বৃহস্পতিবার ৩ আষাঢ় ১৪২৮, ১৭ জুন ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তাদের অবস্থান কাল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অষ্টম জাতীয় বেতন স্কেলে বিদ্যমান বৈষম্যের প্রতিবাদে এবং দাবি বাস্তবায়নে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তারা এবার শিক্ষা ভবনের সামনে সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন। রবিবার বেলা ১১টায় ঢাকায় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) চত্বরে এই কর্মসূচিতে সারা দেশের শিক্ষা কর্মকর্তারা অংশ নেবেন। শনিবার বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির সভাপতি নাসরীন বেগম এবং মহাসচিব আই কে সেলিম উল্লাহ খন্দকার এ বিবৃতিতে এ তথ্য জানান।

এতে বলা হয়, জাতীয় বেতন স্কেলে শিক্ষা ক্যাডারের পদসমূহের বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিকে বিবেচনায় না এনে অধ্যাপক পদের বেতন স্কেল ও গ্রেড অবনমন করা হয়েছে। সিলেকশন গ্রেড ও টাইম স্কেল বাতিল করায় অ্যধাপক, সহকারী অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক এবং অধ্যাপকসহ শিক্ষা ক্যাডারের সকল স্তরের বেতন বৈষম্য বৃদ্ধি পেয়েছে। যার ফলে শিক্ষা ক্যাডারের বিভিন্ন স্তরের প্রায় ১৫ হাজার সদস্য ক্ষতিগ্রস্ত হবেন বলে দাবি করেন তারা। আন্তঃক্যাডার বৈষম্য দূরীকরণের লক্ষ্যে সমিতি দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষা ক্যাডারের পদসমূহ আপগ্রেডেশনের দাবি জানিয়ে আসছেন।

শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তারা প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক অনুমোদনকৃত মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের পদ ১ নম্বর গ্রেডে উন্নীতকরণ বাস্তবায়ন, নায়েমের মহাপরিচালক, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)-এর চেয়ারম্যান, শিক্ষা বোর্ডসমূহের চেয়ারম্যান, জেলা সদরের অনার্স/মাস্টার্স কলেজের অধ্যক্ষ পদ ১ নম্বর গ্রেডে উন্নীতকরণের দাবি জানান।

১ নম্বর গ্রেডের সঙ্গে সঙ্গতি রাখার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর, নায়েম, পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তর (ডিআইএ)-এর পরিচালকের পদসমূহ, অনার্স/মাস্টার্স কলেজের উপাধ্যক্ষ, শিক্ষা বোর্ডসমূহের সচিব এবং জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের সদস্য পদসমূহ ২ নম্বর গ্রেডে উন্নীতকরণ চান শিক্ষকরা। প্রতিটি অনার্স/মাস্টার্স কলেজে প্রতিটি বিভাগে ১ জন করে সিনিয়র অধ্যাপকের পদসৃজনসহ সর্বমোট ২টি অধ্যাপকের পদ সৃজনের দাবি রয়েছে শিক্ষকদের।

১৯৮৩ সালের এনাম কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী অধ্যাপক পদ এবং নন-অনার্স ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ পদ তৃতীয় গ্রেডে উন্নীতকরণ, এনাম কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী স্বাস্থ্য ও কারিগরি শিক্ষা ক্যাডারের মত সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক পদ চতুর্থ গ্রেডে উন্নীতকরণ চেয়েছেন শিক্ষকবৃন্দ।

উচ্চপদে পর্যাপ্ত পদ না থাকায় পদোন্নতির সুযোগ সৃষ্টি না হওয়া এবং বিষয়ভিত্তিক পদোন্নতির কারণে ক্যাডারের ভেতরের আর্থিক বৈষম্য নিরসনে পূর্ব প্রচলিত সিলেকশন গ্রেড ও টাইম স্কেল পুনর্বহাল, প্রজাতন্ত্রের ২৯ ক্যাডারের একটি ক্যাডার হিসেবে অন্যান্য ক্যাডারের সংগে সামঞ্জস্যপূর্ণ সমতাভিত্তিক সুবিধা প্রদান করে অন্য ক্যাডারে প্রদানকৃত গাড়ি ক্রয়ের ঋণ ও রক্ষণাবেক্ষণ ভাতা প্রাপ্তির দাবি জানান শিক্ষা কর্মকর্তারা। দাবি পূরণের এর আগেও শিক্ষা কর্মকর্তারা ক্লাস বর্জনসহ কর্মবিরতি পালন করেছেন।

শীর্ষ সংবাদ:
দ্বিতীয় পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ভূমিসহ ঘর পাচ্ছে ৫৩ হাজার ভূমি ও গৃহহীন পরিবার         রাজশাহীতে করোনায় আরও ১০ জনের মৃত্যু         জো বাইডেন এবং ভ্লাদিমির পুতিনের বৈঠক ইতিবাচক হয়েছে         আরও ৫৩ হাজার বাড়ি ॥ গৃহহীনদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপহার         দেশেও করোনা টিকা উৎপাদনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে         রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সক্রিয় ভ‚মিকা চাই         বঙ্গভ্যাক্স         অর্থপাচার রোধে ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে ॥ অর্থমন্ত্রী         যৌন ভোগ বিলাসের ডিজে পার্টি         গতিহীন মেরিন ফিশিং সেক্টর         অভিযোগ অস্বীকার করতে পারছেন না নাসির ও অমি         সিলেটে দুই সন্তান ও মাকে কুপিয়ে হত্যা         করোনায় একদিনে মৃত্যু বেড়ে ৬০         জনগণ আর অগ্নিসন্ত্রাসী বোমাবাজদের ক্ষমতায় দেখতে চায় না         চরম অমর্যাদাকর সুপারিশের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ         স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা, গ্রামেও ছড়াচ্ছে সংক্রমণ         নিবন্ধন ছাড়া ডে কেয়ার সেন্টার চালালে ২ বছর জেল, জরিমানা         আড়াই কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে বিদেশে পালিয়েছে ডাচ্-বাংলা কর্মকর্তা         মুসলিম বিশ্বকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান রাষ্ট্রপতির         যেখানেই আইন ভঙ্গ হবে সেখানেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নিবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী