। বয়সের ভারে ন্যুব্জ এই বৃদ্ধের বয়স এখন ৮৩ বছর। তবুও ফাগুন এলে মনে জ্বলে দ্রোহের আগুন। অপরজন আব্দুল বাতেন ছিলেন পাঁচবাগ ইউনিয়নের শাঁখচূড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র। এ ছাড়া তাদের সহযোদ্ধা ছিলেন আতাউর রহমান, সিরাজুল হক, আখতার হোসেন প্রমুখ। আজ সেইসব সহযোদ্ধা সবাই প্রয়াত। ৮৮ বছর বয়সে ফেব্রুয়ারি এলেই হয়ে ওঠেন টগবগে যুবক। রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তৎসময়ের এই ছাত্র নেতারা ক্লাস বর্জন কালো ব্যাচ ধারণ মিটিং মিছিল অব্যাহত রাখেন। মিছিল-মিটিং-শোভাযাত্রা নিষিদ্ধ করা হয়। আর ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের নির্দেশনা ছিল যে কোন মূল্যে ১৪৪ ধারা ভেঙ্গে মিছিল ও সভা করা। ১৯৫৫ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় ভাষা সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক মকবুল হোসেন বেলা ১১টায় গফরগাঁও কলেজ মাঠ থেকে সহযোদ্ধাদের নিয়ে স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীর কালো ব্যাচসহ মিছিল বের করেন। মিছিলটি গফরগাঁও থানার কাছে এলে পুলিশ গুলিবর্ষণ ও লাঠিচার্জ করে।

Ñশেখ আব্দুল আওয়াল

গফরগাঁও থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
অসম-মেঘালয়ে ভারি বৃষ্টি ও ঢলের তীব্রতা বৃদ্ধি, বন্যার অবনতি হতে পারে         লকডাউনে সাড়া নেই ওয়ারীবাসীর         চ্যালেঞ্জে কর্মসংস্থান ॥ করোনায় ব্যবসা বাণিজ্য স্থবির         খাদ্যের মাধ্যমে করোনা ছড়ায় না         মিটার না দেখে আর বিল করবে না বিদ্যুত বিতরণ কোম্পানি         বিশ্বে পর পর দুদিন দুই লাখ করে করোনা রোগী শনাক্ত         বিদেশী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম করের আওতায় আনা হবে         জঙ্গী নির্মূলে বিশ্বে রোল মডেল বাংলাদেশ         ফের আলোচনায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত কিট         বেনাপোল-পেট্রাপোল সচল ॥ অবশেষে ভারতে পণ্য রফতানি শুরু         কম শিল্পী, স্পর্শহীন অভিনয়- তবুও চ্যালেঞ্জ গ্রহণ         ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনায় প্রশিক্ষণ দেয়া হবে ॥ আইনমন্ত্রী         করোনা আতঙ্কে রামেক হাসপাতালে দুই লাশ ফেলে লাপাত্তা স্বজনেরা         এন্ড্র্রু কিশোর ফের গুরুতর অসুস্থ         করোনায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালকের মৃত্যু         পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া পরিশোধে ৫৮ কোটি টাকা বরাদ্দ         বয়স্ক, শিশু এবং অসুস্থ মানুষদের পশুর হাটে না যাওয়ার আহ্বান ডিএনসিসি মেয়রের         দুদকের মামলায় আত্মসমর্পণের সুযোগ তৈরি হয়নি : প্রধান বিচারপতি         করোনায় অবরুদ্ধ হলো ওয়ারীর 'রেড জোন'         শুধু বিশেষ পরিস্থিতিতে ভার্চুয়াল আদালত প্রথা অবলম্বন করা হবে : আইনমন্ত্রী        
//--BID Records